হে কায়িনাতের মা! খোশ আমদেদ স্বাগতম!


16143695_1635270480110439_3728366538223178793_o

একবার একটা বিষধর সাপ হযরত ইমাম আবু হানিফা রহমতুল্লাহি উনার দর্সগৃহে প্রবেশ করে উনাকে দংশন করল। তিনি তখন দরস দিচ্ছিলেন। তিনি এতো অধিক হুজুরী ও আদবের সাথে কুরআন শরীফ-হাদীস শরীফের তালীম দিতেন যে, একটু নড়াচড়া তো করলেনই না, এমনকি উফ শব্দ পর্যন্ত করলেন না। এদিকে সাপটা ক্ষিপ্ত হয়ে উনাকে পরপর কয়েকবার দংশন করে অবশেষে নিজেই মারা গেল। সুবহানাল্লাহ!

এই হযরত ইমাম আবু হানিফা রহমতুল্লাহি আলাইহি উনাকেই একবার দেখা গেল, দরসের সময় বারবার উঠে দাঁড়াচ্ছেন আবার বসছেন। ছাত্ররা এতে যারপরনাই আশ্চর্য হলেন। দরস শেষ হলে, একজন আদবের সাথে এর কারণ জানতে চাইলেন। তখন তিনি বললেন যে, দর্সগৃহের সামনেই কয়েকজন বাচ্চা ছুটাছুটি করছিল। তাদের মধ্যে একজন বারবার দর্সগৃহে প্রবেশ করে হযরত ইমাম আবু হানিফা রহমতুল্লাহি আলাইহি উনার কাছাকাছি চলে আসছিলেন। তিনি ছিলেন একজন আওলাদে রসূল ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম। উনার সম্মানার্থেই হযরত ইমাম আবু হানিফা রহমতুল্লাহি আলাইহি দরস দিতে দিতেও বারবার দাঁড়িয়ে যাচ্ছিলেন। সুবহানাল্লাহ!!!

হুযুর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার বংশধরগণের প্রতি অনুসরণীয় ইমাম মুজতাহিদগণ উনারা যেরকম আদব ইহতিরাম প্রদর্শন করেছেন তা অতুলনীয়। হযরত আহলু বাইত শরীফ আলাইহিমুস সালাম উনারা যে সমস্ত মুহব্বত-সন্তুষ্টি-নিয়ামতের মূল তা উনারা উপলব্ধি করতে পেরেছিলেন।

আজ একজন খাছ আওলাদে রসূল, হযরত আহলু বাইত শরীফ আলাইহিমুস সালাম উনাদের অন্যতমা সদস্য উনার দুনিয়াতে তাশরীফ মুবারক আনার দিবস। যতটুকু দ্বীনি ইলিম, সহীহ সমঝ আমি অর্জন করতে পেরেছি সব উনার থেকে। গুনাহ থেকে যতটুকু বেঁচে থাকতে পারি, নেক কাজে যতটুকু মশগুল থাকতে পারি, সব উনার উছীলায়। মহান রব তায়ালা ও উনার হাবীব ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনাদের যতটুকু চিনেছি বুঝেছি সব উনার মাধ্যমে। আমার মত আরো হাজারো মেয়ে যারা দ্বীনি ইলিম কালাম হাসিল করার সুযোগ পায়নি, তারাও উনার মুবারক সোহবতে এসে এখন নিজেরাই আল্লাহওয়ালী হচ্ছেন, ইলমে ফিক্বাহ-ইলমে তাসাউফ শিক্ষা করছেন, মানুষকে দ্বীনি তালিম দিচ্ছেন। সুবহানাল্লাহ! মহান আল্লাহ পাক সমস্ত মহিলাদেরকেই উনার মুবারক সোহবতে আসার তৌফিক দান করুন!

Views All Time
2
Views Today
4
শেয়ার করুন
TwitterFacebookGoogle+

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করতে আপনাকে অবশ্যই লগইন করতে হবে