৯৭ ভাগ মুসলমানদের এই দেশে যবন, ম্লেচ্ছ, অস্পৃশ্য, গো-মুত্রপায়ী হিন্দু নরপিশাচ পিশাচ বন্দ্যোপাধ্যায় ইসলাম বিদ্বেষী কবিতা লিখার দুঃসাহস পায় কিভাবে?


পীযূষ ওরফে পিশাচ বন্দ্যোপাধ্যায় এক কুলাংগার যবন, ম্লেচ্ছ, অস্পৃশ্য, গো-মুত্রপায়ী হিন্দু নরপিশাচের নাম। এই নরপিশাচ বাংলাদেশের আলেম উলামাদের তুচ্ছাতাচ্ছিল্য করে কবিতা লিখেছে। সে আলেম উলামাদেরকে পশ্চাৎপদ মোল্লা মৌলভী, মদান্ধ , ধড়িবাজ ,ধর্মপাল ইত্যাদি আপত্তিকর শব্দ দ্বারা সম্বোধন করার দুঃসাহস দেখিয়েছে। এই নরপিশাচ সবচেয়ে ভয়াবহ ধৃষ্টতা দেখিয়েছে সরাসরি এই কথাটি উচ্চারণ করে, “হে পশ্চাৎপদ মোল্লা মৌলভী, বল বন্দে মাতরম!” এই “বন্দে মাতরম” হচ্ছে যবন, ম্লেচ্ছ, অস্পৃশ্য হিন্দুদের একান্তই উগ্র সাম্প্রদায়িক, সন্ত্রাসীমুলক স্লোগান। এক কুলাংগার যবন, ম্লেচ্ছ, অস্পৃশ্য, গো-মুত্রপায়ী পিশাচ বন্দ্যোপাধ্যায় এত বড় দুঃসাহজ কোথায় পেল? বাংলাদেশ ৯৭ ভাগ মুসলমান অধুষ্যিত দেশ হওয়ার সত্ত্বেও ২ ভাগেরও কম যবন হিন্দুগুলো কিভাবে ইসলাম ধর্মের বিরুদ্ধে কথা বলে? দেশের জনগণ সহ সরকার সবার রক্ত-গোশ্ত কি ঠান্ডা হয়ে গেছে? ঈমান কি নেই কারো মধ্যে? এই কুলাংগার যবন, ম্লেচ্ছ, অস্পৃশ্য, গো-মুত্রপায়ী পীযূষ ওরফে পিশাচ বন্দ্যোপাধ্যায় নামক নরপিশাচকে অবিলম্বে গ্রেফতার করে উপযুক্ত শাস্তি দিতে হবে এবং তার এই কুকর্মের জন্য প্রকাশে ক্ষমা ভিক্ষা চাইতে হবে।

শেয়ার করুন
TwitterFacebookGoogle+