রংধনু -blog


...


 


সরকারের প্রতি- পাঁচ ওয়াক্ত নামায যে মহা পবিত্রতম ২৭শে রজবুল হারাম শরীফ-এ পবিত্র মি’রাজ শরীফ উপলক্ষে নাযিল হলেন সেই


মুসলিম উম্মাহ উনাদের সবচেয়ে বড় অবিস্মরণীয় ও ঐতিহাসিক রাত ও দিন হচ্ছে পবিত্র ২৭শে রজবুল হারাম শরীফ তথা মি’রাজ শরীফ উনার রাত ও দিন। গ্রহণযোগ্য ও বিশুদ্ধ বর্ণনা মতে, নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহু হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার দুনিয়াবী পবিত্রতম



দেশপ্রেমের অভাবেই সংখ্যালঘুরা দেশান্তরি হয় এবং টাকা পাচার করে


বিজাতীয়-বিধর্মীরা বাংলাদেশ থেকে টাকা পাচার করে, সুযোগ পেলে নিজেরাই পাচার হয়। এটা কোনো নির্যাতনের ফল নয়, এটা হলো তাদের আড়াইশ বছর ধরে চলে আসা স্বভাব। যখন বাংলাদেশ স্বাধীন হয়নি তখন তাদের বাপদাদারাও এদেশকে ঘৃণা করতো। বঙ্কিমচন্দ্র তার লেখাতে উল্লেখ করেছে “ঢাকাতে



চাকরিক্ষেত্রে ভারতীয়; এ কেমন দেশপ্রেম? 


এটা এখন ওপেন সিক্রেট খবর যে, বাংলাদেশে নামে-বেনামে, বৈধ-অবৈধভাবে লাখ লাখ ভারতীয় অবস্থান করছে। তারা বিভিন্নভাবে নিজেদের দেশে প্রায় হাজার হাজার মিলিয়ন ডলার আমাদের দেশ থেকে পাচার করছে। ভারতের রেমিট্যান্স উৎসের শীর্ষ পাঁচে রয়েছে বাংলাদেশ। এই সংখ্যা শুধু সরকারি হিসাবে। কিন্তু



খালিক্ব হিসেবে মহান আল্লাহ পাক তিনি একক। আর মাখলূক্বাতের মধ্যে বা মাখলূক্ব হিসেবে নূরে মুজসসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু


পবিত্র হাদীছে কুদসী শরীফ উনার মধ্যে যিনি খালিক্ব মালিক রব মহান আল্লাহ পাক তিনি ইরশাদ মুবারক করেন, আমি গুপ্ত বা পুশিদা ছিলাম। অত:পর আমার মুহব্বত বা ইচ্ছা হলো যে, আমি পরিচিত হই তখন পরিচয় লাভের উদ্দেশ্যে আমি সৃষ্টির যিনি মূল (আমার



অসুবিধা শুধু ইসলাম পালন করলেই কেন?


পবিত্র ঈমানে মুফাসসাল উনার মধ্যে বর্ণিত হয়েছে, ‘আমি বিশ্বাস করলাম মহান আল্লাহ পাক উনার প্রতি, মহান আল্লাহ পাক উনার রাসূল, নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার প্রতি, মহান আল্লাহ পাক উনার পক্ষ থেকে প্রেরিত কিতাবসমূহের প্রতি, হযরত



যে ব্যক্তি আহলে বাইত আলাইহিমুস সালাম উনাদের মুহব্বতে ইন্তিকাল করবে তার কবর হযরত ফেরেশতা আলাইহিমুস সালাম উনারা সর্বদায় যিয়ারতে


এ প্রসঙ্গে পবিত্র হাদীছ শরীফ উনার মধ্যে ইরশাদ মুবারক হয়েছে- عن حضرة جرير بن عبد الله البجلى رضى الله تعالى عنه قال قال رسول الله صلى الله عليه وسلم الا و من مات على حب ال (سيدنا حضرة) مـحمد صلى الله



আসন্ন পবিত্র ঈদে মীলাদে হাবীবুল্লাহ ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম অর্থাৎ পবিত্র সাইয়্যিদুল আ’ইয়াদ শরীফ উনার সম্মানার্থে- নিরাপত্তাসহ সার্বিক


পবিত্র হাদীছ শরীফ উনার মধ্যে ইরশাদ মুবারক হয়েছে- “আমার আগমন মূর্তি ও বাজনা ধ্বংস করার জন্য।” অন্য পবিত্র হাদীছ শরীফ উনার মধ্যে ইরশাদ মুবারক হয়েছে- “গান-বাজনা মনের মধ্যে নেফাকী পয়দা করে।” ইসলামী শরীয়ত উনার মধ্যে গান-বাজনা হারাম ও নিষিদ্ধ ঘোষণা করা



নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার জিসম মুবারক উনার সবকিছু পবিত্র ও তা গ্রহণ করা


পবিত্র হাদীছ শরীফ উনার মধ্যে এসেছে, উহুদের ময়দানে কিছু ছাহাবী নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার মাথা মুবারকের ক্ষতস্থান হতে নির্গত নূরুন নাজাত মুবারক অর্থাৎ রক্ত মুবারক যাতে যমীনে না পড়তে পারে সেজন্য উনারা তা চুষে চুষে



এক নজরে সাইয়্যিদাতুন নিসায়ি ‘আলাল ‘আলামীন, আফদ্বলুন নাস ওয়ান নিসা বা’দা রসূলিল্লাহ ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উম্মুল মু’মিনীন সাইয়্যিদাতুনা


সাইয়্যিদাতুন নিসায়ি ‘আলাল ‘আলামীন, আফদ্বলুন নাস ওয়ান নিসা বা’দা রসূলিল্লাহ ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উম্মুল মু’মিনীন সাইয়্যিদাতুনা হযরত আছ ছামিনাহ্ আলাইহাস সালাম তিনি হচ্ছেন হযরত উম্মাহাতুল মু’মিনীন আলাইহিন্নাস সালাম উনাদের মধ্যে বিশেষ ব্যক্তিত্বা মুবারক। সুবহানাল্লাহ! তিনি শুধু যিনি খালিক্ব মালিক রব



মহাসম্মানিত ও মহাপবিত্র হযরত আহলু বাইত শরীফ আলাইহিমুস সালাম উনাদেরকে মুহব্বত করলে নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি


পবিত্র হাদীছ শরীফ উনার মধ্যে ইরশাদ মুবারক হয়েছে, اَحِبُّوْا اَهْلَ بَيْتِىْ لِحُبِّيْ . অর্থ: তোমরা আমার হযরত আহলু বাইত শরীফ আলাইহিমুস সালাম উনাদেরকে মুহব্বত করো আমার সম্মানিত মুহাব্বতে।” সুবহানাল্লাহ! এখন দেখা যায় যে, সম্মানিত ও মহাপবিত্র হযরত আহলু বাইত শরীফ আলাইহিমুস



শাফিউল উমাম সাইয়্যিদুনা হযরত শাহদামাদ আউওয়াল ক্বিবলা আলাইহিস সালাম তিনি একজন খাছ আওলাদে রসূল। উনাকে সম্মান, মুহব্বত ও অনুসরণ


আখিরী রসূল, সাইয়্যিদুল মুরসালীন, ইমামুল মুরসালীন, নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি ইরশাদ মুবারক করেন, ان اولادى كسفينة نوح عليه السلام من دخلها نجا . অর্থ: “আওলাদে রসূল ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনারা হচ্ছেন হযরত নূহ আলাইহিস



শিক্ষামন্ত্রী নিজেই প্রশ্নফাঁসে জড়িত ?????????


একটি সূত্র দ্বারা প্রমাণিত হয়, শিক্ষামন্ত্রী নিজেই প্রশ্নফাঁসে জড়িত এবং অবশ্যই সেটা কারও কাছ থেকে পাওয়া টাকার বিনিময়ে হয়। সূত্রটা হলো- কেন এ বছর থেকে সব বোর্ডে এক প্রশ্নে পরীক্ষা হচ্ছে ? হয়ত বলবেন- ১) শিক্ষার্থীদের ফলাফলের তারতম্য দূর করা, ২)