পেসমেকার -blog


...


 


উম্মতের মধ্যে সর্বপ্রথম বেহেশতে প্রবেশকারী হচ্ছেন- খলীফাতু রসূলিল্লাহ সাইয়্যিদুনা হযরত ছিদ্দীক্বে আকবর আলাইহিস সালাম


‘আবূ দাউদ শরীফ’ ও মিশকাত শরীফ’ উনাদের মধ্যে বর্ণিত আছে, “হযরত আবূ হুরায়রা রদ্বিয়াল্লাহু তায়ালা আনহু তিনি বলেন, নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি ইরশাদ মুবারক করেন, একদা হযরত জিবরীল আলাইহিস সালাম তিনি আসলেন এবং আমার হাত



আপনার সন্তান স্কুলে গিয়ে কি পড়ছে, কি শিখছে- সেটা দেখা আপনার ঈমানী দায়িত্ব


আপনি আপনার সন্তানকে স্কুল-কলেজে পাঠিয়ে শিক্ষিত(!) বানাচ্ছেন- এই আশা নিয়ে আপনি তার জন্য কতই না কষ্ট করছেন। তার জন্য কত শত টাকা-পয়সা খরচ করছেন। তার নিয়মিত স্কুলে যাওয়া তদারকি করছেন, পড়াশুনা ঠিকমত করছে কিনা সেটাও দেখাশুনা করছেন। ভালো কথা! কিন্তু আপনি



প্রকাশ্যেই হচ্ছে ইসলামবিদ্বেষী কাজ- প্রতিবাদ না করার পরিণতি কখনোই ভালো নয়


কিতাবে একটি ঘটনা বর্ণিত আছে। একবার এ ব্যক্তি কোনো একটি মজলিসে বসা ছিলো। তার উপস্থিতিতেই কিছু লোক সেখানে উম্মুল মু’মিনীন আলাইহিন্নাস সালাম উনাদের নিয়ে কটূক্তিকর কিছু কথা বললো। লোকটি শুনেও না শুনার ভান করে থাকলো। অত:পর সে বাসায় ফিরে ঘুমিয়ে পড়ার



বৈশাখের চৈত্র মেলা বা হিন্দু মেলার ইতিহাস, মুসলিমবিদ্বেষীতার ইতিহাস


“হিন্দু পুনরুথানবাদী আন্দোলনের ধারায় একটি প্রতিষ্ঠান গুরুত্বপুর্ন ভুমিকা পালন করে তা হলো চৈত্র মেলা বা হিন্দু মেলা। এই মেলা প্রতিষ্ঠা এবং মেলা কার্য্যক্রমের সাথে জোড়াসাকোর ঠাকুর পরিবার ওতপ্রোতভাবে জড়িত ছিলো। ১৮৬৭ সালে নবগোপাল মিত্র এই মেলা প্রতিষ্ঠা করে। এই শতকের আশির



হযরত উম্মাহাতুল মু’মিনীন আলাইহিন্নাস সালাম উনারা শুধু মহান আল্লাহ পাক তিনি এবং উনার হাবীব, নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক


اُمَّهَاتٌ (উম্মাহাত) শব্দ মুবারকখানা اُمٌّ (উম্মুন) শব্দ মুবারক উনার বহুবচন। অর্থ মাতাগণ। আর الْمُؤْمِنِيْنَ (আল মু’মিনীন) শব্দ মুবারকখানা الْمُؤْمِن (আল মু’মিন) শব্দ মুবারক উনার বহুবচন। অর্থ মু’মিনগণ। আর الْمُؤْمِنِيْنَ (আল মু’মিনীন) শব্দ মুবারক উনার শুরুতে যে ال (আলিফ লাম) রয়েছে, তা



পবিত্র ছফর শরীফ মাস অশুভ নয় এবং কুলক্ষণের প্রতীক নয়


পবিত্র ছফর শরীফ মাস মহান আল্লাহ পাক উনার মনোনীত খাছ মাস। এ মাস অশুভ ও কুলক্ষণে নয়। কাফির-মুশরিকরা এ মাসকে অশুভ ও কুলক্ষণের প্রতীক মনে করে থাকে। আইয়ামে জাহিলিয়াতের যুগে ‘পবিত্র ছফর শরীফ’ মাসকে কাফির-মুশরিকরা অশুভ ও কুলক্ষণে মনে করতো। এ



অশুভ বা কুলক্ষণ বিশ্বাস করা কুফরী


ফক্বীহুল উম্মত হযরত আব্দুল্লাহ ইবনে মাসউদ রদ্বিয়াল্লাহু তায়ালা আনহু তিনি নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার থেকে বর্ণনা করেন। মহান আল্লাহ পাক উনার হাবীব, নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি ইরশাদ মুবারক করেন,



ব্রিটিশ দালাল, ইসলামবিদ্বেষী ও মুসলিম অধ্যুষিত পূর্ববঙ্গ প্রদেশ সৃষ্টির বিরোধিতাকারী রবীন্দ্রের আলোচনা এদেশে হয় কীভাবে?


  (১) রবীন্দ্রের দাদা দ্বারকানাথ ছিল দেড়শ টাকা বেতনের ইংরেজ ট্রেভর প্লাউডেনের চাকর। দ্বারকানাথ ধনী হয়েছিল পতিতালয়ের ব্যবসার দ্বারা। রবীন্দ্রের দাদার তেতাল্লিশটা পতিতালয় ছিল কলকাতাতেই। (তথ্যসূত্র: কলকাতার আনন্দবাজার পত্রিকা, ২৮শে কার্তিক-১৪০৬, রঞ্জন বন্দ্যোপাধ্যায়) (২) কয়েক পুরুষ ধরে কৃষকদের উপর পীড়ন চালিয়েছে



দাঁড়িয়ে পানি পানে স্বাস্থ্যঝুঁকি বাড়ে


  আমরা জানি, বসে পানি পান করা সুন্নত এবং মুসলমান তাই-ই কোশেশ করেন। এই বসে পান করা সুন্নতের মাঝেই রয়েছে অসীম ফযীলত; যা বিজ্ঞান স্বীকার করতে বাধ্য হয়েছে। কারণ দাঁড়িয়ে পানি পানে অনেক অসুবিধা রয়েছে। দাঁড়িয়ে পানি পানের ক্ষতিকর দিক- (১).



ধর্মযাজক সেজে পাহাড়কে অগ্নিকুণ্ডে রূপান্তর করছে বুড্ডিস্ট সংগঠন ৯৬৯-এর সন্ত্রাসীরা


সবুজে ঘেরা পার্বত্য এলাকায় নতুন দাবানলের আভাস পাওয়া যাচ্ছে। এখানে মিয়ানমারের উগ্রপন্থী একটি সন্ত্রাসী গ্রুপ তাদের কর্মকাণ্ড পরিচালনা করছে। সরকারের খাস জমি দখল করে বিশাল এলাকা নিয়ে গড়ে তুলছে ‘ভাবনা কেন্দ্র’ বা কিয়াং। ভাবনা কেন্দ্রে বসেই মিয়ানমারের উগ্রবাদী বৌদ্ধ সন্ত্রাসী গোষ্ঠী



প্রথম আলো পত্রিকায় নবজাতককে গোসল করানো নিয়ে কাল্পনিক তথ্য ও মিথ্যাচারের জবাব


আব্দুল কাইয়ুম নামক এক সাংবাদিক (হলুদ সাংবাদিক) ‘দৈনিক প্রথম আলো’ নামক ইসলামবিদ্বেষী পত্রিকায় গত ৬ই সেপ্টেম্বর-২০১৭ তারিখে স্বাস্থ্য বিভাগে “নবজাতককে তিন দিন গোসল করাবেন না” শিরনামে জিহালতীপূর্ণ একটা লেখা লিখেছে। সে সেখানে উল্লেখ করেছে- “তিন দিন গোসল না করানোর বিষয়ে আসি।



প্রথম আলো পত্রিকায় বাচ্চার গোসল নিয়ে মিথ্যাচার এবং তার জবাব।


আব্দুল কাইয়ুম নামক এক সাংবাদিক প্রথম আলো পত্রিকায় গত ০৬ সেপ্টেম্বর ২০১৭ তারিখে স্বাস্থ্য বিভাগে “নবজাতককে তিন দিন গোসল করাবেন না” নামে একটা লিখা লিখে।সে সেখানে উল্লেখ করে “তিন দিন গোসল না করানোর বিষয়ে আসি। আমরা অনেকেই এটা জানতাম না বা