দূর্জয় -blog


...


 


ইয়াযীদ ও তার বাহিনী এখনো সমাজে বিদ্যমান ॥ আর এরাই উলামায়ে ‘সূ’ তথা ধর্মব্যবসায়ী মালানা


পবিত্র মুহররমুল হারাম শরীফ মাস আসলেই ধর্মপ্রাণ মুসলমানগণ উনাদের মন ভারাক্রান্ত হয়ে উঠে। স্মৃতিতে ভেসে উঠে পবিত্র কারবালা উনার হৃদয় বিদারক ঘটনা। এমন ঘটনা মানবজাতির ইতিহাসে দ্বিতীয় আর একটিও নেই। খিলাফতের দাবি সাইয়্যিদুনা হযরত ইমামুছ ছালিছ মিন আহলি বাইতি রসূলিল্লাহি ছল্লাল্লাহু



সিলেবাস থেকে ‘চারু ও কারুকলা’ বিষয়টি বাদ দিতে হবে


এনসিটিবি কর্তৃক প্রণীত মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক পাঠ্যপুস্তকের বিষয় তালিকার মধ্যে একটি বিষয় রয়েছে ‘চারু ও কারুকলা’। ষষ্ঠ শ্রেণী থেকে নবম-দশম শ্রেণী পর্যন্ত শিক্ষার্থীরা এ বিষয়টি পড়তে বাধ্য হচ্ছে। চারু ও কারুকলা বিষয়টির মূল-ই হচ্ছে ছবি আঁকা, নকশা অঙ্কন, পুতুল, মূর্তি, ভাস্কর্য,



পবিত্র কুরবানী নিয়ে কোন পদক্ষেপ নেয়ার পূর্বে সরকারকে ইতিহাস থেকে শিক্ষা নিতে হবে


সরকারী আমলারা ইসলামবিদ্বেষীদের প্ররোচনায় পবিত্র কুরবানীর পশুর হাট কমানো, ঢাকা শহরের বাইরে জনশূন্য এলাকায় হাট বসানো, পরিচ্ছন্নতার মিথ্যা অজুহাতে কুরবানীর পশু জবাইয়ের স্থান নির্দিষ্ট করার মতো জঘন্য পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে। এই পদক্ষেপের কারণে এদেশের মুসলমানরা পবিত্র কুরবানী করতে সমস্যার সম্মুখীন হবে,



‘ভালোবাসা দিবস’ নামক অপসংস্কৃতি তো সংবিধানের সাথেও সাংঘর্ষিক


সংবিধানের ২৩নং অনুচ্ছেদে বলা হয়েছে, ‘রাষ্ট্র জনগণের সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য ও উত্তরাধিকার রক্ষণের জন্য ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।’ সংবিধানের ১৫(গ) ধারায় বলা হয়েছে, “যুক্তিসঙ্গত বিশ্রাম, বিনোদন ও অবকাশের অধিকার।” সংবিধানের ১৮(১) ধারায় বলা আছে, “মদ্য ও অন্যান্য মাদক পানীয় এবং স্বাস্থ্যহানিকর ভেষজের ব্যবহার



নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার সম্মানিত আব্বাজান আলাইহিস সালাম ও সম্মানিতা আম্মাজান আলাইহাস সালাম


মহান আল্লাহ পাক উনার রসূল, নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার সন্তুষ্টি, মুহব্বত, মা’রিফাত, নিসবত, তায়াল্লুক হাছিল করার প্রধান দুটি উসীলা। প্রথমতঃ উনার মহাসম্মানিত আব্বাজান সাইয়্যিদুনা হযরত যবীহুল্লাহ আলাইহিস সালাম ও উনার মহাসম্মানিতা আম্মাজান সাইয়্যিদাতুনা হযরত আমিনা



নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম ও উম্মুল মু’মিনীন আছ ছালিছাহ সাইয়্যিদাতুনা হযরত ছিদ্দীক্বা আলাইহাস সালাম


কুচক্রী ব্রিটিশ সরকার উদ্দেশ্যমূলকভাবেই মেয়েদের বিয়ে বসা বা বিয়ে দেয়ার জন্য কমপক্ষে ১৮ বছর বয়স হওয়ার আইন বা শর্ত করে দেয় এবং ১৮ বছর বয়সের নিচে কোনো মেয়েকে বিয়ে দেয়া, বিয়ে করা বা কোনো মেয়ের জন্য বিয়ে বসা দ-নীয় অপরাধ বলে



মুসলমান মর্দে মুজাহিদ বীরের জাতি। কাফির মুশরিক সন্ত্রাসীদের ভয়ে ভীতু কাপুরুষের মতো পিছু হটতে পারে না


  একবার চিন্তা ফিকির করে দেখুন, ইরাক সিরিয়ার মুসলমান নামধারী যুবক যুবতীগুলো খেলাধূলায় ব্যাস্ত, নাটক সিনেমায় ব্যাস্ত, ইন্টারনেট ফেইসবুক চ্যাটিং এ ব্যাস্ত, গল্প গুজব আড্ডা আর হানিমুনে ব্যাস্ত, ওদের সময় নাই- ইসলাম শিখার, ওদের সময় হচ্ছেনা ইসলাম চর্চা করার, ওদের সময়



‘অনুপ্রবেশকারী’ বাংলাদেশীদের মৃত্যুদণ্ড চায় হিন্দু পরিষদ


  ভারতের হিন্দুদের আরো ‘সমৃদ্ধশালী, সুরক্ষিত এবং সম্মানিত’ করতে বাংলাদেশী ‘অনুপ্রবেশকারী’দের মৃত্যুদ- দেয়ার দাবি করেছে দেশটির হিন্দু সম্প্রদায়ের সংগঠন ‘বিশ্ব হিন্দু পরিষদ’ (ভিএইচপি)। গত ইয়াওমুল আরবিয়া (বুধবার) ভারতের কয়েকটি গণমাধ্যম এ তথ্য জানিয়েছে। অবৈধ পথে ভারতে প্রবেশকারী বাংলাদেশীদের মৃত্যুদ-ের বিধান রেখে



চাঁদ গবেষক ও একজন দর্শকের পর্যালোচনা


দর্শক: আমাদের দেশে একবার চাঁদ দেখা নিয়ে একটু ঝামেলাই হয়েছিলো। মাজলিসু রুইয়াতিল হিলাল (আন্তর্জাতিক) নামক চাঁদ দেখা কমিটি এবং ইসলামিক ফাউন্ডেশনের কর্তৃপক্ষ বলেছিলেন যে চাঁদ দেখা যায়নি; কিন্তু একজন (তথাকথিত) নামকরা আলিম ও রাজনীতিবিদ বলেছিলেন যে- তিনি ৩ ঘণ্টা ধরে চাঁদ



৯৮% মুসলমান অধ্যুষিত এদেশে পবিত্র ঈদে মীলাদুন নবী ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উপলক্ষে সরকার কতদিনের ছুটি দিচ্ছে, দেশবাসী তা


আর কিছুদিন পরেই সারা বিশ্বের মুসলমানগণ ব্যাপক উৎসাহ-উদ্দীপনা সহকারে সর্ববৃহৎ ঈদ উৎসব সাইয়্যিদুল আ’ইয়াদ, সাইয়্যিদে ঈদে আ’যম, সাইয়্যিদে ঈদে আকবর পবিত্র ঈদে মীলাদুন নবী ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উদযাপন করতে যাচ্ছেন। এ উপলক্ষে এখন থেকেই মুসলমানরা প্রস্তুতি গ্রহণ করা শুরু করেছেন।



সউদী প্রিন্সের বিরুদ্ধে মাদক চোরাচালানের মামলা দায়ের করেছে লেবানন


লেবাননে আটক সউদী রাজপুত্র আবদুল মুহসেন বিন ওয়ালিদ বিন আবদুল আজিজ আল সউদ এবং আরো ৯ ব্যক্তির বিরুদ্ধে আনুষ্ঠানিকভাবে মাদক চোরাচালানের অভিযোগে মামলা দায়ের করা হয়েছে। খবর- আল-জাজিরা’র। গত ইয়াওমুল ইছনাইনিল আযীম (সোমবার) লেবাননের বিচার বিভাগের একটি সূত্র জানায়, ‘দশ ব্যক্তি,



শত্রুর প্রতি বিদ্বেষ-ই আমাদেরকে বাঁচিয়ে রাখে। এজন্য শত্রুরা চায়- মুসলমানরা যেন তাদের বন্ধুত্বের ফাঁদে পা দেয়।


একাত্তরে বাঙালি মুসলমানরা পাকিস্তানী বাহিনীর বিরুদ্ধে বিজয় অর্জন করেছিল। এই বিজয় অর্জন সম্ভব হতো না, যদি না বাঙালি মুসলমানরা পশ্চিম পাকিস্তানী যালিম শাসকগোষ্ঠীর বিরুদ্ধে বিদ্বেষ পোষণ করতো। এ প্রসঙ্গে একাত্তরে ‘চরমপত্র’ অনুষ্ঠানের পাঠক এমআর আখতার মুকুলের রচিত ‘গয়রহ’ নামক গ্রন্থের ১৫১-১৫২