মাসউদুর রহমান -blog


...


 


পর্দা করা কোন সরকারী নিয়ম নয়, এটা মহান আল্লাহ পাক উনার মুবারক বিধান


মহান আল্লাহ পাক তিনি ইরশাদ মুবারক করেন, “(হে আমার হাবীব ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম) আপনি ঈমানদার নারীগণকে বলুন, তারা যেন তাদের দৃষ্টিকে নত রাখে এবং তাদের ইজ্জত ও আবরু হিফাজত করে। তারা যেন তাদের সৌন্দর্য প্রদর্শন না করে। তবে চলাচলের কারণে



আজ পবিত্র রজবুল হারাম শরীফ উনার ১লা জুমুয়াহ উনার রাত। অর্থাৎ মহাপবিত্র লাইলাতুর রগায়িব শরীফ উনার রাত


মহান আল্লাহ পাক তিনি ইরশাদ মুবারক করেন, ‘মহান আল্লাহ পাক উনার নিদর্শন সম্বলিত দিবসগুলিকে স্মরণ করিয়ে দিন সমস্ত কায়িনাতকে। নিশ্চয়ই এর মধ্যে ধৈর্যশীল ও শোকরগোজার বান্দা-বান্দীদের জন্য ইবরত ও নছীহত রয়েছে।’ সুবহানাল্লাহ! আজ রাতটিই পবিত্র রজবুল হারাম শরীফ উনার ১লা জুমুয়াহ



পবিত্র যাকাত সংশ্লিষ্ট মাসয়ালা-মাসায়িল সমূহের বিবরণ


পবিত্র যাকাত উনার নিছাব কাকে বলে: যে পরিমাণ অর্থ-সম্পদ বা নগদ অর্থ কোন ব্যক্তির সাংসারিক সকল মৌলিক প্রয়োজন বা চাহিদা মিটানোর পর অতিরিক্ত সম্পদ যা সাড়ে সাত তোলা স্বর্ণ অথবা সাড়ে বায়ান্ন তোলা রৌপ্য অথবা ঐ সমপরিমাণ অর্থ-সম্পদ নির্দিষ্ট তারিখে পূর্ণ



মাহে রজবুল হারাম উনার আইয়্যামুল্লাহ শরীফসমূহ:


১ রজবুল হারাম: ক) আবু রসূলিনা ও উম্মু রসূলিনা আলাইহিমাস সালাম উনাদের নিসবতে আযীমাহ শরীফ দিবস। খ) তারিখ হিসেবে লাইলাতুর রগায়িব শরীফ। গ) সাইয়্যিদুনা হযরত ইমামুল খ¦মিস মিন আহলু বাইতি রসূলিল্লাহ ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার বিলাদতী শান মুবারক প্রকাশ দিবস।



পবিত্র যাকাত সংশ্লিষ্ট মাসয়ালা-মাসায়িল সমূহের বিবরণ


পবিত্র যাকাত উনার নিছাব কাকে বলে: যে পরিমাণ অর্থ-সম্পদ বা নগদ অর্থ কোন ব্যক্তির সাংসারিক সকল মৌলিক প্রয়োজন বা চাহিদা মিটানোর পর অতিরিক্ত সম্পদ যা সাড়ে সাত তোলা স্বর্ণ অথবা সাড়ে বায়ান্ন তোলা রৌপ্য অথবা ঐ সমপরিমাণ অর্থ-সম্পদ নির্দিষ্ট তারিখে পূর্ণ



হিজরী সন বাতিলের আকাঙ্খা থেকে ফসলী (বাংলা) সনের উৎপত্তি


বিগত ১৪২১ ফসলী সনে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের পহেলা বৈশাখ পালনের প্রতিপাদ্য বিষয় ছিল ‘প্রদীপ্ত বৈশাখে দীপ্ত পদাচারণা’। জাবির উক্ত কার্যক্রম নিয়ে ২০১৪ সালের ২৫শে এপ্রিলে ‘দৈনিক যায়যায়দিন’ পত্রিকার ওয়েব ভার্সনে প্রকাশিত ‘জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়: প্রদীপ্ত বৈশাখে দীপ্ত পদাচারণা’ শীর্ষক একটি প্রতিবেদনে উল্লেখ করা



যাকাত আর ইনকাম ট্যাক্স এক নয়


প্রিয় পাঠক! আপনারা একটু ফিকির করে দেখুন- ইনকাম ট্যাক্সের কারণে মানুষদের ফরয যাকাতের গুরুত্ব নষ্ট হচ্ছে। অথচ আমরা হযরত ছিদ্দীক্বে আকবর আলাইহিস সালাম উনার জীবনী মুবারক পড়লে জানতে পারি- যাকাতের কত গুরুত্ব ও তাৎপর্য রয়েছে। হযরত ছিদ্দীক্বে আকবর আলাইহিস সালাম তিনি



বরকতময় ২২শে জুমাদাল উখরা শরীফ। সুবহানাল্লাহ! খলীফাতু রসূলিল্লাহ সাইয়্যিদুনা হযরত ছিদ্দীক্বে আকবর আলাইহিস সালাম উনার পবিত্র বিছালী শান মুবারক


নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি ইরশাদ মুবারক করেন, ‘হযরত নবী ও রসূল আলাইহিমুস সালাম উনাদের পর সর্বশ্রেষ্ঠ মানুষ হচ্ছেন হযরত ছিদ্দীক্বে আকবর আলাইহিস সালাম তিনি, অতঃপর হযরত ফারূক্বে আ’যম আলাইহিস সালাম তিনি।’ সুবহানাল্লাহ! আজ সুমহান বরকতময়



বেগুনবাড়ি বস্তি থেকে হাতিরঝিল || পুরান ঢাকা থেকে কি হবে ?


‘হাতিরঝিলে গেলে মনে হয়, প্যারিস শহরের কোনো অংশে এসেছি। আকাশ থেকে ঢাকা শহরকে যুক্তরাষ্ট্রের লস অ্যাঞ্জেলস মনে হয়। কুড়িল ফ্লাইওভার দেখলে মনে হয় এটি কোনো সিনেমার দৃশ্য।’ বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনার জাদুকরি নেতৃত্বে দেশ বদলে গেছে মন্তব্য করে এসব কথা বলেন



জাতীয় প্রেসক্লাবের কনফারেন্স লাউঞ্জে সুন্নতি খাবার, তৈজসপত্র, পোশাক পরিচ্ছদসহ বিভিন্ন সুন্নতি সামগ্রীর এক বিশেষ প্রদর্শনী


মহাসম্মানিত সুন্নত সারাবিশ্বে ব্যাপকভাবে প্রচার ও প্রসারের লক্ষ্যে গতকাল ইয়াওমুস সাবত (শনিবার) জাতীয় প্রেসক্লাবের কনফারেন্স লাউঞ্জে সুন্নতি খাবার, তৈজসপত্র, পোশাক পরিচ্ছদসহ বিভিন্ন সুন্নতি সামগ্রীর এক বিশেষ প্রদর্শনী অনুষ্ঠিত হয়েছে। প্রদর্শনীতে প্রায় ৪০টি সুন্নতি খাবারসহ ৬৩টি সুন্নতি সামগ্রী প্রদর্শিত হয়। রাজারবাগ দরবার



প্রসঙ্গঃ মহান ‘আল্লাহ’ পাক উনার নাম মুবারক উনার অবমাননা ধর্মীয় অনুভূতিতে চরম আঘাত: তীব্র প্রতিবাদে জাগো হে মুসলিম, রুখে


কিছুদিন পূর্বে ব্রিটিশ কোম্পানী ফ্যাশন প্রোডাক্ট নির্মাতা ম্যাক্স এ- স্পেন্সার (এম অ্যা- এস) কোম্পানীর টয়লেট টিস্যুতে লোগো হিসেবে আরবী হরফে মহান আল্লাহ পাক উনার পবিত্র থেকে পবিত্রতম মহাসম্মানিত ‘আল্লাহ’ নাম মুবারক ইচ্ছাকৃতভাবে কুটকৌশলে লিখে দিয়েছে। নাউযুবিল্লাহ! নাউযুবিল্লাহ! নাউযুবিল্লাহ! এরপর এক সপ্তাহ



পুরাতন ঢাকায় কেমিক্যাল গোডাউনে আগুন প্রসঙ্গে…..


বেজমেন্টে ছিলো বিশাল কেমিকেলের গোডাউন । যদি বিষ্ফোরণ হতো, তবে পুরো এলাকা উড়ে যেতো । কত হাজার মানুষ মারা পড়তো, তার হিসেব থাকতো না। ঐ এলাকার অনেক মানুষ জানে না, বেজমেন্টে এত বড় কেমিকেল গোডাউন ছিলো। কিন্তু ঐ বাড়ির সামনে এসেই