পরশমণি -blog


...


পরশমণি
 


দৈনিক পানি পানের মাত্রা


মানবদেহের দুই-তৃতীয়াংশই পানিপূর্ণ। দেহের প্রায় সব বিপাক ক্রিয়াই পানি ছাড়া অচল। এ কারণেই পানির অপর নাম জীবন বলা হয়। পানির এ বিষয়টি, জীবন রক্ষার্থে নিবেদিত ব্যক্তিরা, যেমন- চিকিৎসক, নার্স এমনকি ওষুধের দোকানদারও প্রায়ই রোগীদের স্মরণ করিয়ে দেন। এই উপদেশে রকমফের আছে।



অবশ্যই সফলকাম হবেন


মহান আল্লাহ পাক রব্বুল আলামীন তিনি ইরশাদ মুবারক করেন, “প্রত্যেক নফসকে মৃত্যুর স্বাদ গ্রহণ করতে হবে।” সুতরাং আমরা যেহেতু মুসলমান, আমাদের মৃত্যুর ভয় রয়েছে। একজন মানুষের দ্বারা যদি কবীরা গুনাহ হয়ে যায় এবং তওবা করা নছীব না হয়, তাহলে মৃত্যুর পর



যারা প্রতিদিন ৮ ঘণ্টা অথবা এর বেশি সময় অফিসে কাটান তাদের জন্য এই লেখা।


সারা দিনের হাজারো কাজের চাপেও নিজের ক্যারিয়ার এবং স্বাস্থ্যের প্রতি ২৪ ঘণ্টাই একটি প্রতিশ্রুতি থাকা উচিৎ। যেহেতু আমাদের দিনের অধিকাংশ সময় কর্মক্ষেত্রে থাকতে হয়, তাই অফিস টাইমে স্বাস্থ্য রক্ষার বিষয়গুলো উপেক্ষা করা ঠিক নয়। অফিসে কিছু টিপস অনুসরণ করে সুস্থ থেকে



মোবাইলের ব্যাটারী লো কিন্তু কথা বলা খুব দরকার তাহলে দেখুন…….


আমাদেনর মধ্যে অনেকেই মোটর বাইক ব্যবহার করেন। এবং মাঝে মাঝে এমন সমস্যায় পড়েন এভাবে যো, এমন জায়গায় ফুয়েলিং ফুরিয়ে যায়, যেখানে লাখ টাকা দিলেও তা পাওয়া যায় না। তখন কি করেন ওনারা? নিশ্চিয় যারা এমন সমস্যায় পড়ে উত্তরণ হয়েছেন ওনাদের অনেকেই



মুসলমানগণের জন্য ‘বাবা দিবস’ পালন করা কাট্টা হারাম ও কুফরী; পক্ষান্তরে পবিত্র ইসলাম দিয়েছে ‘বাবা’র সর্বোত্তম অধিকার


খালিক্ব মালিক রব মহান আল্লাহ পাক তিনি ইরশাদ করেন, ‘মহান আল্লাহ পাক তিনি যা নাযিল বা আদেশ করেছেন তা পালন করো।’ পবিত্র কুরআন শরীফ উনার মধ্যে আরো ইরশাদ মুবারক হয়েছে, “তোমাদের মহান রব তায়ালা তিনি আদেশ মুবারক করেন যে, উনাকে ব্যতীত



প্রহসনমূলক দ্রব্যমূল্য বৃদ্ধির এই নিয়মিত মঞ্চায়ন আর কতদিন!!


মুহম্মদ মোতাহার হুসাইন চোখে অন্ধকার দেখছেন। সংসারের উপার্জনক্ষম ব্যক্তি একমাত্র তিনিই। একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের অফিস সহকারীর সামান্য একটি চাকরি করে ছয় সদস্যের এই সংসার-ঘানি তিনি টেনে চলেছেন কখনো খুঁড়িয়ে খুঁড়িয়ে কখনো বা হোঁচট খেয়ে খেয়ে। নিয়মিত অভাবের মধ্যেও পঞ্চান্ন বছরের এই



ছবি নয়, ফিঙ্গারপ্রিন্টের মাধ্যমেই কাজের সফলতা চাই


আসসালামু আলাইকুম’। শুরুতেই সালাম তারপর কালাম। মুসলমানদের জন্য এভাবে শুরু করাটাই শরাফত, ভদ্রতা, আদব। আর এই আদব শরীয়ত উনার আদেশ-নিষেধ সর্বক্ষেত্রে পালন করা উচিত। সুতরাং মহান আল্লাহ পাক রব্বুল আলামীন উনার ও নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম



সিসিটিভি কখনো সিকিউরিটি দিতে পারে না


ঢাকা রাজারবাগ শরীফ-এর মামদূহ হযরত মুর্শিদ ক্বিবলা আলাইহিস সালাম  তিনি বলেন, ‘ছবি ব্যতীত হজ্জ করতে হবে। কারণ ছবি তোলা জায়িয নেই।’ মদীনা শরীফ-এ সউদী ওহাবী সরকার প্রায় ৯ হাজার সিসিটিভি ফিট করেছে, যার কোনো প্রয়োজন ছিল না। কেননা খালিক্ব, মালিক, রব



নারীর পর্দা করা ফরয আর পুরুষের উপার্জন করা ফরয- এই নিয়ম লঙ্ঘন করলেই বিপদ হবে;


বেপর্দার কারণে আজ সমাজে নানা অপরাধ সৃষ্টি হচ্ছে। পঞ্চদশ হিজরী শতকের মহান মুজাদ্দিদ, মুজাদ্দিদে আ’যম রাজারবাগের মামদূহ হযরত মুর্শিদ ক্বিবলা আলাইহিস সালাম তিনি নছীহত করে থাকেন এই বলে যে, শুধু বেপর্দার কারণে সমাজে ৭৫ ভাগ অপরাধ সংঘটিত হয়। শুধু পর্দা করেই



তথাকথিত মাওলানাদেরকে মক্তবে ভর্তি করে সূরা ফাতিহার তা’লীম দিতে হবে


এ সূরা মক্তবেই শিখানো হয়। বর্ণিত রয়েছে, সমস্ত আসমানী কিতাবে যা রয়েছে, তার সবই রয়েছে কুরআন শরীফ-এর মধ্যে। এজন্য এ সূরাকে বলা হয় উম্মুল কুরআন অর্থাৎ কুরআন শরীফ-এর মূল। এ সূরা নামাযের প্রতি রাকায়াতেই পড়তে হয়। এ সূরাতে রয়েছে খালিক্ব, মালিক,



এইডস নামক মরণব্যাধির চেয়েও ভয়ঙ্কর ধর্মব্যবসায়ী উলামায়ে ‘ছূ’ গং


উলামায়ে ‘ছূ’দের দাফন না হওয়ার কারণে সাধারণ মুসলমান এখন স্যালাইনের রোগীতে পরিণত হয়েছে। তাদেরকে হারাম থেকে বাঁচার কথা বললে জবাবে বলে ‘মাওলানারা তো এগুলো করে’। অর্থাৎ তাদের উক্তি মতে, মহান আল্লাহ পাক উনার বিরুদ্ধে বলা ও করা যাবে কিন্তু সৃষ্টির নিকৃষ্ট



যারা মতামত লেখক হতে চান, দৈনিক আল ইহসান শরীফ উনাতে লিখতে চান, যারা মতামত লিখতে কোশেশ করতে চাচ্ছেন কিন্তু


² আল্লাহ পাক উনার হাবীব হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনিই সর্বশ্রেষ্ঠ নিয়ামত।   ² যারা সাইয়্যিদুল মুরসালীন, ইমামুল মুরসালীন হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনাকে মুহব্বত করবে, তা’যীম-তাকরীম করবে তারা বিনা হিসেবে জান্নাতে প্রবেশ করবে।   ² সাইয়্যিদুল