সুন্নত উনার গুরুত্ব সম্পর্কে


মহান আল্লাহ পাক তিনি ইরশাদ মুবারক করেন, যে সমস্ত পবিত্র বিষয়টি মহান আল্লাহ পাক হালাল করেছেন, সেগুলো তোমরা হারাম করো না। এ বিষয়ে তোমরা সীমালঙ্ঘন করোনা। নিশ্চয়ই মহান আল্লাহ পাক সীমালঙ্ঘনকারীদের পছন্দ করেন না। এই সম্মানিত আয়াত শরীফ নাযিল হওয়ার জন্য কিছু কারণ রয়েছে। একবার ৩ জন ছাহাবী চটের কাপড় পরিধান করে, মসজিদে নববী শরীফ উনার মধ্যে আসলেন। (১). সাইয়্যিদুনা হযরত ছিদ্দীক্বে আকবার আলাইহিস সালাম। (২). সাইয়্যিদুনা হযরত কাররামাল্লাহু ওয়াজহাহূ আলাইহিস সালাম। (৩). ফকীহুল উম্মত হযরত আব্দুল্লাহ বিন মাসউদ রদ্বিয়াল্লাহু তায়ালা আনহু। তখন নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি বললেন- আপনাদের এ অবস্থা কেন? তখন উনারা বললেন, ইয়া রসূলাল্লাহ ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম! আমরা আপনার খিদমত মুবারক করার লক্ষ্যে ঘর-বাড়ি, সংসার ত্যাগ করে সবকিছু ছেড়ে চলে এসেছি, এটা শুনে নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি কিছুক্ষণ চুপ থাকলেন, কেননা তিনি ওহী মুবারক ছাড়া কোন কথা বলেন না। তখন মহান আল্লাহ পাক তিনি আয়াত শরীফ নাযিল করলেন।
এই যে বিষয়টা, এখানে অনেক ফিকিরের বিষয় রয়েছে। এখন মানুষ ফিকির করে না। উনারা চট পরিধান করলেন। চট পরিধান করা কিন্তু নিষেধ নয়। কিন্তু নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার সুন্নত পালন করাটা কতটা গুরুত্বপূর্ণ সে বিষয়টি স্পষ্ট বুঝিয়ে দিলেন।
মহান আল্লাহ পাক তিনি ইরশাদ মুবারক করলেন, তোমরা আমার হাবীব, নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার অনুসরণ করো তাহলে মহান আল্লাহ পাক তিনি তোমাদের উপর রহমত বর্ষণ করবেন। যারা উনার ইত্তিবা করবে না, তারা সীমালঙ্ঘনকারী। মহান আল্লাহ পাক তাদেরকে পছন্দ করবেন না। এখন সুন্নত মুবারক পালন করাটা ফরয। কেননা কেউ যদি সুন্নত মুবারক পালন না করে তাহলে সে ইচ্ছায় হোক অনিচ্ছায় হোক কাফির-মুশরিকদের অনুসরণ করে। আর হাদীছ শরীফে ইরশাদ মুবারক হয়েছে, “যে যার সাথে মিল রাখে তার সাথেই তার হাশর-নশর হবে।” তাহলে সে কিভাবে মুসলমান থাকবে? আমাদের মুসলমান হতে হলে কাফির-মুশরিকদের সব রকম তর্জ-তরীক্বা বাদ দিয়ে মাথার তালু থেকে পায়ের তলা পর্যন্ত সুন্নত মুবারক উনার ইত্তিবা করতে হবে।
মহান আল্লাহ পাক তিনি যেন আমাদেরকে হাক্বীক্বী মুসলমান হওয়ার তাওফীক দান করেন। আমীন!

Views All Time
1
Views Today
1
শেয়ার করুন
TwitterFacebookGoogle+

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করতে আপনাকে অবশ্যই লগইন করতে হবে