সুমহান ২২শে জুমাদাল ঊখরা শরীফ :


সুমহান ২২শে জুমাদাল ঊখরা শরীফ :
**************************************
জুমাদা নামের দুটি মাস উনার দ্বিতীয় মাসটি তথা আরবী মাস সমূহের ষষ্ঠ মাস হচ্ছে পবিত্র “জুমাদাল ঊখরা”। জুমাদা শব্দটি মুয়ান্নাছ (স্ত্রী লিঙ্গ) এবং তার অর্থ জমাট পানি বা বরফ। সে হিসেবে তার পরে “ঊখরা” শব্দটিও আখির শব্দ থেকে মুয়ান্নাছ এবং এর অর্থ শেষ। আর আরবী মাসসমূহের মধ্যে জুমাদা নাম মাস দুটিই শব্দগতভাবে মুয়ান্নাছ হিসেবে ব্যবহৃত হয়ে থাকে।
মূলত, এ মাসটি মর্যাদা ও ফযীলত লাভের অনেক কারণের মধ্যে একটি বিশেষ কারণ হলো- ১৩ হিজরী উনার ২১শে জুমাদাল ঊখরা সোমবার শরীফ দিবাগত রাত্রিতে অর্থাৎ ২২শে জুমাদাল ঊখরা মঙ্গলবার হযরত ছিদ্দীক্বে আকবর আলাইহিস সালাম উনার পবিত্র বিছাল শরীফ সংঘটিত হয়।সুবহানাল্লাহ।
 
উনার ফাযায়িল ফযিলত বেমেছাল, তন্মধ্যে কিঞ্চিত আলোচনা করা হলো :-
**************************************************************************
মহান আল্লাহ পাক তিনি পবিত্র কালামুল্লাহ শরীফ উনার মধ্যে ইরশাদ মুবারক করেন,
فَإِنْ آمَنُواْ بِمِثْلِ مَا آمَنتُم بِهِ فَقَدِ اهْتَدَواْ
অর্থ: “যদি তারা ওইরূপ পবিত্র ঈমান আনে যেরূপ আপনারা (হযরত ছাহাবায়ে কিরাম রদ্বিয়াল্লাহু তায়ালা আনহুম) পবিত্র ঈমান এনেছেন। তাহলে তারা হিদায়েত লাভ করবে।” (পবিত্র সূরা বাক্বারা শরীফ: পবিত্র আয়াত শরীফ ১৩৭) সুবহানাল্লাহ।
 
মহান আল্লাহ পাক তিনি ইরশাদ মুবারক করেন,
 
ثَانِيَ اثْنَيْنِ إِذْ هُمَا فِي الْغَارِ إِذْ يَقُوْلُ لِصَاحِبِهِ لَا تَحْزَنْ إِنَّ اللهَ مَعَنَا.
 
অর্থ- “দু’জনের দ্বিতীয়। যখন উনারা (সাওর) গুহায় অবস্থান মুবারক করছিলেন, তখন তিনি উনার ছাহিব তথা সঙ্গী, ছাহাবী, খাদিম উনাকে বললেন, আপনি চিন্তিত হবেন না। নিশ্চয়ই মহান আল্লাহ পাক তিনি আমাদের সাথে রয়েছেন।” (সম্মানিত সূরা তাওবা শরীফ : সম্মানিত আয়াত শরীফ- ৪০)
হাদীছ শরীফ উনার মধ্যে ইরশাদ মুবারক হয়েছে, “নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি ইরশাদ মুবারক করেন, তারকারাজির সমপরিমাণ নেকী রয়েছে হযরত ফারূক্বে আ’যম আলাইহিস সালাম উনার। আর হিজরত মুবারক উনার সময় পবিত্র ছাওর গুহায় অবস্থানকালীন সময়ে হযরত ছিদ্দীক্বে আকবর আলাইহিস সালাম তিনি যে নেকী হাছিল করেছেন, তা হযরত ফারূক্বে আ’যম আলাইহিস সালাম উনার সমস্ত নেকী মুবারক উনার সমান। সুবহানাল্লাহ!
 
হযরত ছিদ্দীক্বে আকবর আলাইহিস সালাম উনার মুবারক ইমামতি সম্পর্কে পবিত্র হাদীছ শরীফ উনার মধ্যে ইরশাদ মুবারক হয়েছে-
 
عن ام الـمؤمنين حضرت حفصة عليها السلام قالت يا رسول الله صلى الله عليه وسلم انك اذا اعتللت قدمت ابا بكر عليه السلام فقال لست انا الذى قدمته ولكن الله الذى قدمه.
 
অর্থ:- “উম্মুল মু’মিনীন হযরত হাফসা আলাইহাস সালাম উনার থেকে বর্ণিত। তিনি বলেন- ইয়া রসূলাল্লাহ ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম! আপনি যখন পবিত্র মারিদ্বী শান মুবারক প্রকাশ করেন, তখন হযরত ছিদ্দীক্বে আকবর আলাইহিস সালাম উনাকে সম্মানিত ইমাম হিসেবে মনোনীত করেন। তখন নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি ইরশাদ মুবারক করেন- আমি হযরত ছিদ্দীক্বে আকবর আলাইহিস সালাম উনাকে অগ্রবর্তী করিনি। বরং স্বয়ং মহান আল্লাহ পাক তিনি উনাকে অগ্রবর্তী তথা সম্মানিত ইমাম হিসেবে মনোনীত করেন।” সুবহানাল্লাহ! (মুসনাদে আহমদ)
মূলত, পবিত্র মসজিদে নববী শরীফ-এ ইমামতি করা হযরত ছিদ্দীক্বে আকবর আলাইহিস সালাম উনার যেরূপ বিশেষ শান মুবারক, তেমনিভাবে তা উনার খলীফাতু রসূলিল্লাহ ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লম হওয়ার আলামত মুবারক; যা বলাই বাহুল্য।
 
‘তাফসীরে জালালাইন শরীফ’ উনার মধ্যে উল্লেখ আছে,
سما الله ابابكر صديقا على لسان حضرت جبريل عليه السلام ورسولنا صلى الله عليه وسلم-
অর্থ: “মহান আল্লাহ পাক তিনি নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার ও হযরত জীব্রীল আলাইহিস সালাম উনার মাধ্যমে সাইয়্যিদুনা হযরত আবূ বকর ছিদ্দীক্ব আলাইহিস সালাম উনাকে ‘ছিদ্দীক্ব’ লক্বব মুবারক হাদিয়া করেন।” সুবহানাল্লাহ!
‘ছিদ্দীক্ব’ লক্বব মুবারক হাদিয়া করার কারণ হচ্ছে তিনি একজন কাফিরের মুখে নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার পবিত্র মি’রাজ শরীফ উনার সম্পর্কে অবগত হয়ে বিনা চু-চেরা ও ক্বীল-ক্বালে উনার পবিত্র মি’রাজ শরীফ বিশ্বাস করেন। তাই উনাকে ‘ছিদ্দীক্ব’ বা ‘ছিদ্দীক্বে আকবর’ হিসেবে সম্বোধন করা হয়।
 
অতএব, আমরা যদি ছিদ্দীক্বিয়াতের হিস্যা লাভ করতে চাই, তাহলে আমাদের জন্যও দায়িত্ব-কর্তব্য হচ্ছে- উনাকে অনুসরণ করে পবিত্র ইসলামী শরীয়ত উনার প্রতিটি বিষয় বিনা চু-চেরা ও ক্বীল-ক্বালে বাহ্যিক ও আভ্যন্তরীণ উভয় দিক দিয়ে মেনে নিয়ে যথাযথ আমল করা। মহান রব তায়ালা আমাদেরকে সে তৌফিক দান করুন। আমিন।
Views All Time
1
Views Today
1
শেয়ার করুন
TwitterFacebookGoogle+

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করতে আপনাকে অবশ্যই লগইন করতে হবে