হজ্জ ফরজ। তবে ছবি তুলে ও বেপর্দা হয়ে নয়


মহান আল্লাহ পাক তিনি ইরশাদ মুবারক করেন, “যে ব্যক্তির প্রতি পবিত্র হজ্জ ফরয সে যেন পবিত্র হজ্জ পালন করতে গিয়ে বেহায়া, বেপর্দামূলক কোনো অশ্লীল-অশালীন কাজ না করে এবং কোনো প্রকার ফাসিকী বা নাফরমানীমূলক কাজ না করে এবং ঝগড়া-বিবাদ না করে।” (পবিত্র সূরা বাক্বারা শরীফ, আয়াত শরীফ: ১৯৭)

সাইয়্যিদুল মুরসালীন, ইমামুল মুরসালীন, নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি ইরশাদ মুবারক করেন, “যে ব্যক্তি মহান আল্লাহ পাক উনার সন্তুষ্টি মুবারক লাভের নিয়তে পবিত্র হজ্জ করে এবং পবিত্র হজ্জ পালনকালে কোনো রকম বেপর্দা ও বেহায়াপনা এবং নাফরমানীমূলক কাজ না করে, সে এমন নিস্পাপ হয়ে ঘরে প্রত্যাবর্তন করে যেন আজকেই সে ভুমিষ্ট হয়েছে।” (বুখারী শরীফ ও মুসলিম শরীফ)

উক্ত আয়াত শরীফ ও হাদীছ শরীফ সহজেই বুঝা যাচ্ছে যে, পবিত্র হজ্জ কেবল মাত্র মহান আল্লাহ পাক উনার সন্তুষ্টির জন্য করতে হবে এবং পবিত্র হজ্জ পালন করতে গিয়ে সকল প্রকার বেপর্দা, বেহায়ামূলক অশ্লীল-অশালীন ও নাফরমানীমূলক কাজ থেকে বিরত থাকতে হবে। কিন্তু বর্তমানে সউদী ওহাবী-ইহুদী সরকার এবং গুমরা শাসকদের গুমরাহীর কারণে পবিত্র হজ্জ পালন করতে হলে পাসপোর্টের জন্য ছবি তুলতে হচ্ছে, সউদী আরবে নিরাপত্তার (!!) নামে স্থাপিত সিসিটিভি ক্যামেরার মাধ্যমে কোটি কোটি ছবি তোলা হচ্ছে, পুরুষ-মহিলা একত্রে হজ্জ পালনের মাধ্যমে বেপর্দা করা হচ্ছে। এই সমস্ত বেপর্দা, বেহায়ামূলক অশ্লীল-অশালীন ও নাফরমানীমূলক কাজ মাধ্যমে হজ্জে মাবরুর তো হচ্ছেই না বরং জাহান্নামী হওয়ার পথকে সুগম করছে।

কারণ ছবি তোলা সম্পর্কে পবিত্র হাদীছ শরীফ উনার মধ্যে ইরশাদ মুবারক হয়েছে, “প্রত্যেক ছবি তোলনে ওয়ালা, তোলানেওয়ালা জাহান্নামী।”

পর্দা সম্পর্কে পবিত্র হাদীছ শরীফ উনার মধ্যে ইরশাদ মুবারক হয়েছে, “দাইয়্যুছ পবিত্র জান্নাত উনার মধ্যে প্রবেশ করতে পারবে না।” যে নিজে পর্দা করে না এবং তার পরিবারের কাউকে পর্দা করায় না- সেই ব্যক্তিই দাইয়্যুছ। পর্দা সম্পর্কে আরো ইরশাদ মুবারক হয়েছে, “যে দেখায় এবং দেখে উভয়ের প্রতি মহান আল্লাহ পাক উনার লা’নত।”

উপরোক্ত হাদীছ শরীফগুলো দ্বারা সহজে বুঝা যাচ্ছে যে, যে ব্যক্তি ছবি তোলে কিংবা তোলায় এবং বেপর্দা হয় সে নিশ্চিত জাহান্নামী। সুতরাং হজ্জে মাবরুর করতে হলে সউদী আরব সহ সকল দেশকে পাসপোর্টের জন্য ছবির পরিবর্তে ফিঙ্গারপ্রিন্ট প্রবর্তন করতে হবে, সউদী ওহাবী-ইহুদী সরকারকে সকল সিসিটিভি ক্যামেরাগুলো নামিয়ে ফেলতে হবে এবং পুরুষ-মহিলাদের জন্য পর্দার সাথে পবিত্র হজ্জ পালনের সুব্যবস্থা করতে হবে।

 

Views All Time
1
Views Today
1
শেয়ার করুন
TwitterFacebookGoogle+

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করতে আপনাকে অবশ্যই লগইন করতে হবে