হুযুর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার কাছে কোন কিছুই গোপন নেই


তাবুকের যুদ্ধে হুযুর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার উষ্ট্রী হারিয়ে গিয়েছিল। এক মুনাফিক এক সাহাবীকে বললো, তোমাদের মুহাম্মদ তো নবী দাবী করে এবং তোমাদেরকে আসমানের কথা শুনায়। অথচ উনার উষ্ট্রীর হদিস উনার কাছে নেই। হুযুর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম যখন মুনাফিকের এ কথা শুনলেন, তখন বললেন নিশ্চয়ই আমি নবী এবং আল্লাহপাক আমাকে অদৃশ্য জ্ঞান দান করেছেন। শুনো, আমার উষ্ট্রী অমুক জায়গায় দাঁড়ানো আছে। এক বৃক্ষের সাথে তার নাকের রশি আটকে গেছে। যাও ওখান থেকে উষ্ট্রীটি নিয়ে এসো। নির্দেশমত সাহাবায়ে কিরাম গিয়ে দেখলেন যে, ঠিকই উষ্ট্রীটি সেই জায়গায় দাঁড়ানো আছে এবং তার নাকের রশিটি এক বৃক্ষের সাথে আটকে গিয়েছে।

(সুবহানাল্লাহ্)

স্পষ্ট যে, হুযুর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনি জাহির বাতীন সব কিছুই জানেন, খবর রাখেন। আল্লাহপাক উনাকে এতটুকু ইলমে গইব দান করেছেন যে, কোন বিষয়-ই উনার নিকট লুকায়িত নেই। কিন্তু মুনাফিকরা উনার এ জ্ঞানকে অস্বীকার করে।

(নাউযুবিল্লাহ্)

হিজরতের আগে বায়তুল্লাহ শরীফের চাবি মক্কার কোরাইশ গোত্রের অধীনে ছিল। উসমান বিন তালহার কাছে এ চাবি থাকতো।সোমবার ও বৃহস্পতিবার বায়তুল্লাহ শরীফ খোলা রাখতো।
একদিন হুযুর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম এসে উসমান বিন তালহাকে দরজা খোলার জন্য বললেন, কিন্তু সে দরজা খুলতে অস্বীকার করলো।
হুযুর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি বললেন, হে উসমান! আজতো তুমি দরজা খুলতে অস্বীকার করছ, এমন এক দিন আসবে, তখন বায়তুল্লাহ শরীফের চাবি আমার কবজায় হবে, তখন আমি যাকে ইচ্ছে এ চাবি প্রদান করবো।
উসমান বললো, সেই দিন কি কোরাইশ বংশের অস্তিত্ব থাকবে না? দেখা যাবে। অতঃপর হিজরতের পর যখন মক্কা শরীফ বিজয় হলো এবং হুযুর ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম সাহাবায়ে কিরামগণ উনাদের বিশাল বাহিনী নিয়ে বিজয়ী বেশে মক্কা শরীফে প্রবেশ করলেন, তখন সর্বপ্রথম বায়তুল্লাহ শরীফে তাশরীফ নিয়ে গেলেন এবং চাবি রক্ষক উসমানকে ডেকে বললেন, চাবি আমাকে দাও। অগত্যা উসমানকে সেই চাবি দিয়ে দিতে হলো।
হুযুর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি সেই চাবি হাতে নিয়ে উসমানকে লক্ষ্য করে বললেন, উসমান, লও, আমিও তোমাকে চাবিরক্ষক নিয়োজিত করছি, তোমার থেকে কোন জালিমই এই চাবি নিবে।

উসমান যখন পুনরায় চাবি গ্রহণ করলো তখন হুযুর ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বললেন, হে উসমান! তোমার কি সেদিনের কথা স্মরণ আছে, যখন আমি তোমার থেকে চাবি চেয়েছিলাম এবং তুমি দরজা খুলতে অস্বীকার করেছিলে এবং আমি বলেছিলাম এমন একদিন আসবে, তখন এ চাবি আমার কবজায় হবে এবং আমি যাকে ইচ্ছে তাকে দিতে পারব। উসমান বলরেলা, হ্যাঁ, হুযুর, আমার স্মরণ আছে। আমি সাক্ষ্য দিচ্ছি আপনি আল্লাহর সত্যিকার রসূল।

হুযুর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনি আগে পরের সব বিষয় সম্পর্কে জ্ঞাত এবং কিয়ামত পর্যন্ত যা কিছু হবে, সব উনার নিকট সুস্পষ্ট। আল্লাহপাক উনাকে সৃষ্টির শুরু থেকে শেষ সব জ্ঞান হাদিয়া করেছেন। যা কিছু হয়েছে ও হবে, সব বিষয়ে তিনি জ্ঞাত। অতএব যে ব্যক্তি বলে আগামীকাল কি হবে, তা উনি জানেন না, তার থেকে বড় অথর্ব আর কে ?

শেয়ার করুন
TwitterFacebookGoogle+

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করতে আপনাকে অবশ্যই লগইন করতে হবে