দূর্জয় -blog


...


 


শত্রুর প্রতি বিদ্বেষ-ই আমাদেরকে বাঁচিয়ে রাখে। এজন্য শত্রুরা চায়- মুসলমানরা যেন তাদের বন্ধুত্বের ফাঁদে পা দেয়।


একাত্তরে বাঙালি মুসলমানরা পাকিস্তানী বাহিনীর বিরুদ্ধে বিজয় অর্জন করেছিল। এই বিজয় অর্জন সম্ভব হতো না, যদি না বাঙালি মুসলমানরা পশ্চিম পাকিস্তানী যালিম শাসকগোষ্ঠীর বিরুদ্ধে বিদ্বেষ পোষণ করতো। এ প্রসঙ্গে একাত্তরে ‘চরমপত্র’ অনুষ্ঠানের পাঠক এমআর আখতার মুকুলের রচিত ‘গয়রহ’ নামক গ্রন্থের ১৫১-১৫২



ভারতে আবারো ঝরলো মুসলমানের রক্ত ॥ মৃত গরুর চামড়া ছিলা নিয়ে মুসলমানদের উপর হামলা


সম্প্রতি ভারতের উত্তরপ্রদেশের মেইনপুর নামক জায়গায় এক হিন্দু ৪ জন মুসলমানকে একটি মৃত গরুর চামড়া ছিলতে বলে। তাদেরকে বলা হয়, এটি ট্যানারিতে বিক্রি করা হবে। ফলে সহজ-সরল মুসলমানরা হিন্দুদের এই ষড়যন্ত্র বুঝতে না পেরে মৃত গরুর চামড়া ছিলতে শুরু করে। অন্যদিকে



মাহে মুর্হরমুল হারাম শরীফ-এ পবিত্র আশূরা শরীফ উনার নামকরণ ও তার প্রাসঙ্গিক আলোচনা


  আরবী মাসের প্রথম মাস মাহে মুর্হরমুল হারাম শরীফ মাস। পবিত্র কুরআন শরীফ ও পবিত্র হাদীছ শরীফ-এ যে চারটি পবিত্র মাসকে হারাম বা সম্মানিত বলে ঘোষণা করা হয়েছে পবিত্র মুর্হরম শরীফ মাস তন্মধ্যে অন্যতম। আসমান-যমীন সৃষ্টিকাল হতেই এ মাসটি বিশেষভাবে সম্মানিত



বিধর্মীদের দেশ ভারতে ৪০ ভাগ মুসলমান থাকা সত্ত্বেও বিভিন্ন পর্বে সরকারি কোনো ছুটি না থাকলেও মাত্র প্রায় ১.৫ ভাগ


ভারতে ৪০ ভাগ মুসলমান তারা সেখানে গরু কুরবানী করতে পারছে না, পবিত্র ঈদের নামায, পবিত্র জুমুয়ার নামায ইত্যাদি মুসলমানী কোনো পর্বই পালন করতে পারছে না। রাতারাতি মুসলমান এলাকা হত্যাযজ্ঞ চালিয়ে দখল করে নিচ্ছে। মুসলমানী পর্বে ছুটি তো দূরের কথা তাদের সরকারিভাবে



সরকারের একি নির্বুদ্ধিতা?


মাত্র প্রায় ১.৫ শতাংশ হিন্দুকে ঘটা করে পূজা পালনের জন্য বড় অঙ্কের সরকারি অনুদান দেয়া হয়েছে। যা দিয়ে একেক জন হিন্দু ২, ৩, ৪টা পর্যন্ত পূজাম-প বানিয়ে ৯৮ শতাংশ মুসলমান অধ্যুষিত দেশে মূর্তিপূজার ব্যাপক চর্চা ও প্রচারণার সুযোগ পেয়েছে। সরকার সব



পবিত্র ঈদে অসচ্ছল মুসলমান উনাদেরকে সহযোগিতা না করে মাত্র প্রায় ১.৫ ভাগ হিন্দুদেরকে পূজায় সাহায্য করাটা কখনো সম্মানিত দ্বীন


মহান আল্লাহ পাক তিনি ইরশাদ মুবারক করেন, ‘তোমরা নেক কাজে ও পরহেযগারীতে পরস্পর পরস্পরকে সাহায্য করো। বদ কাজে অর্থাৎ পাপে ও শত্রুতায় পরস্পর পরস্পরকে সাহায্য করো না।’ পবিত্র ঈদে অসচ্ছল মুসলমান উনাদেরকে সহযোগিতা না করে মাত্র প্রায় ১.৫ ভাগ হিন্দুদেরকে পূজায়



বাংলাদেশে বাস করছে দুই লাখ বিদেশী। সরকারের সংশ্লিষ্ট মহলের ঢিলেমীর কারণে দিন দিন বাড়ছে অবৈধ বিদেশীদের সংখ্যা। সরকারের


  উদ্বেগজনকহারে হারে বাংলাদেশে বাড়ছে অবৈধভাবে বসবাসকারী বিদেশীর সংখ্যা। পুলিশের বিশেষ শাখা (এসবি) থেকে জানা গেছে, দেশে অবৈধ নাগরিকের সংখ্যা প্রায় দুই লাখ। এর মধ্যে ভারতীয় অবৈধ অভিবাসী প্রায় দেড় লাখ। তারপরে ক্যামেরুন, ঘানা, কঙ্গো, নাইজেরিয়া, আইভরি কোস্ট, সেনেগাল, সিয়েরালিওন, ইথিওপিয়া,



সাইয়্যিদে মুজাদ্দিদে আ’যম আলাইহিস সালাম উনার উসীলায় কুরবানী দিতে পারলো দেশবাসী


কাফির-মুশরিকরা সবসময় মুসলমানদের পবিত্র দ্বীন ইসলাম থেকে দূরে সরিয়ে রাখতে চায়। সেজন্য তারা বিভিন্নভাবে ষড়যন্ত্র করে। আর এই ষড়যন্ত্র থেকে রক্ষা করার জন্য মহান আল্লাহ পাক তিনি প্রতি হিজরী শতকে মুজাদ্দিদ প্রেরণ করেন। বর্তমান শতকে যিনি যমীনের বুকে মুজাদ্দিদ হিসেবে অবস্থান



ইয়েমেনে সউদী ওহাবী বাহিনীর ভয়াবহ হামলা : নিহত ১২০


  ইয়েমেনের দক্ষিণাঞ্চলীয় তায়িজ প্রদেশে সউদী ওহাবী বাহিনীর বর্বর বিমান হামলায় নিহতের সংখ্যা বেড়ে ১২০ জনে দাঁড়িয়েছে। গত জুমুয়াবার সন্ধ্যায় সউদী আরবের নেতৃত্বাধীন ওহাবী জোট এ হামলা চালায়। নাম প্রকাশ না করার শর্তে স্থানীয় একটি সূত্র জনিয়েছে, আল-মুখা জেলায় সউদী ওহাবী



গরু জবাই নিষিদ্ধ করে তারা মুসলমান উনাদের ধর্মীয় অধিকারকেই ক্ষুণ্ন করেছে


মহান আল্লাহ পাক তিনি ইরশাদ মুবারক করেন, “তোমাদের ধর্ম তোমাদের, আর আমাদের দ্বীন আমাদের।” ভারতের মহারাষ্ট্রে গরু জবাই নিষিদ্ধ করার মূল উদ্দেশ্যই হচ্ছে- মুসলমান উনাদের পবিত্র কুরবানীকে বাধাগ্রস্ত করা। মূলত, আমভাবে গরু জবাই নিষিদ্ধ করে তারা মুসলমান উনাদের ধর্মীয় অধিকারকেই ক্ষুণ্ন