ছবি ও বেপর্দার কুফল-তবুও কবে বুঝবি হে ঘুমন্ত মুসলমান..


গত সোমবার জাতীয় একটি দৈনিক পত্রিকায় খবর হেডিং হয়েছে, “নড়াইলে পরকীয়ার বলি পাঁচ মাসের শিশু”
সংবাদ ভাষ্য, “নড়াইলে পরকীয়ার বলি হলো পাঁচ মাস বয়সের শিশু শাহরিয়ার। ছেলে শাহরিয়ারকে খালের পানিতে ফেলে প্রেমিকের সঙ্গে পালিয়ে গেছে মা সাথী বেগম। সোমবার সদর উপজেলার বাসগ্রাম ইউনিয়নের চর রামসিধি গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে পুলিশ লাশ উদ্ধার করে সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছে।
জানা গেছে, চার বছর আগে সদরের ভদ্রবিলা ইউনিয়নের ভবানীপুর গ্রামের ছত্তার মোল্যার ছেলে হাসিবুর রহমানের সঙ্গে পার্শ্ববর্তী বাসগ্রাম ইউনিয়নের চর রামসিধি গ্রামের আকবর মোল্যার মেয়ে সাথী বেগমের বিয়ে হয়। পাঁচ মাস আগে তাদের একমাত্র পুত্র সন্তান শাহরিয়ারের জন্ম হয়। হাসিবুর রহমান জানান, আট দিন আগে তার স্ত্রী ছেলেকে নিয়ে বাবার বাড়ি বেড়াতে যায়। গত শনিবার তাকে আনতে গেলে সে আসতে রাজি হয়নি। তিনি বলেন, স্ত্রী সাথীর সঙ্গে তার খালাতো ভাই রামসিধি গ্রামের সজীবের প্রেমের সম্পর্ক ছিল বলে শুনেছি। স্ত্রী সাথী ছেলে শাহরিয়ারকে খালের পানিতে ফেলে সজীবের সঙ্গে পালিয়েছে বলে হাসিবুর দাবি করেন। সদর থানার উপ-পরিদর্শক কিশোর মজুমদার জানান, এ ব্যাপারে মামলার প্রস্তুতি চলছে।”
গত সোমবার জাতীয় একটি দৈনিক পত্রিকায় খবর হেডিং হয়েছে, “৫ম শ্রেণীর ছাত্রী ধর্ষণের শিকার”
সংবাদ ভাষ্য, “ মানিকগঞ্জের সাটুরিয়া উপজেলায় ৫ম শ্রেণীর এক ছাত্রীকে ধর্ষণ করেছে স্থানীয় এক বখাটে। এ ঘটনা ছাত্রীর পিতা বাদী হয়ে সাটুরিয়া থানায় মামলা করেছেন। মামলার পরই ধর্ষক তারেককে গ্রেপ্তারের চেষ্টা চালাচ্ছে পুলিশ।
পুলিশ জানায়, উপজেলার বরুন্ডি গ্রামের মানিক মিয়ার বখাটে পুত্র তারেক (১৮) একই গ্রামের ৫ম শ্রেণীর ওই ছাত্রীকে প্রেমের ফাঁদে ফেলে ধর্ষণ করে। বিষয়টি প্রকাশ পেলে তার পিতা বাদী হয়ে সাটুরিয়া থানায় ধর্ষকের বিরুদ্ধে মামলা করে। ওই ছাত্রী জানায়, তার এক বান্ধবী বখাটে তারেকের সঙ্গে তার প্রেমের সম্পর্ক তৈরি করতে সহযোগিতা করে।”

সংবাদ পর্যালোচনা:
রাষ্ট্রযন্ত্রকে আজ ভেবে দেখতে হবে তার পৃষ্ঠপোষকতায় পরিচালিত সংস্কৃতি থেকে বিনোদন সমাজে আজ যেমন পশ্বাধর্ম, বিবেকহীন মানুষ তৈরি করছে। বিশেষ করে আকাশ সংস্কৃতি এদেশের মানুষের মনষ্যত্ববোধকে তিরোহিত করছে। ভারতীয় টিভি চ্যানেল তথা বর্তমানে এদেশীয় সিনেমা বিনোদন সব কিছুই মানুষকে উন্মাদ ব্যক্তিকেন্দ্রীক মানসিকতায় উন্মাতাল করছে। যেখানে নিষ্পাপ কচি শিশুর প্রতি মমত্ববোধ, মাতৃত্ববোধ সবকিছুই উপেক্ষিত হচ্ছে। তৈরী হায়েনার মতো কাম বাসনা পূরণের মনোবৃত্তি। নাঊযুবিল্লাহ!

প্রতিবাদ:
আমরা মনে করি উদ্ভূত ঘটনার দায়-দায়িত্ব সরকার তথা রাষ্ট্রযন্ত্র কিছুতেই এড়াতে পারেনা, রাষ্ট্রযন্ত্র বল প্রয়োগকারী প্রতিষ্ঠান। যা কিছুতে রাষ্ট্রযন্ত্র বল প্রয়োগ করেনা তা কিছু রাষ্ট্রযন্ত্রের পৃষ্ঠপোষকতায় পরিচালিত হচ্ছে প্রতিভাত হয়।
সুতরাং নড়াইলে পরকীয়ার বলি পাঁচ মাসের শিশু অথবা মানিকগঞ্জের সাটুরিয়া উপজেলার ৫ম শ্রেণীর সম্ভ্রমহরণের ঘটনা সব কিছু রাষ্ট্রযন্ত্রে অশ্লীলতার পৃষ্ঠপোষকতাই দায়ী। বিশেষ করে ছবি ও বেপর্দা ভিত্তিক সংস্কৃতিই এজন্য দায়ী। অথচ এদেশের রাষ্ট্রধর্ম ইসলাম। আর ইসলামে ছবি ও বেপর্দা হারাম। আমরা তাই ছবি ও বেপর্দাভিত্তিক সব কার্যক্রমের তীব্র প্রতিবাদ করছি এবং এতদ্বপ্রেক্ষিতে রাষ্ট্রধর্ম ইসলামএর অবমাননারও চরম প্রতিবাদ জানাচ্ছি।

Views All Time
1
Views Today
1
শেয়ার করুন
TwitterFacebookGoogle+

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করতে আপনাকে অবশ্যই লগইন করতে হবে