মাসউদুর রহমান -blog


...


মাসউদুর রহমান
 


সালাফীদের মূল মুরুব্বী ইবনে তাইমিয়া, আলবানী, উসাইমিন- এরা পবিত্র লাইলাতুম মুবারকাহ অর্থাৎ পবিত্র শবে বরাতের ফযীলত ও আমল স্বীকার


বর্তমান সালাফী-ওহাবীরা লাইলাতুম মুবারকাহ, লাইলাতুন নিছফি মিন শা’বান অর্থাৎ পবিত্র শবে বরাত শরীফ আসলে বিরোধিতায় মেতে উঠে। অথচ তাদের পূর্বসূরি মুরুব্বীরা পবিত্র কুরআন শরীফ, পবিত্র তাফসীর শরীফ, পবিত্র হাদীছ শরীফ, হযরত সলফে ছালিহীন উনাদের আমলে ব্যাপকতার কারণে অসীকার করার কোনো সাহসই



৯ প্রকার লোকের লাইলাতুন নিছফি মিন শা’বান বা সম্মানিত বরাত উনার রাতের ফযীলত নছীব হবে না


সীমাহীন রহমত, বরকত, সাকীনা, মাগফিরাত নাযিলের রাত লাইলাতুন নিছফি মিং শা’বান তথা শবে বরাত। এ মহিমান্বিত রাতে যারাই ক্ষমাপ্রার্থনা করবে সবাইকে ক্ষমা করে দেয়া হবে। শুধু তাই নয়, এ মহিমান্বিত রাতে যে যা চাইবে তাকে তা দিয়ে দেয়া হবে। তবে ৯



সালাফীদের মূল মুরুব্বী ইবনে তাইমিয়া, আলবানী, উসাইমিন- এরা পবিত্র লাইলাতুম মুবারকাহ অর্থাৎ পবিত্র শবে বরাতের ফযীলত ও আমল স্বীকার


বর্তমান সালাফী-ওহাবীরা লাইলাতুম মুবারকাহ, লাইলাতুন নিছফি মিন শা’বান অর্থাৎ পবিত্র শবে বরাত শরীফ আসলে বিরোধিতায় মেতে উঠে। অথচ তাদের পূর্বসূরি মুরুব্বীরা পবিত্র কুরআন শরীফ, পবিত্র তাফসীর শরীফ, পবিত্র হাদীছ শরীফ, হযরত সলফে ছালিহীন উনাদের আমলে ব্যাপকতার কারণে অসীকার করার কোনো সাহসই



পবিত্র শা’বান শরীফ মাস হচ্ছেন মহান আল্লাহ পাক উনার নিকটবর্তী হওয়ার মাস।


মহান আল্লাহ পাক তিনি ইরশাদ মুবারক করেন, ‘নিশ্চয়ই আমি লাইলাতুম মুবারকাহ বা বরকতময় রজনীতে (মশহুর পবিত্র লাইলাতুল বরাত শরীফ উনার মধ্যে) পবিত্র কুরআন শরীফ নাযিল করেছি অর্থাৎ নাযিল করার সিদ্ধান্ত নিয়েছি।’ সুবহানাল্লাহ! পবিত্র শা’বান শরীফ মাস হচ্ছেন মহান আল্লাহ পাক উনার



নামায, রোযা, বেহেশত, দোযখ, ফেরেশতা এ শব্দগুলো পবিত্র কুরআন শরীফ-এ খুঁজলে যদি পাওয়া না যায়, তবে শবে বরাত কী


সম্প্রতি দেশের কিছু পত্র-পত্রিকা খুললে দেখা যায় যে, কিছু তথাকথিত মালানা তথা উলামায়ে ‘সূ’রা লিখে থাকে যে পবিত্র কুরআন শরীফ, পবিত্র হাদীছ শরীফ উনাদের কোথাও শবে বরাত নেই। নাউযুবিল্লাহ! তথাকথিত এসব মালানা, মুফতী এরা চরম মূর্খ তথা উলামায়ে ‘সূ’। কারণ ‘শব’



১লা মে’র সাথে মুসলমানদের কোন সম্পর্ক নেই


যুক্তরাষ্ট্রের শিকাগো শহরের ‘হে মার্কেট স্কয়ারে’ ১৮৮৬ সালে একটি র‌্যালী অনুষ্ঠিত হয়। যুক্তরাষ্ট্রের শিকাগো, ইলিনয়েস-এ তিনদিন স্ট্রাইক পালিত হয় একটি কারখানায় ঘটে যাওয়া ঘটনা নিয়ে। সেখানে কাফির সন্ত্রাসীদেরই একটি গোষ্ঠী বোমা বিস্ফোরণ ঘটালে পুলিশ গুলিবর্ষণ করে, এতে ডজনখানেক লোক মারা যায়।



মে দিবস পালন করা অজ্ঞতা ও মূর্খতারই নামান্তর


১লা মে তথাকথিত শ্রমিক দিবস, হিসেবে পালন করছে কাফিরদের সাথে অনেক মুসলমানরা। কিন্তু কেউ কী একবার ভেবে দেখেছে, এ দিবস কোথা থেকে এসেছে? কে এর প্রবক্তা? না জেনে, না শুনে অন্ধের মতো পালন করে যাচ্ছে ইহুদী-খ্রিস্টানদের প্রবর্তিত দিবসগুলো। কথিত শ্রমিক দিবস



পবিত্র লাইলাতুম মুবারাকা অর্থাৎ শবে বরাত শরীফ উপলক্ষ্যে কমপক্ষে ৩ দিন সরকারি ছুটি দেয়া জরুরী


আমাদের বাংলাদেশের শতকরা ৯৮ ভাগ লোক মুসলমান। তাই সরকারের উচিত ছিল ইসলামিক পর্বগুলোতে ব্যাপক আকারে ছুটি প্রদান করা। কিন্তু বাস্তবে তার উল্টোটা হয়ে আসছে। অর্থাৎ ইসলামিক পর্বগুলোতে ছুটি দেয়া হচ্ছে না, আর ছুটি দিলেও নামকাওয়াস্তে ছুটি দেয়া হচ্ছে। নাউযুবিল্লাহ! আমরা লক্ষ্য



মসজিদে সিসি ক্যামেরা!! উলামায়ে ছু’দের বদ আমলই কি এর জন্য দায়ী নয়?


কিছুদিন আগে ঢাকার একটি মসজিদে নামাযের জন্য যাওয়া হলো। মসজিদে প্রবেশ করতেই আমি অত্যন্ত বিস্মিত হয়ে থমকে দাঁড়ালাম। কিন্তু মসজিদে আসা যাওয়া করা বহু মানুষের কারো মধ্যেই সামান্যতম অস্বাভাবিকতা দেখলাম না। এমনকি মসজিদে দাঁড়ি টুপি এবং লম্বা জামা পরিধান করা লোকদেরও



কুকুর মরলে দুঃখ পাবো, কাফির মরলে নয়


একদিন বিকেলে, রাস্তা দিয়ে হাঁটার সময়ে রাস্তার মাঝখানে প্রায় দশ-বারোটি কুকুরছানা আমার চোখে পড়লো। ছানাগুলো একটি মাদী কুকুরকে ঘিরে কাড়াকাড়ি করে দুধ খাচ্ছে। একেকটি ছানার দুধ খাওয়া শেষ হচ্ছে, আর সেই ছানাটি এগিয়ে গিয়ে মাদী কুকুরটির মুখ চেটে দিচ্ছে। দৃশ্যটি দেখে



হযরত উম্মাহাতুল মু’মিনীন আলাইহিন্নাস সালাম উনাদের সম্মানিত পরিচিতি মুবারক এবং বেমেছাল শান-মান, ফাযায়িল-ফযীলত, বুযূর্গী-সম্মান মুবারক


সম্মানিত পরিচিতি মুবারক: اُمَّهَاتٌ (উম্মাহাত) শব্দ মুবারকখানা اُمٌّ (উম্মুন) শব্দ মুবারক উনার বহুবচন। অর্থ মাতাগণ। আর الْمُؤْمِنِيْنَ (আল মু’মিনীন) শব্দ মুবারকখানা الْمُؤْمِن (আল মু’মিন) শব্দ মুবারক উনার বহুবচন। অর্থ মু’মিনগণ। আর الْمُؤْمِنِيْنَ (আল মু’মিনীন) শব্দ মুবারক উনার শুরুতে যে ال (আলিফ



পবিত্র শা’বান শরীফ মাসে রোযা রাখার সুন্নত আদায় করতে হলে উত্তম হলো- ১৩, ১৪ ও ১৫ তারিখ দিনগুলোতে রোযা


পবিত্র রমাদ্বান শরীফ পুরো মাসে রোযা রাখা ফরয। এছাড়া বাকী মাসগুলোতে নির্দিষ্ট সংখ্যক রোযা রাখা খাছ সুন্নত এবং অশেষ ফযীলত, মর্যাদা-মর্তবা লাভের কারণ। উল্লেখ্য, পবিত্র শাওওয়াল শরীফ মাসে ৬টি, পবিত্র যিলহজ্জ শরীফ মাসে ১০টি এবং অন্যান্য প্রতি মাসে ৩টি করে রোযা