“হিন্দু পুলিশ ডি চরম খারাপ”


গুরুত্বপূর্ণ  কাজে গিয়েছিলাম শরীয়তপুর নড়িয়ায়৷কাজ শেষে যখন নড়িয়া থেকে ভোজেশ্বর ফিরে আসছিলাম তখন একটি অটোতে উঠলাম৷ বসেছি সামনের সিটে ড্রাইভারের পাশেই৷ আমি স্বভাবতই গাড়িতে উঠলে চুপ করে থাকতে পারি না৷যাকে পাশে পাই তার সাথেই গল্প জোড়ে দেই৷আমার পাশে বসা ড্রাইভারের সাথেই কথা বলা শুরু করলাম ৷কথা বলতে বলতে বুঝতে পারলাম ড্রাইভার ছেলেটি তিনি অত্যন্ত ধার্মিক একজন ব্যক্তি ৷অত্যন্ত মার্জিত ভাবে কথা গুছিয়ে বলছেন৷ বিনয়ের সাথে উনার বর্তমান অবস্থাগুলো বর্ণনা করছেন৷ উনার পূর্বের অবস্থা সম্বন্ধে ও আমার কাছে বর্ণনা দিচ্ছিলেন৷ আমাকে বললেন মিয়া ভাই “আগে আমি মানুষ ঠগিয়ে টেয়া কামাইতাম কিন্তু হেই টেয়া কামাইয়া শান্তি পাইতাম না ,এহন গাড়ি চালাইয়া যা কামাই তাতেই অনেক শান্তিতে চলতে পারি ” ৷অত্যন্ত সহজ সরল ভাবে আমার সাথে কথা বলে যাচ্ছিলেন৷ড্রাইভার ছেলেটি আমাকে বললেন উনার বাসার সবাই পর্দা করেন৷বাড়ির আঙিনা দিয়ে বেড়া দিয়ে দিয়েছেন যেন কোন পরপুরুষের দৃষ্টি বাড়ীর ভিতরের মহিলা উনাদের দিকে না পড়ে৷ ড্রাইভার ভাই তিনি উনার গাড়ির গ্লাসের দিকে আমাকে দেখানোর ইশারা করে বললেন “ভাই! আমি আমার গাড়ীর পিছনে কালা গ্লাস(যে গ্লাসে বাহির দিক থেকে দেখলে ভিতরে কালো দেখায়) লাগাইছি যেন কোন ছেলে আমার গাড়ীতে মহিলা যাত্রীদেরকে উত্যক্ত করতে না পারে” গাড়ির ভিতরে থাকা মেয়েদেরকে কিভাবে ছেলেরা বাহির থেকে সমস্যা করে সেই বিষয়ে বলল৷ আমি তার এইরকম অসাধারণ উদ্দোগ্যে অত্যন্ত খুশি হয়ে তার অনেক প্রশংসা করলাম৷ কিছুক্ষণ পর সেই ড্রাইভার ছেলেটি আমাকে বলল “মিয়া ভাই তয় হিন্দু পুলিশডি কয় যে এই কালা গ্লাস খুলিয়া ফেলতে, এই হিন্দু পুলিশডি চরম খারাপ” ড্রাইভার ছেলেটি বলে এই হিন্দু পুলিশগুলো তাকে বিভিন্নভাবে চাপ সৃষ্টি করে যেন কালো গ্লাস খুলে ফেলে ৷ তারা তাকে বুঝায় যে মেয়েদরকে নাকি ছেলেরা উত্যক্ত করে না ৷আমি তখন পুরাই একটা ধাক্কা খেলাম যে এই হিন্দু গুলো মুসলমান উনাদের পর্দার করার ক্ষেত্রে বাধা দেয়৷তখন আমার মনে হল এতো শেয়ালের কাছে মুরগি বর্গা দেয়ার মত৷ ইসলাম বিদ্বেষী হিন্দুরা এভাবেই প্রশাসনের বিভিন্ন জায়গায় চড়ে বসে মুসলমানদেরকে কষ্ট দিয়ে যাচ্ছে ৷ হিন্দু কর্তৃক মুসলমান নির্যাতনের কিছুসংখ্যক তথ্যই যা আমাদের কাছে প্রকাশ হয় আর বাকিগুলো চাপা পড়ে যায়৷৷তাই একজন ড্রাইভারের এই উক্তি থেকেই বুঝা যায় হিন্দু পুলিশদের প্রতি সাধারণ মুসলমানদের কত ঘৃণা তৈরী হয়েছে যার মূল কারণ হচ্ছে দ্বীন ইসলাম পালনে বাধা প্রধান করা ৷কিন্তু অত্যন্ত দু:খের বিষয় হচ্ছে ৯৮ ভাগ মুসলিম সংখ্যাগরিষ্ঠ বাংলাদেশে অবাধে পুলিশে নিয়োগ দেয়া হচ্ছে হিন্দুদেরকে যারা প্রতিনিয়ত মুসলমানদেরকে বিভিন্নভাবে হেনেস্থা করে যাচ্ছে ৷ তাই অবিলম্বে এই ইসলামবিদ্বেষী হিন্দুদেরকে পুলিশবাহিনী থেকে ছাটাই করা হোক এবং হিন্দু পুলিশ যেন নিয়োগ না দেয়া হয় সেই বিষয়ে কার্যকরী ভূমিকা নেয়া হোক৷

শেয়ার করুন
TwitterFacebookGoogle+

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করতে আপনাকে অবশ্যই লগইন করতে হবে