হিন্দু আইন ও যৌতুক প্রথা


বাংলাদেশে হিন্দু দের জন্য। প্রচলিত আছে হিন্দু আইন। প্রচলিত এই আইনেই হিন্দুদের জায়গা জমি বন্টন। বিবাহ সর্ম্পকিত সকল কিছুই বিচার বিশ্লেশন করা হয় উত্তরাধীকারী স্বত্ত ও হিন্দু দের প্রচলিত আইনেই করা হয়। আমার প্রশ্ন হচ্ছে বিবাহ একটি সামাজিক আবার ধর্মীয় বিধান রয়েছে। কিন্তু উত্তরাধীকারীদের ব্যপারে এই ধর্মীয় ব্যাপার আসার তো কথা ছিল না। আমি যে টা বিশ্বাস করি আমি একজন হিন্দু কিন্তু আমার জাতি স্বত্তা আছে আমি বাঙ্গালী আমি বাংলাদেশে বাস করি। বাংলাদেশের সকল সম্পদ একজন মুসলমান যেমন ভাবে বা যে আইনে ভোগ করতে পারবে আমিও সেই আইনে ভোগ করতে পারব এটা আমার গনতান্ত্রীক অধিকার। কিন্তু এই দেশেই হিন্দুদের জন্য উত্তরাধীকারীস্বত্তের ব্যাপারে আলাদা আইন থাকায়, বঞ্চিত হচ্ছে হাজারো হিন্দু নারী। আমি জানি না আজ পুরুষ হয়ে আমার এক কথাটা কেন বলতে হচ্ছে। এটা হয়তো একজন নারীর কথা থেকে আসার কথা ছিল। হিন্দু নারীরা বিবাহের পর অথবা বিবাহ না হলেও কোন পৃত্রি সম্পতি পায় না। আমি এমন অনেক হিন্দু নারীকে দেখেছি তার পিতার অটাল সম্পদ। পিতা মারা গেছে ভায়েরা যেন তেন ভাবে বিয়ে দিয়েছে বোনের। দেখা গেল ঐ বোনকে একটু সাহায্য ও করে না ভাই। বিয়ের পর স্বামীর যা কিছু আছে তাই তো তার। না তার বলা যাবে না স্বামীর অবর্তমানে তার ছেলে সন্তানের। অথবা মনে করলাম স্বামীর সম্পত্তি তারই। নামে না থাকুক ভোগ তো করতে পারছে। পিতার সম্পত্তিতে তার ভোগ করাও কোন অধিকার নেই। এখন প্রশ্ন হল যৌতুকের ব্যাপারে একটি আইন আছে এটা আবার হিন্দু বলেন মুসলমান বলেন সবার ক্ষেত্রে প্রযোজ্য যৌতুক নেওয়া ও দেওয়া দুই ই অপরাধ। আচ্ছা বলেন তো যৌতুক নেওয়া ও দেওয়া হিন্দু মুসলমান সবার জন্যই যদি অপরাধ হয়ে থাকে। তাহলে হিন্দু নারীটা কি পেল জন্ম দাতা পিতা থেকে অথবা তার সর্ম্পত্তি থেকে। যৌতুকের বিরুদ্ধে আজকাল অনেকই অনেক কথা বলে। আমি মনে করি যতদিন না হিন্দু নারীরা উত্তরাধীকারী স্বত্ত না পায় ততদিন অবশ্যই অন্তত হিন্দুদের ক্ষেত্রে যৌতুক নেওয়া অযুত্তিক হবে না। আমি বলব আপনার জন্য না হোক আপনার স্ত্রীর জন্য অবশ্যই যৌতুক নিতে হবে। প্রয়োজনে মেয়ের পিতার সর্ম্পত্তি হিসেব নিকেশ করে, আপনার স্ত্রীর নামে যৌতুক দাবী করেন। আমি মনে করি এটা অপনার স্ত্রীর অধিকার কোন ভাবেই তাকে এই অধিকার থেকে বঞ্চিত করা যাবে না। রাগে দুঃখে কথা গুলি বলতে হচ্ছে। পাঠক হয়তো মনে করতে পারেন অথাবা মনে জিঞ্জাসা থাকতে পারে ভাই আপনি কি বিয়ে করেছেন ? হ্যাঁ ভাই বিয়ে করেছি এক কন্য সন্তানের জনক আমি। প্রেম করে বিয়ে করেছি যৌতুক দাবী করার সময় নাই। মেয়ে দিলেই ধন্য হই এই অবস্থা আর কি। যাক আমার কথা দুঃখ রাগ এই কারনে। কিছুদিন আগে আমি এক অসহায় বোন কে আমি ভায়ের কাছে কাঁদতে দেখেছি। ভিক্ষে চাইতে দেখেছি। আবার এই পরিবারেই খরচের জন্য এক অসহায় অবলার বিয়ে না দেওয়া টা দেখেছি। এমন অবস্থা মুখে আনতে আমার কষ্ট হয়। ভাই তো বিয়ের খরচ, পুরো মাসের ঝিয়ের খরচ, দুটুই বাঁচিয়েছে। সময় হলে এই গল্প আবার করব। আমার একটা মেয়ে আছে মেয়েটাকে আমি প্রচন্ড ভালবাসি। বাসবোনাই বা কেন সন্তান তো আমার ই ছেলে হোক আর মেয়েই হোক। আমার ছেলে না হলে ও আমার কোন আক্ষেপ নাই। মেয়েটা সুস্থ থাকলেই আমি আমি সৃষ্টি কর্তার নিকট অনেক কৃতজ্ঞ।

শেয়ার করুন
TwitterFacebookGoogle+

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করতে আপনাকে অবশ্যই লগইন করতে হবে