মাসউদুর রহমান -blog


...


মাসউদুর রহমান
 


আক্বীদা শুদ্ধ করার মাস হচ্ছে ‘পবিত্র ছফর শরীফ মাস’


মহান আল্লাহ পাক তিনি ইরশাদ মুবারক করেন, ‘হে ঈমানদাররা! তোমরা ঈমান আনো। অর্থাৎ পবিত্র আক্বীদা উনাকে বিশুদ্ধ করো।’ সুবহানাল্লাহ! পবিত্র আক্বীদা শুদ্ধ করার মাস হচ্ছে ‘পবিত্র ছফর শরীফ মাস’। সুবহানাল্লাহ! যার আক্বীদা শুদ্ধ সেই মু’মিন বা মুসলমান। আর যার আক্বীদা শুদ্ধ



আজ সুমহান বরকতময় পবিত্র ৫ই ছফর শরীফ। হযরত উম্মুল মু’মিনীন আছ ছানিয়াহ আলাইহাস সালাম উনার মহাসম্মানিত মহাপবিত্র বিলাদতী


মহান আল্লাহ পাক তিনি ইরশাদ মুবারক করেন, ‘মহান আল্লাহ পাক উনার বিশেষ বিশেষ রাত ও দিনগুলো তাদেরকে স্মরণ করিয়ে দিন।’ সুবহানাল্লাহ! আজ সুমহান বরকতময় পবিত্র ৫ই ছফর শরীফ। সুবহানাল্লাহ! সাইয়্যিদাতু নিসায়িল আলামীন, সাইয়্যিদাতুনা হযরত উম্মুল মু’মিনীন আছ ছানিয়াহ আলাইহাস সালাম উনার



পবিত্র ছফর শরীফ মাস অশুভ নয় এবং কুলক্ষণের প্রতীক নয়


পবিত্র ছফর শরীফ মাস মহান আল্লাহ পাক উনার মনোনীত খাছ মাস। এ মাস অশুভ ও কুলক্ষণে নয়। কাফির-মুশরিকরা এ মাসকে অশুভ ও কুলক্ষণের প্রতীক মনে করে থাকে। আইয়ামে জাহিলিয়াতের যুগে ‘পবিত্র ছফর শরীফ’ মাসকে কাফির-মুশরিকরা অশুভ ও কুলক্ষণে মনে করতো। এ



হে নারী! ছুটে আসুন সাইয়্যিদাতুনা হযরত উম্মুল উমাম আলাইহাস সালাম উনার পবিত্র ক্বদম মুবারকে


মহান আল্লাহ পাক উনার পক্ষ থেকে সমস্ত কায়িনাতের জন্য অন্যতম মহান নিয়ামত তথা নিয়ামতে উজমা হলেন, নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার পূত-পবিত্র হযরত আহলে বাইত শরীফ আলাইহিমুস সালামগণ উনারা। সুবহানাল্লাহ! এবং সেই হযরত আহলে বাইত শরীফ



সাধ্য-সামর্থ্য অনুযায়ী দান করা উচিত ॥ কেননা দানের মাধ্যমে সুউচ্চ মাক্বাম হাছিল হয়


ফরয-ওয়াজিব দান-ছদকা, যেমন- যাকাত, উশর, ছদাকাতুল ফিতর, মানত, ফিদিয়া, কাফফারা ইত্যাদি আদায় না করলে শাস্তি অবধারিত। এছাড়া পরকালীন নিয়ামত, মর্যাদা-মর্তবা, সম্মান হাছিল করতে হলে অতিরিক্ত দান ছদক্বা করা আবশ্যক। এই দানের প্রসঙ্গে পবিত্র কুরআন শরীফ এবং পবিত্র হাদীছ শরীফ উনাদের মধ্যে



মাতৃভূমির স্বার্থ বিলিয়ে এ কেমন বন্ধুত্ব?


সাইয়্যিদুল মুরসালীন, ইমামুল মুরসালীন, নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযুর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি ইরশাদ মুবারক করেন, “স্বদেশের প্রতি মুহব্বত পবিত্র ঈমান উনার অঙ্গ।” বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমান আমাদের প্রিয় মাতৃভূমি বাংলাদেশের স্বার্থের বিষয়ে বিদেশী রাষ্ট্রের সাথে কোনো আপোস করেনি। বাংলাদেশ



আজ সুমহান ঐতিহাসিক মহা পবিত্র আশূরা মিনাল মুহররমুল হারাম শরীফ উনার সম্মানিত দিন। সুবহানাল্লাহ!


নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি ইরশাদ মুবারক করেন, ‘আমার হযরত আহলু বাইত শরীফ আলাইহিমুস সালাম উনাদেরকে মুহব্বত করো আমার সন্তুষ্টি মুবারক লাভের জন্য।’ সুবহানাল্লাহ! আজ সুমহান ঐতিহাসিক মহা পবিত্র আশূরা মিনাল মুহররমুল হারাম শরীফ উনার সম্মানিত



খলীফায়ে ছালিছ, আমিরুল মু’মিনীন সাইয়্যিদুনা হযরত যুন নুরাইন আলাইহিস সালাম উনার নৌবাহিনী গঠন এবং বিজিত এলাকার সংক্ষিপ্ত বর্ণনা


সময় কি আছে বর্তমান মুসলিম দেশের শাসকদের জন্য, তারা চিন্তা করবে কি তাদের অতীত ইতিহাস-ঐতিহ্য কেমন ছিল, তারা শিক্ষা নেবে কী কেমন বীরত্বপূর্ণ ছিল মুসলমান উনাদের অতীত শৌর্য, কী ন্যায়নিষ্ঠ ছিলেন মুসলিম জাতির পূর্বপুরুষ উনারা? আমরা যদি একবার চোখ বুলাই তাহলে



সর্বশ্রেষ্ঠ ও মহাসম্মানিত পিতা উনার পবিত্রতম বিছালী শান মুবারক প্রকাশ দিবস পালন করার ফযীলত


আমি আপনি আমরা সকলেই কমবেশি নিজেদের পিতা-মাতা উনাদের ইন্তেকাল দিবস পালন করি। এ উপলক্ষে বিশেষভাবে দান-সদকা ও দোয়া-মাহফিলের আয়োজন করি। কিন্তু আমরা কি কখনো ভেবে দেখেছি যিনি আমাদের ঈমান দান করেছেন, যে উসীলায় আমরা সৃষ্টি হয়েছি সেই নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর



আমীরুল মু’মিনীন, কাতিবে ওহী, জামিউল কুরআন, সাইয়্যিদুনা হযরত যুন নূরাইন আলাইহিস সালাম উনার বেমেছাল ফযীলত


মহাসম্মানিত ও মহাপবিত্র হাদীছ শরীফ উনার মধ্যে ইরশাদ মুবারক হয়েছে, عَن حَضْرَتْ ثُمامة بن حَزْنٍ الْقشيرِي رحمة الله عليه قَالَ شَهِدْتُ الدَّارَ حِينَ أَشْرَفَ عَلَيْهِمْ حَضْرَتْ عُثْمَانُ عَلَيْهِ السَّلَامُ فَقَالَ أنْشدكُمْ بِاللَّه وَالْإِسْلَامَ هَلْ تَعْلَمُونَ أَنَّ رَسُولَ اللَّهِ صَلَّى اللَّهُ عَلَيْهِ



‘আব্দুল্লাহ আলাইহিস সালাম’ নাম মুবারক উনার খুছূছিয়াত মুবারক এবং সাইয়্যিদুনা হযরত জাদ্দু রসূলিল্লাহ ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম ও জাদ্দাতু


‘আব্দুল্লাহ আলাইহিস সালাম’ সম্মানিত ও পবিত্র ইসম বা নাম মুবারক উনার অর্থ মুবারক হচ্ছেন- ‘মহান আল্লাহ পাক উনার খাছ অনুগত বান্দা, মাহবূব ব্যক্তিত্ব মুবারক, মহান আল্লাহ পাক উনার হাবীব’। সুবহানাল্লাহ! আরবী অভিধান ও নাহু-ছরফের বিশ্বখ্যাত ইমাম মুহম্মদ ইবনে ক্বাসিম ইবনে মুহম্মদ



আল আতকা, আল মুত্তাক্বী মাহবূবু রসূলিল্লাহ, মাহবুবুল্লাহ হযরত যুন নূরাইন আলাইহিস সালাম উনার পবিত্র দ্বীন ইসলাম গ্রহণ


আমীরুল মু’মিনীন সাইয়্যিদুনা হযরত যুন নূরাইন আলাইহিস সালাম উনার খালা সা’দাহ নাম্মী এক মহিলা তিনি হঠাৎ একদিন উনার বাড়িতে এসে উনাকে লক্ষ্য করে বললেন, হে আমীরুল মু’মিনীন সাইয়্যিদুনা হযরত যুন নূরাইন আলাইহিস সালাম! আপনি জেনে রাখুন, আমাদের মাঝে যে নবী ও