darud sharif -blog


ঐতিহ্যপ্রেমী ও অস্তিত্বসচেতন একজন মুসলিম। ধর্মনিরপেক্ষ নই, মুসলিম। কোন রাজনৈতিক দলদাস নই। লিখি প্রাণের ভাষা বাংলায়।


 


মুলায়ম সিং এর ডিগবাজী এবং পুনরায় তথাকথিত “ভালো হিন্দু”দের মুখোশ উন্মোচন


গতকাল রাতে খবরে দেখলাম যে – উত্তরপ্রদেশের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী ও সমাজবাদী পার্টির নেতা মুলায়ম সিং নরেন্দ্র মোদীর ভূয়সী প্রশংসা করেছে এবং তাকে পুনরায় প্রধানমন্ত্রী হিসাবে দেখতে চায়। তার এই বক্তব্যে বিষয়টি ছাপিয়ে গোটা উত্তরপ্রদেশে ছড়িয়ে দিয়েছে বিজেপি।   এনডিটিভি লিঙ্ক –



PUBG – একটি ভয়ঙ্কর মারণ খেলা, ইহুদীদের নতুন চক্রান্ত !


PUBG এর পুরো নাম PLAYERUNKNOWN’S BATTLEGROUNDS। এটি ইহুদীদের তৈরি আরও একটি নতুন ষড়যন্ত্র যা মানুষকে মানসিক রোগী বানিয়ে দেয়।   বিশ্ব নিয়ন্ত্রণে ইহুদী পরিকল্পিত নীলনকশা লিপিবদ্ধ হয়েছে তাদের প্রণীত প্রটোকলে। ইহুদীদের “প্রটোকল” এর একটা অংশ হল তারা মানুষকে যেভাবে খুশি ব্যবহার



পোলট্রি মুরগীর মতো মুসলমান !!!


আজ সকালে নিউজে দেখলাম – গত শনিবার রাতে আসামের তিনসুকিয়া জেলার ডুমডুমাতে ২ জন বাঙালী মুসলিমকে ( ইদ্রিস আলী ও শেখ মুহম্মদ) গলা কেটে খুন করেছে রাজু গোর নামে এক হিন্দু ( পদবী অনুযায়ী বোঝা যায় যে মারোয়াড়ী)। তাদের ২ জনকে



চুষিলদের নির্লজ্জ ডাবল ষ্ট্যাণ্ডার্ড এবং মুসলিম বিদ্বেষ


সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়াতে সংগীতকার আল্লারাখা রহমান (এ আর রহমান) কে নিন্দা ও গালিগালাজ করছে তথাকথিত চুষিলরা। এই চুষিলদের মধ্যে ২ ধরণের লোকেরা আছে – হিন্দু ও ভণ্ড নাস্তিক ( ছুপা হিন্দু)।   সংগীতকার আল্লারাখা রহমান (এ আর রহমান) কে তথাকথিত চুষিলরা



মুসলমানদের জন্য ভ্যালেন্টাইন ডে বা তথাকথিত ভালোবাসা দিবস পালন করা সম্পূর্ণরূপে হারাম


গোটা মুসলিম জাতি একটা ভয়ঙ্কর মহামারি ব্যাধিতে ভুগছে, রোগটা একটা মানসিক ব্যাধি, যার নাম হল – “হীনমন্যতা”। এই রোগে বেশি আক্রান্ত আঁতেল সমাজ অর্থাৎ তথাকথিত বুদ্ধিপরজীবী ও চুষিল সমাজ। এদের মাধ্যমে পশ্চিমা বিশ্বের নানাবিধ অপসংস্কৃতি আমাদের মুসলিম যুব সমাজকে আসক্ত করছে।



একজন সাইকোপ্যাথের কবলে গোটা ভারতবর্ষ !


প্রত্যেক সচেতন ভারতীয়দের এই বিষয়টি বুঝতে হবে যে তাদের জন্মভূমি এক গভীর চক্রান্তের শিকার এবং দেশটি পরিচালনা করছে একজন সাইকোপ্যাথ।   একজন সাইকোপ্যাথকে চেনার লক্ষণগুলি কি কি ?   ১। আন্তরিকতা ছাড়াই খুব সহজে এবং কনফিডেন্টলি কথা বলার বৈশিষ্ট রাখে।  



বয়লিং ফ্রগ সিনড্রোম ও মুসলিমদের প্রতিবাদহীনতা


একটা ব্যাঙকে যদি আপনি একটি পানি ভর্তি পাত্রে রাখেন এবং পাত্রটিকে উত্তপ্ত করতে থাকেন তবে ব্যাঙটি পানির তাপমাত্রার সাথে সাথে নিজের শরীরের তাপমাত্রার ভারসাম্য বজায় রাখতে থাকে। ব্যাঙটি লাফ দিয়ে ওই পাত্র থেকে বেরোনোর পরিবর্তে পানির উত্তাপ সহ্য করতে থাকে।  



শহীদে বালাকোট হযরত সাইয়্যিদ আহমদ বেরেলভী রহমতুল্লাহি আলাইহি – তিনি ভারতীয় উপমহাদেশে স্বাধীনতা আন্দোলনের জনক ! – পর্ব


প্রিয় বন্ধুগণ! আমরা নানা সময়ে আউলিয়ায়ে কিরাম রহমাতুল্লাহি আলাইহিম উনাদের নিয়ে আলোচনা করে থাকি কিন্তু মহান মুজাদ্দিদ শহীদে বালাকোট হযরত সাইয়্যিদ আহমদ বেরেলভী রহমতুল্লাহি আলাইহি উনাকে আলোচনা হয় খুবই কম। আলোচনা হওয়া তো দূরের কথা, ব্রিটিশরা ও তাদের অনুগতরা উনার উপরে



মুসলমানরা তো হিন্দুদের খুশি করার জন্য দ্বীন ও ঈমান ত্যাগ করেছে, তবুও কি হিন্দুরা শত্রুতা করা ছেড়ে দিয়েছে ???


মুসলমানরা হিন্দুদের খুশি করতে তাদের ঈমান ও আমল সবকিছু ছেড়ে দিলেও হিন্দুরা কখনোই শত্রুতা করা বন্ধ করে নি, বরং তারা মুসলিম মুক্ত ভারত ও হিন্দু রাষ্ট্র ভারতের স্বপ্ন দেখেছে।   মুসলমানরা একে একে হিন্দুদের ধর্মীয় ও সামাজিক রীতি গ্রহণ করেছে ,



পিরিয়ডের সময় মেয়েদের বাড়ি থেকে বের করে দেয় হিন্দুরা


ভারতের সমস্ত রকম মিডিয়াতে একটি খবর এখন ভীষণভাবে প্রচারিত হয়, সেটা হল – কোর্টের রায় সত্বেও কেরালার শবরীমালা মন্দিরে পিরিয়ড হওয়ার বয়সী কোন মেয়েকে ঢুকতে দেওয়া হবে না।   এর কারণ কেউ খুঁজতে চেয়েছেন কি ?   আমি জানিয়ে দিই এর