সুমহান ১৪ই যিলক্বদ শরীফ- যেদিন তাশরীফ এনেছেন শেরে খোদা সাইয়্যিদুনা হযরত শাফিউল উমাম আলাইহিস সালাম


পবিত্র ১৪ই যিলক্বদ শরীফ কুতুবুল আলম, আওলাদে রসূল শেরে খোদা শাহদামাদে মুজাদ্দিদে আ’যম সাইয়্যিদুনা হযরত শাফিউল উমাম আলাইহিস সালাম উনার পবিত্রতম বিলাদতী শান মুবারক প্রকাশ দিবস। খালিক্ব মালিক রব মহান আল্লাহ পাক রব্বুল আলামীন তিনি প্রতি যামানায় অসংখ্য-অগণিত ওলীআল্লাহ উনাদেরকে জিন ও বিশেষ করে ইনসানের (মানুষের) হিদায়েত দানের লক্ষ্যে প্রেরণ করেছেন এবং ক্বিয়ামত পর্যন্ত প্রেরণ করতে থাকবেন।
যে সম্পর্কে স্বয়ং খালিক্ব মালিক রব মহান আল্লাহ পাক রব্বুল আলামীন তিনি পবিত্র কুরআন শরীফ উনার মধ্যে ইরশাদ মুবারক করেন, “নিশ্চয়ই আমি যমীনে খলীফা প্রেরণ করবো।”
এই পবিত্র আয়াত শরীফ উনার মধ্যে হাক্বীক্বী মিছদাক্ব খালিক্ব মালিক রব মহান আল্লাহ পাক রব্বুল আলামীন উনার আখাছছুল খাছ ওলী এবং বিশেষভাবে খলীফা হিসেবে মনোনীত শাফিউল উমাম, আওলাদে রসূল, সাইয়্যিদুনা হযরত শাহদামাদ আউওয়াল আলাইহিস সালাম উনার সাথে বর্তমান পঞ্চদশ হিজরী শতকের মহান মুজাদ্দিদ, মুজাদ্দিদে আ’যম, খলীফাতু রসূলিল্লাহ, হাবীবুল্লাহ, আওলাদে রসূল, সাইয়্যিদুনা হযরত ইমামুল উমাম আলাইহিস সালাম উনার প্রথমা আওলাদ- যিনি আফযালুন নিসা, ফক্বিহাতুন নিসা, ত্বাহিরাহ, ত্বইয়িবাহ, আলিমা, আবিদাহ, হাফিযাহ, বিনতে মুজাদ্দিদে আ’যম, সাইয়্যিদাতুনা হযরত নাক্বীবাতুল উমাম আলাইহাস সালাম উনার মুবারক আক্বদ সুসম্পন্ন হয় এবং উনাদের মাধ্যমেই দুনিয়ার যমীনে তাশরীফ নিয়েছেন তিন নববী নূরী ফুল তথা সাইয়্যিদাতুল উমাম হযরত শাহ নাওয়াসী ক্বিবলা আলাইহিন্নাস সালাম উনারা।
কুতুবুল আলম, শাফিউল উমাম, সাইয়্যিদুনা হযরত শাহদামাদে আউওয়াল ক্বিবলা আলাইহিস সালাম তিনি হলেন খাছ আওলাদে রসূল; যাঁদের সম্পর্কে খালিক্ব মালিক রব মহান আল্লাহ পাক রব্বুল আলামীন তিনি পবিত্র কুরআন শরীফ উনার মধ্যে ইরশাদ মুবারক ফরমান, “হে আমার হাবীব ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম! আপনি (উম্মতদেরকে) বলুন, আমি তোমাদের নিকট কোনো প্রতিদান চাই না। (আর তোমাদের পক্ষে তা দেয়াও সম্ভব নয়) তবে যেহেতু তোমাদের ইহকাল ও পরকালে নাজাত লাভ করতে হবে, মুহব্বত-মা’রিফাত, রেযামন্দি মুবারক হাছিল করতে হবে; সেহেতু তোমাদের দায়িত্ব-কর্তব্য হচ্ছে- আমার নিকটজন তথা হযরত আহলু বাইত শরীফ আলাইহিমুস সালাম ও আওলাদ আলাইহিমুস সালামগণ উনাদের প্রতি তোমরা সদাচারণ করবে।” (পবিত্র সূরা শূরা শরীফ : পবিত্র আয়াত শরীফ ২৩)
আওলাদে রসূল উনাদের শান, মান, ফাযায়িল-ফযীলত, মর্যাদা-মর্তবা, বুযূর্গী-সম্মান আলোচনা করে তো শেষ করা যাবে না। কাজেই বলার অপেক্ষা রাখে না যে, কুতুবুল আলম, শাফিউল উমাম, সাইয়্যিদুনা হযরত শাহদামাদে আউওয়াল আলাইহিস সালাম উনার মর্যাদা-মর্তবা, ফাযায়িল-ফযীলত, বুযূর্গী ও সম্মান কতটুকু তা চিন্তা ও ফিকিরের বিষয়। বিশেষভাবে উল্লেখ্য যে, কুতুবুল আলম, আওলাদে রসূল, শাফিউল উমাম, সাইয়্যিদুনা হযরত শাহদামাদে আউওয়াল আলাইহিস সালাম উনার পবিত্র বিলাদতী শান মুবারক প্রকাশ দিবস মুবারক ১৪ই যিলক্বদ শরীফ।
উনার মুহব্বত-মা’রিফত, নিসবত-তাওয়াল্লুক, সন্তুষ্টি ও রেযামন্দি পেতে সকল বান্দা-বান্দী অর্থাৎ সকল মু’মিন-মু’মিনা মুসলমানদের দায়িত্ব-কর্তব্য হবে- উনাকে অনুসরণ করা, মুহব্বত করা এবং উনার পবিত্র বিলাদতী শান মুবারক প্রকাশ করার দিবসে পবিত্র মীলাদ শরীফ, ওয়াজ শরীফ ও সামা শরীফ মাহফিলের আয়োজন করা তথা ১৪ যিলক্বদ শরীফকে যথাযথ মর্যাদায় উদযাপন করা।
খালিক্ব মালিক রব মহান আল্লাহ পাক রব্বুল আলামীন তিনি আমাদের সকলকে সেই তাওফীক দান করুন। আমীন!

Views All Time
1
Views Today
1
শেয়ার করুন
TwitterFacebookGoogle+

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করতে আপনাকে অবশ্যই লগইন করতে হবে