সুমহান পবিত্র ২৫শে শাওওয়াল শরীফ- রহমত, বরকত, নেয়ামত, মাগফিরাত হাছিল করার এক সুমহান দিবস


পবিত্র হাদীছ শরীফে ইরশাদ মুবারক হয়েছে, “নিশ্চয় মহান আল্লাহ পাক উনার ওলীগণ মৃত্যুবরণ করেন না, বরং উনারা অস্থায়ী আবাস থেকে স্থায়ী আবাসের দিকে প্রত্যাবর্তন করেন।” (মিরকাত)
প্রসঙ্গতঃ মহান আল্লাহ পাক উনার যমীনে অন্যতম সর্বশ্রেষ্ঠা ও সুমহান মহিলা ওলীআল্লাহ, মুজাদ্দিদে আ’যম, গাউছুল আ’যম, নূরে মুকাররাম, কুতুবুল আলম, হাবীবুল্লাহ, আওলাদে রসূল, সাইয়্যিদুনা ইমাম রাজারবাগ শরীফ উনার মামদুহ হযরত মুর্শিদ ক্বিবলা আলাইহিস সালাম উনার সুমহান সম্মানিতা আম্মাজান, ক্বায়িম-মাক্বামে উম্মু রসূলিনা ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম, উম্মুল খায়ের, সাইয়্যিদাতুন নিসা, মাখযানুল মা’রিফা, ত্বাহিরা ওয়াত ত্বইয়িবা, ফক্বীহা, ছালিহাহ, হাবীবাতুল্লাহ, হাবীবাতু রসূলিল্লাহ, আওলাদে রসূল, সাইয়্যিদাতুনা হযরত দাদী হুযূর ক্বিবলা আলাইহাস সালাম তিনি ২৫শে শাওওয়াল ১৪৩২ হিজরী সনের শনিবার রাত ১০:৫৫ মিনিটে মহান আল্লাহ পাক উনার সুমহান দিদারের উদ্দেশ্যে পবিত্র বিছালী শান মুবারক প্রকাশ করেন।
প্রকৃতপক্ষে মহান আল্লাহ পাক উনার ওলীগণ ইন্তিকাল বা মৃত্যুবরণ করেন না। এ প্রসঙ্গে ইরশাদ মুবারক হয়েছে, “নিশ্চয় মহান আল্লাহ পাক উনার ওলীগণ মৃত্যুবরণ করেন না, বরং উনারা অস্থায়ী আবাস থেকে স্থায়ী আবাসের দিকে প্রত্যাবর্তন করেন।”
কাজেই ওলীআল্লাহগণের বিছাল শরীফ হচ্ছে, মহান আল্লাহ পাক উনার সাথে মিলন সেতু বা মহান আল্লাহ পাক উনার সুমহান দীদার লাভের মাধ্যম।
আবার হযরত নবী-রসূল আলাইহিমুস সালাম উনাদের মতই আল্লাহ পাক উনার ওলীগণ উনাদের আগমন এবং বিছাল শরীফ উভয়টিই সব উম্মতের জন্য তথা কায়িনাতের জন্য বেমেছাল ফযীলত, ইতমিনান, রহমত হাছিল এবং খুশির কারণ।
মহান আল্লাহ পাক উনি হযরত ইয়াহইয়া আলাইহিস সালাম উনার শানে পবিত্র কালামুল্লাহ শরীফে ইরশাদ মুবারক করেন, “উনার প্রতি সালাম বা শান্তি অবধারিত ধারায় বর্ষিত হোক, যেদিন তিনি দুনিয়ায় আগমন করেন অর্থাৎ বিলাদতী শান মুবারক প্রকাশ করেন ও যেদিন তিনি পবিত্র বিছালী শান মুবারক প্রকাশ করেন আবার যেদিন তিনি জীবিত অবস্থায় পুনরুত্থিত হবেন।” সুবহানাল্লাহ!
উল্লেখ্য, ক্বায়িম-মাক্বামে উম্মু রসূলিনা ছল্লাল্লাহ আলাইহি ওয়া সাল্লাম, উম্মুল খায়ের, সাইয়্যিদাতুনা হযরত দাদী হুযূর ক্বিবলা আলাইহাস সালাম তিনি হচ্ছেন ওলীয়ে মাদারযাদ, মুসতাজাবুদ দা’ওয়াত, আফযালুল ইবাদ, ছাহিবে কাশফ্ ওয়া কারামত, ফখরুল আউলিয়া, ছূফীয়ে বাতিন, ছাহিবে ইস্মে আ’যম, লিসানুল হক্ব, গরীবে নেওয়াজ, আওলাদে রসূল, আমাদের সম্মানিত হযরত দাদা হুযূর ক্বিবলা আলাইহিস সালাম উনার সম্মানিতা যাওজাতুল মুকাররমা। মহান আল্লাহ পাক ও উনার হাবীব, নুরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনাদের সন্তুষ্টি মুবারক উনার উদ্দেশ্যে জীবনের প্রতিটি মুহূর্ত তিনি ছিলেন ওলীয়ে মাদারযাদ, মুসতাজাবুদ্ দা’ওয়াত হযরত দাদা হুযূর ক্বিবলা আলাইহিস সালাম উনার বেমেছাল খিদমতে নিবেদিত। বেমেছাল তাক্বওয়া, পরহিযগারী তথা আত্বকান নাছ হওয়ায় অর্থাৎ চরম-পরম, সর্বোচ্চ, সর্বশ্রেষ্ঠ মাক্বাম তথা মর্যাদা-মর্তবার অধিকারী হওয়ার ফলে যমীনে রেখে গেছেন মহান আল্লাহ পাক উনার যমীনের সর্বযুগের সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ট লক্ষ্যস্থল ওলীআল্লাহ, বর্তমান বিশ্বের মুসলমানের একমাত্র ইমাম, বর্তমান পনের হিজরী শতকের সুমহান মুজাদ্দিদ তথা মুজাদ্দিদে আ’যম, কুতুবুল আলম, গাওছুল আ’যম, খলীফাতুল্লাহ, খলীফাতু রসূলিল্লাহ, হাবীবুল্লাহ, আওলাদে রসূল ঢাকা রাজারবাগ শরীফ উনার মহান মামদূহ হযরত মুর্শিদ ক্বিবলা আলাইহিস সালাম উনাকে। সুবহানাল্লাহ!
উনি আরো রেখে গেছেন হযরত নাক্বিবাতুল উমাম আলাইহাস সালাম উনাকে, হযরত নিবরাসাতুল উমাম আলাইহাস সালাম উনাকে, হযরত খলীফাতুল উমাম আলাইহিস সালাম উনাকে, হযরত উম্মুল উমাম আলাইহাস সালাম উনাকে, হযরত শাফিউল উমাম আলাইহিস সালাম উনাকে, হযরত সাইয়্যিদুল উমাম আলাইহিস সালাম উনাকে এবং হযরত সাইয়্যিদাতুল উমাম আলাইহিমুস সালাম উনাদেরকে। সুবহানাল্লাহ!
হযরত উম্মুল মু’মিনীন আলাইহিন্নাস সালাম উনাদের মতো মুজাদ্দিদে আ’যম, হাবীবুল্লাহ মামদূহ হযরত মুর্শিদ ক্বিবলা আলাইহিস সালাম উনার বরকতময় সুমহান জীবনে সুখে-দুঃখে, সম-আনন্দে, সম-বেদনায়, তাজদীদী কাজে সাহায্য-সহযোগিতায় এবং সম্মানিত দ্বীন ইসলাম উনার যাহির-বাতিন আঞ্জামে, সহমমির্তায় তথা খিলাফত আলা মিনহাযিন নুবুওওয়াত উনার ভিত প্রতিষ্ঠায় মাখযানুল মা’রিফা, ত্বাহিরা ওয়াত ত্বইয়িবা হযরত দাদী হুযূর ক্বিবলা আলাইহাস সালাম উনাকে অনুপ্রেরণা যুগিয়েছেন, উনার পাশে ছিলেন ছায়ার মতো।
অর্থাৎ সর্বক্ষেত্রে ক্বায়িম-মাক্বামে হযরত উম্মু রসূলিনা ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম, উম্মুল খায়ের, সাইয়্যিদাতুন নিসা, মাখযানুল মা’রিফা, ত্বাহিরা ওয়াত ত্বইয়িবা, ফাক্বীহা, ছালিহাহ, হাবীবাতুল্লাহ, হাবীবাতু রসূলিল্লাহ, আওলাদে রসূল, সাইয়্যিদাতুনা হযরত দাদী হুযূর ক্বিবলা আলাইহাস সালাম উনার কোনো মেছাল নেই, উনি বেমেছাল বরং উনার মেছাল স্বয়ং উনি নিজেই। সুবহানাল্লাহ!

Views All Time
2
Views Today
2
শেয়ার করুন
TwitterFacebookGoogle+

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করতে আপনাকে অবশ্যই লগইন করতে হবে