হযরত আহলু বাইত শরীফ আলাইহিমুস সালাম উনাদের ফাযায়িল ফযিলত।


হযরত আহলু বাইত শরীফ আলাইহিমুস সালাম উনাদের ফাযায়িল ফযিলত।
**************************************************************************
احبوا اهل بيتى لحبى. (ترمذى)

অর্থ: আমার সম্মানিত পবিত্র হযরত আহলু বাইত শরীফ আলাইহিমুস সালাম উনাদেরকে মুহব্বত করো আমার মুহব্বতে। (তিরমিযী শরীফ)

পূর্ব প্রকাশিতের পর।
********************
হযরত আব্দুর রহমান রহমতুল্লাহি আলাইহি তিনি উনার পিতা হযরত আবু লাইলা রদ্বিয়াল্লাহু তায়ালা আনহু উনার থেকে বর্ণনা করেন। তিনি বলেন, নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি ইরশাদ মুবারক করেন,
لا يؤمن عبد حتى اكون احب اليه من نفسه ويكون عترتى احب اليه من عترته ويكون اهلى احب اليه من اهله ويكون ذاتى احب اليه من ذاته.
অর্থ: “কোনো বান্দা ততক্ষণ পর্যন্ত মু’মিন হতে পারবে না, যতক্ষণ পর্যন্ত সে তার নিজের জান থেকে আমাকে বেশি মুহব্বত করতে না পারবে। আমার সম্মানিত আওলাদ তথা বংশধরগণকে তার বংশধর থেকে বেশি মুহব্বত না করবে। আর আমার সম্মানিত আত্মীয়-স্বজন উনাদেরকে তার আত্মীয়-স্বজন থেকে বেশি মুহব্বত না করবে। আমার সম্মানিত জাত মুবারকে তার জাত থেকে বেশি মুহব্বত না করবে।” (আশশরফুল মুয়াব্বিদ- ৮৫, মু’জামুল আওসাত লিত তাবারান)
হযরত আবু যর গিফারী রদ্বিয়াল্লাহু তায়ালা আনহু তিনি বর্ণনা করেন, নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি ইরশাদ মুবারক করেন,
اجعلوا اهل بيتى منكم مكان الرأس من الجسد ومكان العينين من الرأس ولايهتدي الرأس الا بالعينين.
অর্থ: “তোমরা আমার আহলে বাইত শরীফ আলাইহিমুস সালাম উনাদেরকে সেরূপ গুরুত্বপূর্ণ ও সম্মানিত মনে করবে যেমন তোমাদের শরীরের মধ্যে মাথাকে গুরুত্বপূর্ণ মনে করো। আর মাথার মধ্যে দুটি চোখকে যেমন গুরুত্বপূর্ণ ও জরুরী মনে করো তেমনি আমার আহলে বাইত শরীফ আলাইহিমুস সালাম উনাদেরকে গুরুত্বপূর্ণ ও জরুরী মনে করবে। কেননা দুটি চোখ ব্যতীত মাথা সঠিকভাবে পরিচালিত হতে পারে না।” (মুসতাদরাকে হাকিম, আশশরফুল মুয়াব্বিদ-২৮)
অর্থাৎ মাথা ব্যতীত যেমন চেনা যায় না, তেমনি আহলে বাইত ও আওলাদে রসূল আলাইহিমুস সালাম উনাদের মুহব্বত, তায়াল্লুক, নিসবত মুবারক ব্যতীত মু’মিন-মুসলমানরূপে সনাক্ত করা যায় না। একইভাবে অন্ধ ব্যক্তির যেমন বিপদ ও হালাকী বা ক্ষতিগ্রস্ততা অবশ্যম্ভাবী তেমনি হযরত আহলে বাইত ও আওলাদে রসূল আলাইহিমুস সালাম উনাদের মুহব্বত, তায়াল্লুক, নিসবতহীন ব্যক্তির হালাকী বা ক্ষতিগ্রস্ততা অবশ্যম্ভাবী। ইনশাআল্লাহ চলবে।

Views All Time
1
Views Today
1
শেয়ার করুন
TwitterFacebookGoogle+

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করতে আপনাকে অবশ্যই লগইন করতে হবে