৯২:একটি গাণিতিক রহস্য


আরবী ভাষায় সংখ্যার ব্যবহার শুরুর পূর্বে গাণিতিক হিসাবের ক্ষেত্রে আরবী বর্ণই সংখ্যা হিসেবে ব্যবহার হতো, যাকে আবজাদ বলে। নিচে আবজাদের ব্যবহার উল্লেখ করা হলো-

মহান আল্লাহ পাক উনার হাবীব, সাইয়্যিদুল মুরসালীন, ইমামুল মুরসালীন, রহমতুল্লিল আলামীন, নূরে মুজাসসাম হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার নাম মুবারক محمد (ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম), আবজাদ অনুযায়ী মান দাঁড়ায় ৪০ + ৮ + ৪০ + ৪ = ৯২।

কালামুল্লাহ শরীফ-এর ৪৭তম সুরার নাম সাইয়্যিদুল মুরসালীন, ইমামুল মুরসালীন, রহমতুল্লিল আলামীন, নূরে মুজাসসাম হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার নাম মুবারক অনুসারে নামকরণ করা হয়েছে আর এই সুরাতে রয়েছে ৩৮টি আয়াত শরীফ।

এখন ৪৭ সংখ্যার বড় অঙ্ক (৭) থেকে ছোট অঙ্ক (৪) বিয়োগ করলে অর্থাৎ = হয়। এবার অঙ্কগুলোকে পাশাপাশি বসালে মান দাঁড়ায়

আবার একইভাবে ৩৮ সংখ্যার বড় অঙ্ক (৮) থেকে ছোট অঙ্ক (৩) বিয়োগ করলে অর্থাৎ = হয়। এবার অঙ্কগুলোকে পাশাপাশি বসালে মান দাঁড়ায়

এবার ৮৩৫ থেকে ৭৪৩কে বিয়োগ করলে (অর্থাৎ ৮৩৫ – ৭৪৩ = ৯২) বিয়োগফল দাঁড়ায় ৯২ যা সাইয়্যিদুল মুরসালীন, ইমামুল মুরসালীন, রহমতুল্লিল আলামীন, নূরে মুজাসসাম হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার নাম মুবারক-এর আবজাদীয় মান।

Views All Time
1
Views Today
1
শেয়ার করুন
TwitterFacebookGoogle+