সাময়িক অসুবিধার জন্য আমরা আন্তরিকভাবে দু:খিত। ব্লগের উন্নয়নের কাজ চলছে। অতিশীঘ্রই আমরা নতুনভাবে ব্লগকে উপস্থাপন করবো। ইনশাআল্লাহ।

হে নারী! ছুটে আসুন সাইয়্যিদাতুনা হযরত উম্মুল উমাম আলাইহাস সালাম উনার পবিত্র ক্বদম মুবারকে


মহান আল্লাহ পাক উনার পক্ষ থেকে সমস্ত কায়িনাতের জন্য অন্যতম মহান নিয়ামত তথা নিয়ামতে উজমা হলেন, নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার পূত-পবিত্র হযরত আহলে বাইত শরীফ আলাইহিমুস সালামগণ উনারা। সুবহানাল্লাহ! এবং সেই হযরত আহলে বাইত শরীফ আলাইহিমুস সালাম উনাদের অন্যতমা সদস্য হলেন সাইয়্যিদাতুন নিসা, ফক্বীহাতুন নিসা, আওলাদে রসূল ওলীয়ে মাদারযাদ, নূরে জাহান, সাইয়্যিদাতুনা উম্মুল উমাম আম্মাজী ক্বিবলা আলাইহাস সালাম। সুবহানাল্লাহ! যিনি হুবহু নক্বশায়ে কুবরা, নক্বশায়ে ছিদ্দীক্বা আলাইহাস সালাম। মূলত উম্মাহাতুল মু’মিনীন আলাইহিন্নাস সালাম উনাদের যেমন কোনো মেছাল নেই, ঠিক তদ্রƒপ উনাদের ক্বায়িম-মাক্বাম হওয়ার কারণে উম্মুল উমাম আম্মাজী ক্বিবলা আলাইহাস সালাম উনারও কোনো মেছাল নেই। সুবহানাল্লাহ!
উনি এই কঠিন ফিতনা-ফাসাদের যামানায় তাশরীফ মুবারক গ্রহণ করে তামাম নারী জাতিকে তা’লীম তালক্বীন দিয়ে তাদের ঈমান আমলকে হিফাযত করছেন, আক্বীদাকে বিশুদ্ধ করে দিচ্ছেন এবং একজন নারীর সীরত ছূরত, আমল আখলাক্ব কেমন হওয়া উচিত, একজন নারীর পোশাক-আশাক, বেশ, ভূষণ, চলা-ফেরা ও শিক্ষা-দীক্ষা হতে শুরু করে সংসার জীবন কিভাবে করবে সম্মানিত শরীয়ত মুতাবিক হাতে কলমে তাদেরকে শিখিয়ে দিচ্ছেন। সুবহানাল্লাহ!
নারী জাতিরা আজকাল যে সমঅধিকার নামে রাস্তায় নেমে তাদের ইজ্জত আবরুকে ক্ষুণœ করছে, উনিই একমাত্র বুঝিয়ে দিচ্ছেন, মহিলা-পুরুষ কখনো এক হতে পারে না। পুরুষের সাথে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে চলা বেপর্দাভাবে চাকরি-বাকরির নামে সমঅধিকার বা স্বাধীনতা নয়, বরং নারীর অধিকার বা স্বাধীনতা হলো নারীকে সম্মানিত শরীয়ত যেভাবে সম্মান ইজ্জত দিয়েছেন যে প্রাপ্য অধিকার দিয়েছেন সেভাবে ইজ্জত-সম্মান বজায় রেখে পর্দা পুশিদার সহিত সুন্দরভাবে জীবন-যাপন করা। সুবহানাল্লাহ!
প্রকৃতপক্ষে উম্মুল উমাম উনাকে যদি কায়িনাতের মহিলা জাতিরা না পেত, তাহলে আইয়্যামে জাহিলিয়াতের যে প্রেক্ষাপট মহিলাদের ক্ষেত্রে ছিল সেই প্রেক্ষাপট তথা অন্ধকারের অতলগহীনে হাবুডুবু খেয়ে তাদেরকে ধুলিস্যাৎ হয়ে যেতে হতো। নাউযুবিল্লাহ!
মূলত, এখনো যারা আম্মাজী উনার ছোহবত মুবারক আসতে পারেনি দেখা যায় তাদের জীবনে সুখ শান্তি নেই, সমাজে তারা চম-পরম লাঞ্ছিত, অপমানিত।
কাজেই, হায়াত থাকতে এখনই উচিত যারা সাইয়্যিদাতুনা হযরত উম্মুল উমাম আলাইহাস সালাম উনার কাছে আসেনি তথা এই মহান নিয়ামত হতে বঞ্চিত রয়েছে তাদের অনতিবিলম্বে উনার মুবারক ক্বদমে ছুটে আসা। কেননা তিনি বর্তমানে সমগ্র সৃষ্টিকুলে নারী জাতির হিদায়েতের একমাত্র শ্রেষ্ঠতম উসীলা। হক্ব মত ও পথের দিশারী। সমস্ত নিয়ামত উনার একমাত্র বণ্টনকারী ও নারী জাতির সমস্ত সুখ, শান্তি, ইজ্জত-সম্মান, ইহকালীন ও পরকালীন কামিয়াবী উনার পবিত্র ছোহবত উনার মাধ্যেই রয়ে গেছে। যেটা অন্য কোথা থেকে কস্মিনকালেও হাছিল করা সম্ভব নয়।

Views All Time
1
Views Today
2
শেয়ার করুন
TwitterFacebookGoogle+

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করতে আপনাকে অবশ্যই লগইন করতে হবে