মাসউদুর রহমান -blog


...


 


সুমহান পবিত্র ১১ই যিলক্বদ শরীফ: সাইয়্যিদুল উমাম, আওলাদে রসূল সাইয়্যিদুনা হযরত শাহ নাওয়াসা আউওয়াল ক্বিবলা আলাইহিস সালাম তিনি হচ্ছেন


মহান মুজাদ্দিদ, মুজাদ্দিদে আ’যম, কুতুবুল আলম, আওলাদে রসূল, আস্ সাফফাহ সাইয়্যিদুনা হযরত ইমামুল উমাম আলাইহিস সালাম এবং গুলে মুবিনা, নূরে মাদীনা, নূরে জাহান সাইয়্যিদাতুনা হযরত উম্মুল উমাম আলাইহাস সালাম উনাদের লখতে জিগার, নিবরাসাতুল উমাম সাইয়্যিদাতুনা হযরত শাহযাদী ছানী ক্বিবলা আলাইহাস সালাম



সর্বশ্রেষ্ঠ নিয়ামত পবিত্র সাইয়্যিদুল আ’ইয়াদ শরীফ


মহান আল্লাহ পাক তিনি পবিত্র কালামুল্লাহ শরীফ উনার মধ্যে ইরাশাদ মুবারক করেন, قُلْ بِفَضْلِ اللهِ وَبِرَحْمَتِه فَبِذَالِكَ فَلْيَفْرَحُوْا هُوَ خَيْرٌ مِّمَّا يَجْمَعُوْنَ. অর্থ: হে আমার হাবীব ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম! আপনি কায়িনাতবাসী জ্বিন-ইনসানকে জানিয়ে দিন, তারা যে মহান আল্লাহ পাক উনার



যামানার মুজাদ্দিদ তথা মুজাদ্দিদ যামান উনাকে চেনা ও জানা ফরয


মহান আল্লাহ পাক রব্বুল আলামীন তিনি যুগে যুগে হযরত নবী-রসূল আলাইহিমুস সালাম উনাদেরকে পাঠিয়েছেন। হযরত নবী-রসূল আলাইহিমুস সালাম উনাদের ধারাবাহিকতা বন্ধ হয়ে যাওয়ার পর শুরু হয়েছে ইমাম-মুজতাহিদ, আউলিয়ায়ে কিরামগণ এবং ওলীআল্লাহগণ অর্থাৎ মুজাদ্দিদগণ উনাদের যুগ। ধারাবাহিকভাবে মহান আল্লাহ পাক প্রত্যেক হিজরী



নিত্যনতুন উন্নয়ন প্রকল্পের অজুহাতে বাড়ছে সবকিছুর দাম আসলে কি এগুলো উন্নয়ন প্রকল্প, নাকি শোষণ প্রকল্প?


ভুয়া উন্নয়ন পরিসংখ্যান তৈরি ও ঋণের ফাঁদ এগুলোর পুরোটাই একটি আর্ন্তজাতিক চক্রের কাজ। এ চক্রের হয়ে কাজ করার বাস্তব অভিজ্ঞতা সম্পর্কে ‘জন পার্কিন্স’ নামে তাদেরই এক এজেন্ট ‘গর্ব’ করে একটি বই লিখেছে। এই অর্থনৈতিক ঘাতকের বই থেকে কিছু অংশ তুলে ধরা



জাহান্নামের আমল ততটুকু করুন যতটুকু শাস্তি সহ্য করতে পারবেন


মহান আল্লাহ পাক তিনি ইরশাদ মুবারক করেন, “যে ব্যক্তি এক জাররা পরিমাণ নেকী করবে, তার বদলা সে পাবে। আবার এক জাররা পরিমাণ পাপ কাজ করবে, তার শাস্তিও সে পাবে।” (পবিত্র সূরাতুল যিলযাল শরীফ: পবিত্র আয়াত শরীফ-৭, ৮) নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর



মুসলমানদের জন্য মহান আল্লাহ পাক উনার প্রতিই তাওয়াক্কুল বা ভরসা করতে হবে


নেক খাছলত বা নেক স্বভাবের অর্ন্তভুক্ত বিষয় সমূহের মধ্যে একটি বিষয় হচ্ছে তাওয়াক্কুল। বান্দা-বান্দী, জিন-ইনসান পুরুষ-মহিলা সকলের জন্য ফরয মহান আল্লাহ পাক উনার প্রতিই নির্ভরশীল হওয়া, ভরসা করা, তাওয়াক্কুল করা। পবিত্র কুরআন শরীফ উনার একাধিক পবিত্র আয়াত শরীফ উনাদের মধ্যে তাওয়াক্কুলের



ভারতে প্রকাশ্যে নামায পড়তে বাধার প্রতিবাদে স্মারকলিপি


ভারতের হরিয়ানা রাজ্যের গুরুগ্রামে মুসলিমদেরকে প্রকাশ্যে নামায পড়তে বাধা দেয়া এবং সেই ঘটনায় হরিয়ানার মুখ্যমন্ত্রী মনোহর লাল খাত্তারের দেয়া বক্তব্যের প্রতিবাদ জানিয়েছেন বাংলাদেশের বিশিষ্টজনরা। ঢাকার ভারতীয় দূতাবাসে দেয়া এক স্মারকলিপিতে নামাজে বাধা প্রদানকারী অপরাধীদের বিচার দাবির পাশাপাশি ওই ঘটনায় উগ্র হিন্দুত্ববাদী



পবিত্র মসজিদ ভাঙ্গার সুক্ষ্ম ষড়যন্ত্র মুসলমান বরদাস্ত করবে না


মহান আল্লাহ পাক তিনি ইরশাদ মুবারক করেন, إِنَّ عَذَابِي لَشَدِيدٌ অর্থ: “নিশ্চয়ই মহান আল্লাহ পাক উনার আযাব বড় কঠিন।”(সম্মানিত ও পবিত্র সূরা ইবরাহীম শরীফ; সম্মানিত ও পবিত্র আয়াত শরীফ ৭) মহান আল্লাহ পাক তিনি আরো ইরশাদ মুবারক করেন, لَا تُحِلُّوا شَعَائِرَ



পিতা-মাতার প্রতি সন্তানের কর্তব্য


মহান আল্লাহ পাক তিনি উনার পবিত্র কালাম পাক উনার পবিত্র সূরা বনী ইসরাইল শরীফ উনার ২৩ নম্বর পবিত্র আয়াত শরীফ উনার মধ্যে ইরশাদ মুবারক করেন, “তোমাদের রব তায়ালা তিনি আদেশ মুবারক দিয়েছেন যে, তোমরা মহান আল্লাহ পাক উনার ব্যতীত কারো ইবাদত



পবিত্র লাইলাতুম মুবারাকাহ বা লাইলাতুন নিছফি মিন শা’বান অর্থাৎ পবিত্র বরাত শরীফ উনার রাত্রিতে কি কি ইবাদত-বন্দেগী করতে হবে


, * প্রথমতঃ বাজামায়াত পবিত্র ইশা উনার নামায আদায় করতঃ পবিত্র মীলাদ শরীফ, পবিত্র ক্বিয়াম শরীফ পাঠ করে সংক্ষিপ্ত নছীহত করে তওবা-ইস্তিগফার করে দোয়া-মুনাজাত করবে। * অতঃপর দুই দুই রাকায়াত করে ৪ অথবা ৬ অথবা ৮ অথবা ১০ অথবা ১২ রাকায়াত



আজ দিবাগত রাতটিই পবিত্র লাইলাতুম মুবারাকাহ বা লাইলাতুন নিছফি মিন শা’বান অর্থাৎ মশহুর পবিত্র বরাত শরীফ উনার বরকতময় রাত।


নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি ইরশাদ মুবারক করেন, “যখন তোমরা লাইলাতুম মুবারকাহ বা লাইলাতুন নিছফি মিন শা’বান অর্থাৎ মশহুর পবিত্র বরাত শরীফ উনার রাত্র পাবে তখন সারারাত সজাগ থেকে ইবাদত করো এবং পরের দিন রোযা রাখো।”



সরকারের প্রতি- রমাদ্বান শরীফ উনার পবিত্রতা রক্ষার্থে হারাম খেলাধুলা, নাচ, গান-বাজনা, বন্ধ করা, দ্রব্যমূল্য হ্রাস করা, সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের


মহান আল্লাহপাক তিনি কালামুল্লাহ শরীফ উনার মধ্যে ইরশাদ মুবারক করেন – يا ا يها الذين امنوا كتب عليكم االصيام كما كتب علي الذ ين من قبلكم لعلكم تتقون অর্থ: হে ঈমানদার বান্দা-বান্দীগণ! আপনাদের জন্য পবিত্র রমাদ্বান শরীফ উনার মাসে পবিত্র ছিয়াম