১লা এপ্রিল এর ইতিহাস


আজকাল মানুষ ইতিহাস পড়ে না। তাই সত্য ঘটনাগুলো বই এর পাতায় চাঁপা পড়ে থাকে। ইতিহাস না জানার কারণে অনেকেই ১লা এপ্রিল পালন করে থাকে। অথচ এই দিনটি মুসলমানদের জন্য একটি করুন ও দুঃখের দিন।

প্রায় হাজার বছর পূর্বে মুসলমানগন যখন স্পেন শাসন করছিল, তখন স্পেন থেকে মুসলিমদের উৎখাত করার জন্য খ্রিস্টানরা  অনেকবারই চেষ্টা চালিয়েছে, স্পেনে মুসলিম শাসনের অবসানের পর প্রতারক রাজা ফার্ডিনান্ড মসজিদগুলোকে নিরাপদ ঘোষণা করে। সে জানতো মুসলমানরা খুব সরল। তাই সে ধোকা দিয়ার জন্য ঘোষণা দিল যারা মসজিদে থাকবে, তাদেরকে নিরাপত্তা প্রদান করা হবে। তখন অসংখ্য স্পেনীয় মুসলমান সরল বিশ্বাসে মসজিদগুলোতে আশ্রয় গ্রহণ করেন। ঠিক সেই সময় যালিম খ্রিস্টানরা মসজিদগুলোকে বাইরে থেকে তালাবদ্ধ করে পেট্রোল ঢেলে আগুন দিয়ে মুসলমান উনাদেরকে পুড়িয়ে ভস্ম করে দেয়। আর বাইরে থেকে উল্লাসভরে কৌতুক করে সমস্বরে Fool! Fool!! (বোকা! বোকা!!) বলে অট্টহাসি আর চিৎকারে মেতে উঠে। (নাঊযুবিল্লাহ!)

এটিই হচ্ছে পহেলা এপ্রিল বা এপ্রিল ফুলের হৃদয়বিদারক ইতিহাস। এ দিনটি যালিম খ্রিস্টানদের জন্য পালনীয় হলেও মুসলমান উনাদের জন্য তা ভাষাহীন বেদনাদায়ক। কাজেই প্রত্যেক মুসলমান পুরুষ ও মহিলার দায়িত্ব-কর্তব্য হলো, এ দিনের ইতিহাস থেকে কাফিরদের চিনা যে এরা মুসলমানগন উনাদের কত বড় শত্রু।তারা সবসময়, সর্বাবস্থায় মুসলমান উনাদের জান-মাল এবং ঈমান উনার ক্ষতিসাধনের চেষ্টা করে। সুতরাং মুসলমান উনাদের জন্য করণীয় হচ্ছে, সমস্ত কাফিরদের থেকে দূরে থাকা এবং তাদেরকে অনুসরণ করা থেকে বিরত থাকা।

Views All Time
1
Views Today
1
শেয়ার করুন
TwitterFacebookGoogle+

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করতে আপনাকে অবশ্যই লগইন করতে হবে