সৈয়দ আবেদ উল্লাহ ( অপূর্ব ) -blog


Only Ahle Sunnat Waal Jamaat Is The Right Way.....


 


“ধর্ম যার যার উৎসব সবার”


ইসলাম ধর্মের ও অন্যান্য ধর্মের অনুসারীরা যারা’ই এ কথাটি বলে থাকে ও বিশ্বাস করে, তাদের সবাইকে অর্থাৎ সকল ধর্মের লোকের প্রতি আমার প্রিয় ধর্ম ‘ইসলামের’ প্রতিদিনের নামাজ উৎসবে ও সকল ঈদ উৎসবগুলোতে শুভেচ্ছা ও দাওয়াত রইল, আপনারা অবশ্যই আসবেন এবং আমাদের



শাসকগোষ্ঠীরা কি মুসলমানদের ঈমানী চেতনাশূণ্য করতে চায়?


খালিক্ব মালিক রব মহান আল্লাহ পাক তিনি ইরশাদ মুবারক করেন, “আর তাদেরকে মহান আল্লাহ পাক উনার দিবসমূহ স্মরণ করিয়ে দিন। নিশ্চয়ই উক্ত দিবসসমূহের মধ্যে প্রত্যেক ধৈর্যশীল, শোকর-গোজার বান্দাদের জন্য নিদর্শনাবলী তথা নিয়ামত রয়েছে।” (পবিত্র সূরা ইবরাহীম শরীফ: পবিত্র আয়াত শরীফ ৫)



কাফির-মুশরিকদের সাথে ‘বন্ধুত্ব’ আত্মঘাতী নীতি!


মানুষ ভুলের ঊর্ধ্বে নয়। কিন্তু মহান আল্লাহ পাক উনার পবিত্র কালাম অর্থাৎ পবিত্র কুরআন শরীফ কিয়ামত পর্যন্ত সত্য এবং কিয়ামত পর্যন্ত কেউ ভুল কিংবা মিথ্যা প্রমাণ করতে পারবে না। যার সত্যতা মহান আল্লাহ পাক তিনি নিজেই জানিয়ে দিয়ে ইরশাদ মুবারক করেছেন-



মুসলমানদের বসিয়ে রেখে বিধর্মীদের হাতেই প্রশাসনিক উচ্চপদগুলো যাচ্ছে কিভাবে?


বর্তমানে এদেশের পুলিশ-প্রশাসনের উচ্চপদ থেকে শুরু করে স্বায়ত্তশাসিত বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের প্রধান হিসেবে বিধর্মীদের আনাগোণা কল্পনাতীত বেশি দেখা যাচ্ছে। হঠাৎ করে মুসলমানদের যোগ্যতা ডাউন (!) হয়ে বিধর্মীদের যোগ্যতার উর্ধ্বমুখী হওয়ার রহস্য কি? কিন্তু ইতিহাস বলে দেয়, দুর্নীতি ও অন্যায় করার সুযোগ সুবিধা



কাফির-মুশরিকদের সাথে ‘বন্ধুত্ব’ আত্মঘাতী নীতি!


মানুষ ভুলের ঊর্ধ্বে নয়। কিন্তু মহান আল্লাহ পাক উনার পবিত্র কালাম অর্থাৎ পবিত্র কুরআন শরীফ কিয়ামত পর্যন্ত সত্য এবং কিয়ামত পর্যন্ত কেউ ভুল কিংবা মিথ্যা প্রমাণ করতে পারবে না। যার সত্যতা মহান আল্লাহ পাক তিনি নিজেই জানিয়ে দিয়ে ইরশাদ মুবারক করেছেন-



পবিত্র যাকাত সংশ্লিষ্ট মাসয়ালা-মাসায়িল সমূহের বিবরণ!


পবিত্র যাকাত উনার নিছাব কাকে বলে: যে পরিমাণ অর্থ-সম্পদ বা নগদ অর্থ কোন ব্যক্তির সাংসারিক সকল মৌলিক প্রয়োজন বা চাহিদা মিটানোর পর অতিরিক্ত সম্পদ যা সাড়ে সাত তোলা স্বর্ণ অথবা সাড়ে বায়ান্ন তোলা রৌপ্য অথবা ঐ সমপরিমাণ অর্থ-সম্পদ নির্দিষ্ট তারিখে পূর্ণ



শাসকগোষ্ঠীরা কি মুসলমানদের ঈমানী চেতনাশূণ্য করতে চায়?


খালিক্ব মালিক রব মহান আল্লাহ পাক তিনি ইরশাদ মুবারক করেন, “আর তাদেরকে মহান আল্লাহ পাক উনার দিবসমূহ স্মরণ করিয়ে দিন। নিশ্চয়ই উক্ত দিবসসমূহের মধ্যে প্রত্যেক ধৈর্যশীল, শোকর-গোজার বান্দাদের জন্য নিদর্শনাবলী তথা নিয়ামত রয়েছে।” (পবিত্র সূরা ইবরাহীম শরীফ: পবিত্র আয়াত শরীফ ৫)



হে মুসলিম! সাবধান! কুফরী অবস্থায় মারা গেলে জাহান্নাম ছাড়া কোনো গতি নেই!


যারা কুফরী করে এবং কুফরীতেই দৃঢ় থাকে তাদের সতর্ক সাবধান করে যিনি খালিক্ব মালিক রব মহান আল্লাহ পাক তিনি ইরশাদ মুবারক করেছেন- “আর যারা কুফরী করে তাদের জন্য রয়েছে জাহান্নামের আগুন। তাদেরকে সেখানে মৃত্যুর আদেশ দেয়া হবে না যে, তারা সেখানে



মুসলমানদের বসিয়ে রেখে বিধর্মীদের হাতেই প্রশাসনিক উচ্চপদগুলো যাচ্ছে কিভাবে?


বর্তমানে এদেশের পুলিশ-প্রশাসনের উচ্চপদ থেকে শুরু করে স্বায়ত্তশাসিত বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের প্রধান হিসেবে বিধর্মীদের আনাগোণা কল্পনাতীত বেশি দেখা যাচ্ছে। হঠাৎ করে মুসলমানদের যোগ্যতা ডাউন (!) হয়ে বিধর্মীদের যোগ্যতার উর্ধ্বমুখী হওয়ার রহস্য কি? কিন্তু ইতিহাস বলে দেয়, দুর্নীতি ও অন্যায় করার সুযোগ সুবিধা



১৯৬৭ সালে আরব ইসরাইলের কথিত ৬ দিনের যুদ্ধ শুরু হয়।


যুদ্ধে একপাশে মিশর,জর্ডান ও সিরিয়া অপরদিকে থাকে ইসরাইল। ইসরাইল প্রথম হামলায় মিশরের বিমান শক্তি নষ্ট করে দেয়। মিশরের এয়ার বেইসে থাকা অবস্থায় হামলায় প্রায় ৩০০ বিমান গ্রাউন্ডে থাকা কালেই নষ্ট হয়ে যায়। মিশরের তৎকালীন প্রেসিডেন্ট নাসের পাকিস্তানকে অনুরোধ করলে পাকিস্তান ৬



ককেশাসের কান্না!


গত ২৩ ফেব্রুয়ারী। ককেশাসের মুসলিমরা ‘কালো দিবস’ উদযাপন করছে। শোকে মুক হয়ে স্বজন হারানোর বিরহ আর বিয়োগব্যথার বহিঃপ্রকাশ করছে। পুরো ককেশাস জুড়ে স্বজন হারানোর বিলাপ আর শোকের মাতম চলছে। কেনো জানেন? ‘ এই দিনে দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধ চলাকালিন সময়ে রাশিয়ার সবচেয়ে নিষ্ঠুর,



” সুস্থ্য থাকতে হলে চাই খাদ্য সচেতনতা: কোমল পানীয় থেকে দূরে থাকুন, রোগ-ব্যাধি থেকে সুস্থ থাকুন “


আমাদের দেশে যেকোন পার্টিতে, অনুষ্ঠানে কিংবা অতিথি আপ্যায়নে কোল্ড ড্রিংক্স, সফট ড্রিংক্স কিংবা এনার্জি ড্রিংক্স পরিবেশন করাটা হালের ফ্যাশন হয়ে দাঁড়িয়েছে। এমনকি ঘরের অতি আদরের সন্তানদেরও অনেকে অতি উৎসাহে এসব ড্রিংক্স পান করায়। কিন্তু এসব পানীয়ের মধ্যে যে কি পরিমাণ এ্যালকোহল