মাসউদুর রহমান -blog


...


মাসউদুর রহমান
 


সউদী ওহাবী ইহুদী সরকার চাঁদ দেখে পবিত্র যিলহজ্জ শরীফ মাস ঘোষণা করলো কিনা এ ব্যাপারে সকলকেই সজাগ দৃষ্টি রাখতে


পবিত্র হাদীছ শরীফ উনার মধ্যে ইরশাদ মুবারক হয়েছে, صوموا لرؤيته وافطروا لرؤيته অর্থাৎ- “তোমরা চাঁদ দেখে রোযা রাখো, চাঁদ দেখে ঈদ করো।” এ পবিত্র হাদীছ শরীফ দ্বারা সাব্যস্ত হয় যে, প্রতি আরবী মাসের ২৯ তারিখে চাঁদ তালাশ করা ওয়াজিবে কিফায়া। অর্থাৎ



হযরত আহলে বাইত শরীফ আলাইহিমুস সালাম উনারা সকল সচ্ছলতার মালিক- একটি আকলী দলিল


  একদিন হযরত রাবেয়া বসরী রহমতুল্লাহি আলাইহা উনার কাছে দু’জন দরবেশ এলেন। মেহমানদারী করারও প্রয়োজন কিন্তু ঘরে ছিল মাত্র ২টা রুটি। তিনি দু’জন দরবেশকে তা পরিবেশনও করলেন। উনারা যখন খাদ্য গ্রহণ করতে যাবেন, তখন একজন সুওয়ালকারী বা ভিক্ষুক এলো। তিনি দরবেশ



পবিত্র হজ্জ নিয়ে ষড়যন্ত্র ও বিভ্রান্তি মুসলমান উনাদেরকেই রুখে দিতে হবে, প্রয়োজনে নিয়োজিত করতে হবে সর্বশক্তি 


=>কেউ কেউ নিজ থেকে আবার কেউ বা অন্যের প্ররোচনায় পড়ে পবিত্র হজ্জ উনার কোনো অংশ নয় মনে করে নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার পবিত্র রওজা শরীফ যিয়ারত করা থেকে বিরত থাকে- যা কাট্টা কুফরী চরম ধৃষ্টতা,



সউদী ওহাবী ইহুদী সরকার চাঁদ দেখে পবিত্র যিলহজ্জ শরীফ মাস ঘোষণা করলো কিনা এ ব্যাপারে সকলকেই সজাগ দৃষ্টি রাখতে


পবিত্র হাদীছ শরীফ উনার মধ্যে ইরশাদ মুবারক হয়েছে, صوموا لرؤيته وافطروا لرؤيته অর্থাৎ- “তোমরা চাঁদ দেখে রোযা রাখো, চাঁদ দেখে ঈদ করো।” এ পবিত্র হাদীছ শরীফ দ্বারা সাব্যস্ত হয় যে, প্রতি আরবী মাসের ২৯ তারিখে চাঁদ তালাশ করা ওয়াজিবে কিফায়া। অর্থাৎ



নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি সমস্ত উম্মত উনাদের পক্ষ থেকে পবিত্র কুরবানী মুবারক করেছেন।


পবিত্র হাদীছ শরীফ উনার মধ্যে ইরশাদ মুবারক হয়েছে- عن حضرت عائشة صديقة عليها السلام ان رسول الله صلى الله عليه وسلم امر بكبشين اقرن يطآ فى سواد ويبرك فى سواد وينظر فى سواد فاتي به ليضحى به قال يا عائشة عليها



এটাই কি ছিল সরকারের ওয়াদা যার ফলশ্রুতিতে সে এখন সম্মানিত শরীয়ত উনার প্রতিটি বিষয় এমনকি সম্মানিত কুরবানী উনার ক্ষেত্রেও


যে ব্যক্তি নফসের অনুসরণ করত পবিত্র কুরআন শরীফ, পবিত্র সুন্নাহ শরীফ বিরোধী আইন প্রনয়ন করবে অর্থাৎ সম্মানিত শরীয়ত উনার সীমা লঙ্ঘণ করে পবিত্র কুরআন শরীফ, পবিত্র সুন্নাহ শরীফ বহির্ভুত নতুন আইন জারী করবে পরকালে মহান আল্লাহ পাক তিনি তাকে কঠিনভাবে পাকড়াও



যুগে যুগে উলামায়ে ‘সূ’রা পবিত্র দ্বীন ইসলাম উনার চরম ক্ষতি করেছে


শের শাহ শূরীর নিকট পরাজিত সম্রাট আকবরের পিতা সম্রাট হুমায়ূন যখন সপরিবারে পলায়ন করছিল, তখন বর্তমান পাকিস্তানের অমরকোটে এক রাজপ্রাসাদে আকবরের জন্ম। প্রথম জীবনে লেখাপড়ার সুযোগ না পেলেও বৈরাম খাঁর নিকট যুদ্ধ বিদ্যায় হাতেখড়ি তার। অপরিণত বয়সেই তাকে সাম্রাজ্যের দায়িত্ব নিতে



চাঁদ না দেখে যিলহজ্জ মাস শুরু করলে হাজী সাহেবদের হজ্জ ও তার সংশ্লিষ্ট কোনো আমলই শুদ্ধ হবে না


সউদী আরবে পবিত্র যিলহজ্জ মাস সঠিক তারিখে চাঁদ দেখে শুরু না করলে পবিত্র আরাফা উনার ময়দানে উপস্থিত থাকার ফরয, মুজদালিফায় থাকার ওয়াজিব, কঙ্কর নিক্ষেপ করার ওয়াজিব, কুরবানী করার ওয়াজিব, চুল কাটার ওয়াজিব, তাওয়াফে যিয়ারত ও ইহরাম খোলার ফরযসহ সকল আমলসমূহ হাজী



কেন দেশী গরু কিনা উচিত? এবং কেন ভারতীয় গরু কিনবেন না?


নিম্নমানের ভারতীয় গরু কিনবেন না। কারণ- ১। খাদ্যের অভাবে ভারতীয়রা যেমন কচুঘেচু খায়, তেমনি তাদের গরুগুলো কিছু খেতে না পেয়ে প্লাস্টিক খায়। ভারতের প্রতিটি মৃত গরুর পেটে ৩০ কেজি প্লাস্টিক পাওয়া যায়। ২। বিপরীতে আমাদের খামারীরা গরুকে খাওয়ায় উন্নত মানের খাবার।



আর কত ষড়যন্ত্র করলে কুরবানীবিরোধী তৎপরতা বন্ধ হবে


পবিত্র কুরবানীর পশু যবাইয়ের জন্য স্থান নির্ধারণ, হাট কমানো, শহর থেকে দূরে সরিয়ে নিরবচ্ছিন্ন দুর্গম স্থানে নিয়ে যাওয়া, ১৮ বছরের নিচে কেউ যবেহ করতে না পারা, মেশিন দিয়ে যবাইয়ের জন্য আগাম প্রস্তুতি নেয়া, পশুর মধ্যে বিষ রয়েছে বলে গুজব ছড়ানো, কুরবানী



উম্মুল মু’মিনীন আছ ছালিছাহ সাইয়্যিদাতুনা হযরত ছিদ্দীক্বা আলাইহাস সালাম উনার শান-মান, ফাযায়িল-ফযীলত, বুযূর্গী-সম্মান মুবারক এবং সম্মানিত পবিত্রতা মুবারক


বনী মুছত্বলিক্বের জিহাদ থেকে প্রত্যাবর্তনের সময় আফদ্বলুন নিসা বা’দা রসূলিল্লাহ ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম, উম্মুল মু’মিনীন আছ ছালিছাহ সাইয়্যিদাতুনা হযরত ছিদ্দীক্বা আলাইহাস সালাম উনার সম্মানিত শান মুবারক উনার খিলাফ মিথ্যা অপবাদ রটনা করে মুনাফিক্ব সর্দার উবাই ইবনে সুলূল লা’নাতুল্লাহি আলাইহি এবং



বিরান করার উদ্দেশ্যে যারা মসজিদ ভাঙ্গে, তারা মহান আল্লাহ পাক উনার শত্রু


পবিত্র হাদীছ শরীফ উনার মধ্যে ইরশাদ মুবারক হয়েছে- احب البلاد الى الله مساجدها অর্থ: “মহান আল্লাহ পাক উনার কাছে প্রিয়তম স্থান হচ্ছে মসজিদ।” পবিত্র হাদীছ শরীফ উনার মধ্যে আরো ইরশাদ মুবারক হয়েছে- من بنى لله مسجدا بنى الله بيتا فى الجنة