মাসউদুর রহমান -blog


...


মাসউদুর রহমান
 


হুযুর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার মুবারক শানে কটুক্তির জবাব


পবিত্র মিরাজ শরীফের রাতে উম্মে হানী রদ্বিয়াল্লাহু আনহা উনার ঘরে হুযুর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার অবস্থান নিয়ে নাস্তিকরা আপত্তি তুলছে (http://bit.ly/2vHR33H, http://bit.ly/2vHLX7Q) । অথচ হাদীছ শরীফের বর্ণনায় স্পষ্ট আছে, সে রাতে হুযুর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম একা ছিলেন



বিরান করার উদ্দেশ্যে যারা মসজিদ ভাঙ্গে, তারা মহান আল্লাহ পাক উনার শত্রু


পবিত্র হাদীছ শরীফ উনার মধ্যে ইরশাদ মুবারক হয়েছে- احب البلاد الى الله مساجدها অর্থ: “মহান আল্লাহ পাক উনার কাছে প্রিয়তম স্থান হচ্ছে মসজিদ।” পবিত্র হাদীছ শরীফ উনার মধ্যে আরো ইরশাদ মুবারক হয়েছে- من بنى لله مسجدا بنى الله بيتا فى الجنة



ম্মানিত পবিত্র দ্বীন ইসলাম উনার উপর হস্তক্ষেপ করা কারো জন্য জায়িয নেই- সে যেই হোক অর্থাৎ রাজা হোক, বাদশাহ


বাংলাদেশের ৯৮ ভাগ মানুষ মুসলমান। যার কারণে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদ্বীন হচ্ছেন সম্মানিত পবিত্র ইসলাম। পবিত্র দ্বীন ইসলাম হচ্ছেন সম্মানিত ওহী মুবারক দ্বারা নাযিলকৃত, যা অপরিবর্তনীয়। আর পবিত্র ওহী মুবারক উনার দরজা বন্ধ হয়ে গেছে। আর সম্মানিত পবিত্র দ্বীন ইসলাম উনার উপর হস্তক্ষেপ



প্রসঙ্গঃ মিরাজ শরীফ রাতে হুযূরপাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম কোথায় ছিলেন?


আফসোস আমাদের দেশের মানুষের জন্য! আমাদের বিবেকবোধের জন্য! এ দেশে প্রধানমন্ত্রীর বিরুদ্ধে কেউ কিছু লিখলে বা বললে তাকে গ্রেফতার করা হয়। বঙ্গবন্ধুর বিরুদ্ধে কেউ লিখলে তার যাবজ্জীবন কারাদন্ড ও অর্থদন্ড হয়। অথচ সমগ্র সৃষ্টি জগতের যিনি রসূল, হুযুর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি



আজ সুমহান ১৪ যিলক্বদ শরীফ; আওলাদে রসূল, হযরত শাফিউল উমাম আলাইহিস সালাম উনার সুমহান বিলাদত শরীফ


  যিনি খালিক্ব মালিক রব মহান আল্লাহ পাক তিনি উনার পবিত্র কালাম কালামুল্লাহ শরীফ উনার মধ্যে ইরশাদ মুবারক করেন, أَلَا إِنَّ أَوْلِيَاءَ اللهِ لَا خَوْفٌ عَلَيْهِمْ وَلَا هُمْ يَحْزَنُونَ. الَّذِيْنَ آمَنُوْا وَكَانُوْا يَتَّقُوْنَ. لَهُمُ الْبُشْرى فِى الْحَيَاةِ الدُّنْيَا وَفِى الْآخِرَةِ لَا



কুতুবুল আলম, বাবুল ইলমি ওয়াল হিকাম আওলাদে রসূল, শাফিউল উমাম সাইয়্যিদুনা হযরত শাহদামাদ আউওয়াল ক্বিবলা আলাইহিস সালাম উনার শান,


মহান আল্লাহ পাক তিনি ইরশাদ মুবারক করেন- الَّذِينَ أُخْرِجُوا مِن دِيَارِهِمْ وَأَمْوَالِهِمْ يَبْتَغُونَ فَضْلًا مِّنَ اللَّـهِ وَرِضْوَانًا وَيَنصُرُونَ اللَّـهَ وَرَسُولَهُ ۚ أُولَـٰئِكَ هُمُ الصَّادِقُونَ ﴿٨﴾ অর্থ:- যারা মহান আল্লাহ পাক উনার সন্তুষ্টি, রেযামন্দি ও অনুগ্রহ তালাশ করেন এবং মহান আল্লাহ পাক



বাল্যবিবাহ বন্ধ করা, পরিবার পরিকল্পনা পদ্মতির মাধ্যমে একাধিক সন্তান না নেওয়া মুসলমানদের সংখ্যা কমানোর জন্য বিভিন্ন কর্মসূচি


কোন বির্ধমী যখন মুসলমানদের উপকারের কথা বলে তখন বুঝবেন, ডাল মে কুছ কালা হ্যায়। মহান আল্লাহ পাক কুরআন শরীফে ফয়সালা দিয়ে রেখেছেন মুসলমানরা তাদের সবচাইতে বড় শত্রু হিসাবে পাবে ইহুদী ও মুশরিকদের তথা বির্ধমীদের। যখন এই কাফির বিধর্মীরা মুসলামানদের উপকারের কথা



আওলাদে রসূল হযরত সাইয়্যিদুল উমাম আলাইহিস সালাম উনাকে যারা মুহব্বত করবেন তারা ৯টি বিশেষ নিয়ামত মুবারক লাভ করবেন। সুবহানাল্লাহ!


সাইয়্যিদুল উমাম সাইয়্যিদুনা হযরত শাহ নাওয়াসা ক্বিবলা আলাইহিস সালাম তিনি হচ্ছেন সাইয়্যিদুল মুরসালীন, ইমামুল মুরসালীন, নূরে মুজাস্সাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার সম্মানিত আওলাদ আলাইহিমুস সালাম উনাদের অন্তর্ভুক্ত। তাই উনার শান-মান, ফাযায়িল-ফযীলত, খুছূছিয়াত মুবারক বেমেছাল। উনার মুহব্বত হচ্ছে



মানুষকে মিথ্যাবাদী বানিয়ে অভিশপ্ত করা সরকারের কাজ না হলে এবার কমপক্ষে ১৫ দিন পবিত্র ঈদ উনার ছুটি দেয়া হোক


মিথ্যা বলা মহাপাপ। ‘মিথ্যাবাদীর উপর খালিক্ব মালিক রব মহান আল্লাহ পাক উনার লা’নত বা অভিশম্পাত’- এটা পবিত্র কুরআন শরীফ উনার ঘোষণা। পবিত্র ঈদে সন্তানাদি পরিবার-পরিজন নিয়ে শরীয়তসম্মত আনন্দ প্রকাশসহ আনুষঙ্গিক ইবাদত কার্যাদি পালন করা মুসলমানের ধর্মীয় অধিকার। বাংলাদেশের বিশেষ করে রাজধানীতে



প্রতি মহল্লায় মহল্লায় পবিত্র কুরবানীর পশুর হাট থাকা চাই!


আমাদের দেশের শতকরা ৯৮ ভাগ লোক মুসলমান এবং পবিত্র কুরবানী একটি সম্মাানিত ওয়াজিব আমল। পবিত্র কুরআন শরীফ এবং পবিত্র হাদীছ শরীফ উনাদের মধ্যে পবিত্র কুরবানী উনার ফাযায়িল-ফযীলত স¤পর্কে অনেক বর্ণনা রয়েছে। কুরবানীদাতা অনেক নেকী হাছিল করে থাকেন। সুবহানাল্লাহ! আবার এই নেক



পরিবেশ দূষণ আর যানজট কি শুধু কুরবানীর সময়েই হয়ে থাকে?


প্রশাসন কুরবানীর পশুর হাট যানজট আর পরিবেশ দূষণের দোহাই দিয়ে দূরে দূরে হাট বসানোর ঘোষণা দিয়েছে। অথচ অন্যান্য ধর্মাবলম্বী এবং নানাবিধ কারণে সারাবছর ঢাকা শহরে যানজট লেগে থাকে এবং পরিবেশ দূষণ হয়ে থাকে। (১). লোক সমাগমে, উৎসব পার্বনে যানজট হবেই। দুর্গামূর্তিকে



অনুসরণীয় চার মাযহাব উনাদের ফতওয়া মুতাবিক সাইয়্যিদুল আম্বিয়া ওয়াল মুরসালীন, রহমাতুল্লিল আলামীন, নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি


নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার সম্পর্কে, উনার সম্মানিত আহলু বাইত শরীফ আলাইহিমুস সালাম অর্থাৎ উনার সম্মানিত আব্বা-আম্মা আলাইহিমাস সালাম উনাদের সম্পর্কে, উনার সম্মানিতা আওয়াজে মুত্বহহারাত হযরত উম্মাহাতুল মু’মিনীন আলাইহিন্নাস সালাম উনাদের সম্পর্কে এবং উনার সম্মানিত আওলাদ