রংধনু -blog


...


রংধনু
 


راعي البقر الكذب أمام المجتمع الهندوسي


  মিথ্যাবাদী রাখাল বনাম আমাদের দেশের হিন্দু সম্প্রদায় মিথ্যাবাদী রাখাল অনবরত বাঘ বাঘ বলে চিৎকার করে অন্যদের ডেকে আনতো। লোকেরা এসে দেখত সেখানে কোন বাঘ নেই, তারা বিরক্ত হয়ে ফিরে যেত। অর্থাৎ তাদেরকে তকলিফ দিয়ে রাখালটা মজা নিত। একদিন ঠিকই বাঘ



পবিত্র রমাদ্বান শরীফ উনার সম্মানার্থে যারা খাদ্যদ্রব্যসহ সমস্ত নিত্যপণ্যের মূল্যহ্রাস করবে, বিশেষ ছাড় দিবে তারা বিনা হিসাবে জান্নাতে প্রবেশ


পবিত্র হাদীছ শরীফ উনার মধ্যে বর্ণিত আছে- নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি ইরশাদ মুবারক করেন, “যে ব্যক্তি মহান আল্লাহ পাক উনার খাছ মাস পবিত্র রমাদ্বান শরীফ উনাকে সম্মান করবে তথা যে কোনো দিক থেকে তা’যীম করবে,



মূর্খরাই কি ছয় উছুলী তাবলীগ করে?


যারা তাবলীগ করে তারা নামায আর আমল উনার কথা বলে। ব্লগে আমি একটি পোস্ট দিয়েছিলাম গাট্টিওয়ালাদের কাছে। যাতে নামায উনার কিছু মাসয়ালা জিজ্ঞেস করেছিলাম। যেগুলো হলো- ১) নামায পড়ার সময় মোবাইলে বাজনা রিংটোন বাজলে এর কি হুকুম? ২) যে রুমে নামায



যুদ্ধাপরাধীদের বিচার হইবেক: প্রধানমন্ত্রী


প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, আর যাতে স্বাধীনতাবিরোধী অপশক্তি এ দেশের স্বাধীনতা-সার্বভৌমত্বের ওপর ছোবল হানতে না পারে সেজন্যই যুদ্ধাপরাধীদের বিচার চলছে। এ বিচার সম্পন্ন করে তাদের সম্পূর্ণভাবে নির্মূল করা হবে। ‘যুদ্ধাপরাধীদের বিচার নতুন প্রজন্মের দাবি, জনগণের দাবি, পুরো জাতির দাবি’ বলে উল্লেখ



মুসলমান বাদ দিয়ে শান্তি সম্ভব নয়


প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছে, পৃথিবীতে শান্তি ও স্থিতিশীলতা বজায় রাখতে হলে মুসলমানদের জীবনপ্রণালী ও সংস্কৃতি সম্পর্কে সঠিক জ্ঞান থাকতে হবে। সে বলেছে, ১৫০ কোটি মুসলমানের বিশাল জনগোষ্ঠীকে বাদ দিয়ে স্থায়ী শান্তি প্রতিষ্ঠা করা সম্ভব নয়। আজ মঙ্গলবার গাজীপুরে ইসলামিক ইউনিভার্সিটি অব



ছবি তোলা আর খোদা দাবি করা একই কথা


মহান খালিক্ব, মালিক, রব মহান আল্লাহ পাক তিনি ছবি, তোলা এবং মূর্তি বানানোর জন্য শক্তভাবে নিষেধ করেছেন। ছবি তোলা মানে শিরক করা। খালিক্ব, মালিক, রব মহান আল্লাহ পাক তিনি ক্বিয়ামতের দিন ছবি উত্তোলনকারী, মূর্তি শিল্পীকে তাদের বানানো ছবি বা মূর্তির মধ্যে



জিহাদের ময়দানে মুসলমানদেরকে গায়েবী মদদ


খালিক্ব, মালিক, রব মহান আল্লাহ পাক তিনি সুরা রুম উনার ৪৭ নম্বর আয়াত শরীফ উনার মধ্যে ইরশাদ করেন, كَانَ حَقًّا عَلَيْنَا نَصْرُ الْمُؤْمِنِي “খালিক্ব, মালিক, রব মহান আল্লাহ পাক উনার হক্ব হচ্ছে মু’মিনদেরকে সাহায্য করা।” অন্যত্র খালিক্ব, মালিক, রব মহান আল্লাহ



হজ্জ করার সময় ছবি তোলা বন্ধ করুন।


হজ্জের সময় নাফরমানীমূলক কাজ থেকে বিরত থাকা ব্যতীত মকবুল হজ্জ বা খালিক্ব, মালিক, রব মহান আল্লাহ পাক ও উনার হাবীব হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার সন্তুষ্টি নেই। সেটাই মহান আল্লাহ পাক কালামুল্লাহ শরীফ-এ উল্লেখ করেন, “যে ব্যক্তি হজ্জ করার



মুসলমান দেশের মুসলমান অধিবাসীদের ইসলামের খিলাফ নিয়ম বা পদ্ধতি অবলম্বন করা উচিত নয়


বিশ্বের যতো মুসলমান দেশ রয়েছে তারমধ্যে বাংলাদেশ অন্যতম। এদেশের শতকরা ৯৭ ভাগ অধিবাসী মুসলমান। এদেশের সরকার, প্রধানমন্ত্রী, সেনাপ্রধান সবাই মুসলমান। অর্থাৎ যারা দেশ চালাচ্ছে তারা মুসলমান। সুতরাং এদেশে ইসলামের নিয়ম-নীতি পালন করা এবং জারি করা অত্যন্ত সহজ। কিন্তু দুঃখজনক হলো, এখানকার



ধর্মের নাম ফেরিকারী সন্ত্রাসবাদী সংগঠনগুলো উগ্রতা ছড়াচ্ছে


ধর্মের নাম ফেরিকারী ৪২টি সন্ত্রাসবাদী সংগঠন উগ্রতা ছড়াচ্ছে। যুদ্ধাপরাধী ও তাদের পক্ষাবলম্বনকারী দেশী-বিদেশী অপশক্তি এতে ইন্ধন দিচ্ছে।  গোয়েন্দা রিপোর্টের ভাষ্য- ‘যুদ্ধাপরাধের বিচারের নামে ধর্মভিত্তিক রাজনীতি চিরতরে বিলুপ্ত করার পাঁয়তারা চলছে’ বলে ধুয়া তুলে ষড়যন্ত্রকারীরা ছোট-বড় ৪৪টি সন্ত্রাসবাদী সংগঠনকে একাট্টা করার টার্গেট



মহান আল্লাহ পাক উনার নেয়ামতের শেষ নাই।


মহান আল্লাহ পাক উনার নেয়ামতের অস্বীকার করতে পারবে কেউ??   এক একর জমি জুড়ে আম গাছ ! জেলার বালিয়াডাঙ্গি উপজেলার হরিণমারী সীমান্ত গ্রামে রয়েছে এক একর (তিন বিঘা) জমির ওপর এক বিরাট আম গাছ। ওই গাছটি যেন একটি আমের বাগান। এ বছর



বিশেষ লক্বব মুবারকের বিশেষ অর্থ।


“আস সাফফাহ” লক্বব মুবারক-এর একটি বিশেষ অর্থ হচ্ছে অসীম দাতা।   সাইয়্যিদে মুজাদ্দিদে আ’যম, খলীফাতুল মুসলিমনীন, আমীরুল মু’মিনীন, সাইয়্যিদুল খুলাফা, আওলাদে রসূল, রাজারবাগ শরীফ-এর মামদূহ হযরত মুর্শিদ ক্বিবলা আলাইহিস সালাম উনার একখানা বিশেষ লক্বব মুবারক হচ্ছে “হযরত আস সাফফাহ” আলাইহিস সালাম।