শাহ্‌ সাইয়্যিদ মুহম্মদ আব্দুল্লাহ বিন হামিদ (অপূর্ব) -blog


Only Ahle Sunnat Waal Jamaat Is The Right Way.....


 


” আরবী সনের দ্বিতীয় মাস উনার নাম ‘ছফর’ রাখার কতিপয় কারণ “


আরবী সনের দ্বিতীয় মাস ‘পবিত্র ছফর শরীফ’। ‘ছফর’ শব্দটি একবচন। এর বহুবচন আছফার। ‘ছফর’ শব্দের অর্থ এবং এ নামে মাসটির নামকরণ সম্পর্কে কয়েকটি বর্ণনা পাওয়া যায়। (১) ‘ছফর’ অর্থ খালি হওয়া। পবিত্র ছফর শরীফ মাস উনার পূর্ববর্তী ‘পবিত্র মুহররমুল হারাম শরীফ



” মুসলমানদের পারিবারিক বন্ধনের প্রতি হিংসা করেই বিধর্মীরা বাল্যবিবাহের বিরোধিতা করে থাকে “


বাল্যবিবাহ নিয়ে পশ্চিমা বিশ্ব এবং তাদের প্ররোচনায় এদেশেও বহু আলোচনা হচ্ছে। সরকার না বুঝে ব্রিটিশদের তৈরি আইন বলবৎ রাখছে। আমাদের সমাজের রীতিনীতি নিয়া এই সব অসভ্যদের এতো মাথা ব্যথা কেন? যাদের সমাজ থেকে বিবাহ প্রথা উঠে গেছে, যারা সমলিঙ্গে বিয়ের নামে



দুনিয়ার ” রিযিক পৃথিবীতে আসার পূর্বেই দান করা হয়েছে; কিন্তু পরকালের পাথেয় অর্জন করতে হবে দুনিয়া থেকেই “


পার্থিব জীবন-যাপন করতে অর্থের যেমন প্রয়োজন, তেমনি পরকালে মিযানে হিসাব নিকাশে ছওয়াব প্রয়োজন। এই দুনিয়ায় অর্থ উপার্জনের ব্যবস্থা থাকলেও আখিরাতে ছওয়াব অর্জনের ব্যবস্থা নেই। এই পৃথিবীতেই অর্থ এবং ছওয়াব অর্জন করতে হবে। যারা পরকালের বিষয়টায় উদাসীন তাদের দুঃখের সীমা থাকবে না।



” নাফরমানী ও গোলামী “


বিশ্বখ্যাত পর্যটক ইবনে বতুতা এই বাংলার প্রাচুর্যতা দেখে বলেছিলেন- ‘জান্নাতের দরজা’। এই ‘জান্নাতের দরজা’কে করায়ত্ত করার জন্য কাফিরদের ছিলো ব্যাপক খায়েশ। কিন্তু এদেশের মুসলমানদের ঈমানী জোশ আর জযবার কাছে তারা পরাস্ত হয়েছে। কিন্তু শেষ রক্ষা হয়নি। এক সময় মুসলমানরা মহান আল্লাহ



স্রষ্টার কোন সৃষ্টি অযথা, নিষ্প্রোয়জনীয়, উদ্দেশ্যবিহীন নয়!


হযরত মুসা কালিমুল্লাহ আলাইহিস সালাম তিনি একদিন আল্লাহপাক উনাকে প্রশ্ন করলেন… “হে আল্লাহপাক! যদি ৪টি জিনিস হতো আর ৪টি জিনিস না হত তবে খুব ভাল হত, ১) যদি জীবন হত, মৃত্যু না হত । ২) যদি জান্নাত হত জাহান্নাম না হত।



বাংলাদেশ থেকে টাকা চলে যাচ্ছে এতগুলো দেশে!!!


বাংলাদেশ থেকে পাচার হওয়া অর্থ ভোগ করছে ভারত। ভারত ছাড়াও আরো ৩৬টি দেশ পাচার হওয়া অর্থ ভোগ করে যাচ্ছে। এ সংক্রান্ত তথ্য-প্রমাণাদি এখন অনলাইনে ভেসে বেড়াচ্ছে। সবাই দেখছে, আর আশ্চর্য হচ্ছে!! প্রতিবেদনগুলো থেকে জানা গেছে, বাংলাদেশ থেকে পাচার হওয়া অর্থ ভারত



“নিজ দায়িত্ব বাদ দিয়ে অন্যের দায়িত্ব পালন করতে গিয়ে সব কিছু ভণ্ডল করেছে নারী আনোয়ার হুসাইন খান”


বিভ্রান্ত ও আত্মবিস্মৃত নেতৃত্বের বোঝা বইছে হতভাগ্য বাংলাদেশী জনতা। ক্ষমতাসীন কিংবা বিরোধী কোনো দলই নিজ ক্ষমতা বলে নেতৃত্ব দেয় না। ভাগ্যের ইশারায় এরা নেতৃত্ব দিচ্ছে। দুই প্রধান দলের দুই শীর্ষ নেতার একজন পিতার পক্ষে অন্যজন স্বামীর পক্ষে দায়িত্ব পালন করছে। আসলে



পুজিবাদী অর্থ ব্যবস্থায় চলছে দেশ। কোটিপতির সংখ্যা এখন লাখেরও বেশি। অধিকাংশরাই কর ফাঁকি দিচ্ছে। অথচ যাকাতদানের চেতনা তৈরি করলে


সুষম বণ্টন, স্বতঃস্ফুর্ত সমৃদ্ধির উচ্চাশা নিয়েই যাত্রা হয়েছিল স্বাধীনতা-উত্তর উন্নয়ন পরিকল্পনার। তবে উন্নয়ন ব্যবস্থাপনার ত্রুটির কারণে সাম্প্রতিক দশকগুলোয় সামাজিক অসমতা ও বৈষম্য যে পর্যায়ে পৌঁছেছে, তাতে ব্রিটিশ ঔপনেসিক আমলের শোষণ-লুণ্ঠন অর্থনীতিরই যেন পুনরুজ্জীবন ঘটছে। সমাজের বিরাট এক অংশ এখনো ক্ষুধার জ্বালা



দেশপ্রেমিক সেনাবাহিনীর বিরুদ্ধে অপপ্রচারের নেপথ্যে পাহাড়ি উপজাতি গোষ্ঠী


রাঙ্গামাটিতে বিছিন্নতাবাদী সন্ত্রাসী সংগঠন ইউপিডিএফ-এর সন্ত্রাসী কর্মী রোমেল চাকমার মৃত্যু নিয়ে আবারো উপজাতি সন্ত্রাসীগোষ্ঠি এবং তাদের দালালরা দেশপ্রেমিক সেনাবাহিনীর বিরুদ্ধে অপপ্রচার চালাচ্ছে। পার্বত্য চট্টগ্রাম নিয়ে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর বিরুদ্ধে এ প্রচার যুদ্ধ নতুন নয়। ১/১১-পর এই প্রচারণা নতুন মাত্রা পেয়েছে। ইন্টারনেটসহ সব



‘সামরিক বাজেটে ধ্বংস হয়ে যাবে আমেরিকার অর্থনীতি’


মার্কিন কংগ্রেসের সাবেক সদস্য রন পল দেশটির সামরিক ব্যয়কে ‘বিনাশের পথ’ বলে উল্লেখ করে বলেছে, এতে আমেরিকার অর্থনীতি ধ্বংস হয়ে যাবে। নিজ ওয়েবসাইটে প্রকাশিত নিবন্ধে এ মন্তব্য করে পল। সে বলেছে, “পেন্টাগনের সামরিক ব্যয়ের পরিকল্পনা আমেরিকাকে দেশের ভেতর নিজ অর্থনীতি ধ্বংসের



একটি নছীহতপূর্ণ ঘটনা এবং কিছু শিক্ষা


একদা বৃষ্টিসিক্ত দিনে ইমামুশ শরীয়ত ওয়াত তরীক্বত হযরত হাসান বসরী রহমতুল্লাহি আলাইহি তিনি রাস্তা দিয়ে কোথাও যাচ্ছিলেন। বিপরীত দিক থেকে একজন ছেলে আসছিলেন। ছেলেটি কিছুটা এলোমেলোভাবে হাঁটছিলেন। যেহেতু রাস্তা পিচ্ছিল ছিল তাই হযরত হাসান বছরী রহমতুল্লাহি আলাইহি তিনি ছেলেটিকে সাবধানে হাঁটতে



বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধে ভারতের ইতিহাস, লুটপাটের ইতিহাস


স্বাধীনতার পর ভারতীয় সুযোগসন্ধানী বাহিনী ৩ ডিসেম্বর ১৯৭১ থেকে মার্চ ১৯৭২ পর্যন্ত সময় বাংলাদেশে অবস্থান করে। এই সময়ে কি পরিমাণ লুটপাট তারা করে তা বর্ণনাতীত।তাদের লুটপাট মুক্তিযোদ্ধা ও সাধারণ মানুষদেরকে হতবাক করে দেয়। ২১শে জানুয়ারি ১৯৭২ সালে ব্রিটেনের বিখ্যাত গার্ডিয়ান পত্রিকায়