সুমহান ২২শে জুমাদাল ঊলা শরীফ হযরত আব্দুল মুত্ত্বালিব আলাইহিস সালাম উনার বিছালী শান মুবারক প্রকাশ দিবস।


নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি ইরশাদ মুবারক করেন- আমি সবসময় পূত-পবিত্র পুরুষ আলাইহিমুস সালাম উনাদের এবং পূত-পবিত্রা মহিলা আলাইহিন্নাস সালাম উনাদের মাধ্যম দিয়ে স্থানান্তরিত হয়েছি। সুবহানাল্লাহ!

সুমহান বেমেছাল বরকতময় ২২শে জুমাদাল ঊলা শরীফ-সাইয়্যিদুনা হযরত আব্দুল মুত্ত্বালিব আলাইহিস সালাম সাইয়্যিদু কুরাইশ, সাইয়্যিদুন নাস, মালিকুল জান্নাহ, জাদ্দু রসূলিল্লাহ ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার মহাসম্মানিত বরকতময় বিছালী শান মুবারক প্রকাশ দিবস।

অতএব, সকল মুসলমানদের জন্য ফরয হচ্ছে- উনার পবিত্র সাওয়ানেহ উমরী মুবারক জেনে উনাকে মুহব্বত, তা’যীম-তাকরীম ও অনুসরণ-অনুকরণ করা।আর সরকারের জন্যও ফরয হচ্ছে- উনার পবিত্র জীবনী মুবারক শিশুশ্রেণী থেকে শুরু করে সর্বোচ্চ শ্রেণী পর্যন্ত সমস্ত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে সিলেবাসের অন্তর্ভুক্ত করা এবং উনার পবিত্র বিছালী শান মুবারক প্রকাশ দিবস উপলক্ষে সরকারি ছুটি ঘোষণা করা।

যামানার লক্ষ্যস্থল ওলীআল্লাহ, যামানার ইমাম ও মুজতাহিদ, ইমামুল আইম্মাহ, মুহইউস সুন্নাহ, কুতুবুল আলম, মুজাদ্দিদে আ’যম, ক্বইয়ূমুয যামান, জাব্বারিউল আউওয়াল, ক্বউইয়্যূল আউওয়াল, সুলত্বানুন নাছীর, হাবীবুল্লাহ, জামিউল আলক্বাব, আওলাদে রসূল, মাওলানা সাইয়্যিদুনা হযরত ইমামুল উমাম আলাইহিস সালাম তিনি বলেন, মহান আল্লাহ পাক উনার সৃষ্টিজগতে যেই সকল সুমহান ব্যক্তিত্ব মুবারক শান-মান, ফাযায়িল-ফযীলত, বুযূর্গী-সম্মান মুবারক এবং শ্রেষ্ঠত্ব মুবারক উনার দিক থেকে সর্বোচ্চ শিখরে অধিষ্ঠিত উনাদের মধ্যে অন্যতম হচ্ছেন সাইয়্যিদুন নাস, সাইয়্যিদু কুরাইশ, সাইয়্যিদুল আরব ওয়াল আজম, আল ফাইয়্যায, মালিকুল জান্নাহ, মালিকুল কায়িনাত, জাদ্দু রসূলিল্লাহ ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম সাইয়্যিদুনা হযরত আব্দুল মুত্ত্বালিব আলাইহিস সালাম তিনি। সুবহানাল্লাহ! তিনি শুধু মহান আল্লাহ পাক তিনি নন এবং নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি নন; এছাড়া সমস্ত শান-মান, ফাযায়িল-ফযীলত, বুযূর্গী-সম্মান মুবারক উনাদের অধিকারী। সুবহানাল্লাহ! উনার সম্মানিত মুহব্বত মুবারকই হচ্ছেন ঈমান। উনার সবচেয়ে বড় পরিচয় মুবারক হচ্ছেন, তিনি হচ্ছেন নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার মহাসম্মানিত দাদাজান আলাইহিস সালাম। সুবহানাল্লাহ!মুজাদ্দিদে আ’যম, সাইয়্যিদুনা হযরত ইমামুল উমাম আলাইহিস সালাম তিনি বলেন, মহান আল্লাহ পাক তিনি ইরশাদ মুবারক করেন, (হে আমার হাবীব ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম!) আপনার স্থানান্তরিত হওয়ার বিষয়টি ছিল সিজদাকারীগণ উনাদের মাধ্যমে।” সুবহানাল্লাহ! এপ্রসঙ্গে ‘তাফসীরে কবীর শরীফ’ উনার মধ্যে উল্লেখ রয়েছে, “এই সম্মানিত আয়াত শরীফ থেকে প্রমাণিত হয় যে, নিশ্চয়ই নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার সম্মানিত পূর্বপুরুষ আলাইহিমুস সালাম উনারা সকলেই মুসলমান ছিলেন, ঈমানদার ছিলেন।” সুবহানাল্লাহ! উক্ত তাফসীরে আরো উল্লেখ আছে, “নিশ্চয়ই নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার সম্মানিত নূর মুবারক সিজদাকারীগণ উনাদের মাধ্যমে স্থানান্তরিত হয়েছিলেন।” সুবহানাল্লাহ!মুজাদ্দিদে আ’যম, সাইয়্যিদুনা হযরত ইমামুল উমাম আলাইহিস সালাম তিনি বলেন, নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি ইরশাদ মুবারক করেন- “আমি সবসময় পূত-পবিত্র পুরুষ আলাইহিমুস সালাম উনাদের এবং পূত-পবিত্রা মহিলা আলাইহিন্নাস সালাম উনাদের মাধ্যম দিয়ে স্থানান্তরিত হয়েছি।” সুবহানাল্লাহ! এখান থেকেই সাইয়্যিদুনা হযরত জাদ্দু রসূলিল্লাহ ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার সম্মানিত বংশীয় পবিত্রতা মুবারক উনার বিষয়টি স্পষ্ট হয়ে যায়। সুবহানাল্লাহ!মুজাদ্দিদে আ’যম, সাইয়্যিদুনা হযরত ইমামুল উমাম আলাইহিস সালাম তিনি বলেন, সম্মানিত নাম মুবারক: কেউ বলেছেন উনার মূল নাম মুবারক ছিলেন, সাইয়্যিদুনা হযরত আমির আলাইহিস সালাম। কেউ বলেছেন, সাইয়্যিদুনা হযরত শায়বাহ আলাইহিস সালাম। আবার কেউ বলেছেন, সাইয়্যিদুনা হযরত শায়বাতুল হামদ আলাইহিস সালাম। তবে তিনি সকলের মাঝে সাইয়্যিদুনা হযরত আব্দুল মুত্ত্বালিব আলাইহিস সালাম হিসেবে পরিচিত ছিলেন। এটা উনার মূল নাম মুবারক নয়। আমরা উনার সম্মানিত জীবনী মুবারক-এ এই বিষয়ে আলোচনা করবো ইনশাআল্লাহ!সম্মানিত লক্বব মুবারক: সাইয়্যিদুন নাস, সাইয়্যিদু কুরাইশ, সাইয়্যিদুল আরব ওয়াল আজম, আল ফাইয়্যায, যুল মাজদি ওয়াস সু’দাদ, মুত্ব‘ইমুল ইন্সি ওয়াল ওয়াহ্শি ওয়াত ত্বইর, সাইয়্যিদুল বাত্বহা’, আবুল বাত্বহা’, শায়বাতুল হামদ, আহলু বাইতি রসূলিল্লাহ ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামÑ এছাড়াও আরো অসংখ্য অগণিত। সুবহানাল্লাহ!যেই সম্মানিত লক্বব মুবারক-এ সম্মানিত পরিচিতি মুবারক গ্রহণ করেছেন: সাইয়্যিদুনা হযরত জাদ্দু রসূলিল্লাহ ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম। সুবহানাল্লাহ!সম্মানিত কুনিয়াত মুবারক: আবূ আব্দিল্লাহ আলাইহাস সালাম, আবুল হারিছ আলাইহিস সালাম। সুবহানাল্লাহ!সম্মানিত আব্বাজান আলাইহিস সালাম: সাইয়্যিদুল আরব ওয়াল আজম, সাইয়্যিদু কুরাইশ, মাহবূবে এলাহী, আল জাদ্দুছ ছানী লিরসূলিল্লাহ ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম সাইয়্যিদুনা হযরত হাশিম ইবনে আবদে মানাফ আলাইহিস সালাম তিনি। সুবহানাল্লাহ!মহাসম্মানিতা আম্মাজান আলাইহাস সালাম: আল জাদ্দাতুছ ছানীয়াহ লিরসূলিল্লাহ ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম, হাবীবাতুল্লাহ, আত্ব ত্বাহিরাহ, আত্ব ত্বইয়িবাহ সাইয়্যিদাতুনা হযরত সালমা বিনতে আমর আলাইহাস সালাম। সুবহানাল্লাহ!মহাসম্মানিত দাদাজান আলাইহিস সালাম: সাইয়্যিদুল আরব ওয়াল আজম, সাইয়্যিদু কুরাইশ, মাহবূবে এলাহী, আল জাদ্দুছ ছালিছ লিরসূলিল্লাহ ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম সাইয়্যিদুনা হযরত আবদু মানাফ ইবনে কুছই আলাইহিস সালাম তিনি। সুবহানাল্লাহ!মহাসম্মানিত দাদীজান আলাইহাস সালাম: আল জাদ্দাতুছ ছালিছাহ লিরসূলিল্লাহ ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম, হাবীবাতুল্লাহ, আত্ব ত্বাহিরাহ, আত্ব ত্বইয়িবাহ সাইয়্যিদাতুনা হযরত ‘আতিকাহ বিনতে মুররাহ আলাইহাস সালাম। সুবহানাল্লাহ!মহাসম্মানিত বরকতময় বিলাদতী শান মুবারক প্রকাশ করার সম্মানিত স্থান মুবারক: সম্মানিত মদীনা শরীফ শরীফ।সম্মানিত অবস্থান মুবারক: সম্মানিত মক্কা ও সম্মানিত মদীনা শরীফ।সম্মানিত দ্বীন: দ্বীনে হানীফ।সম্মানিত যাওজাতুম মুক্কাররমাহ: ৬ জন।সম্মানিত আওলাদ: আবনা’ (ছেলে) ১৩ জন এবং বানাত (মেয়ে) ৬ জন। উনার সর্বশ্রেষ্ঠ ও সবচেয়ে প্রিয় আওলাদ সাইয়্যিদুনা হযরত আব্দুল্লাহ আলাইহিস সালাম। সুবহানাল্লাহ!সম্মানিত বরকতময় বিছালী শান মুবারক প্রকাশ: সম্মানিত নুবুওওয়াতী শান মুবারক প্রকাশের প্রায় ৩২ বছর পূর্বে ২২শে জুমাদাল ঊলা শরীফ ইয়াওমুল ইছনাইনিল আযীম শরীফ। সুবহানাল্লাহ! তখন দুনিয়াবী জিন্দেগী মুবারক অনুযায়ী নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার সম্মানিত বয়স মুবারক ছিলেন ৮ বছর ২ মাস ১০ দিন।সম্মানিত বরকতময় বিছালী শান মুবারক প্রকাশ করার স্থান মুবারক: সম্মানিত মক্কা শরীফ।সম্মানিত রওযা শরীফ: সম্মানিত মক্কা শরীফ।মুজাদ্দিদে আ’যম, সাইয়্যিদুনা হযরত ইমামুল উমাম আলাইহিস সালাম তিনি বলেন, মূলকথা হলো- সুমহান বেমেছাল বরকতময় ২২শে জুমাদাল ঊলা শরীফ-সাইয়্যিদুনা হযরত আব্দুল মুত্ত্বালিব আলাইহিস সালাম সাইয়্যিদু কুরাইশ, সাইয়্যিদুন নাস, মালিকুল জান্নাহ, জাদ্দু রসূলিল্লাহ ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার মহাসম্মানিত বরকতময় বিছালী শান মুবারক প্রকাশ দিবস।অতএব, সকল মুসলমানদের জন্য ফরয হচ্ছে- উনার পবিত্র সাওয়ানেহ উমরী মুবারক জেনে উনাকে মুহব্বত, তা’যীম-তাকরীম ও অনুসরণ-অনুকরণ করা। আর সরকারের জন্যও ফরয হচ্ছে- উনার পবিত্র জীবনী মুবারক শিশুশ্রেণী থেকে শুরু করে সর্বোচ্চ শ্রেণী পর্যন্ত সমস্ত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে সিলেবাসের অন্তর্ভুক্ত করা এবং উনার পবিত্র বিছালী শান মুবারক প্রকাশ দিবস উপলক্ষে সরকারি ছুটি ঘোষণা করা।

Views All Time
1
Views Today
1
শেয়ার করুন
TwitterFacebookGoogle+

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করতে আপনাকে অবশ্যই লগইন করতে হবে