ঈদে মিলাদ ১২ -blog


...


 


‘ধর্মনিরপেক্ষ’ কথাটি জন্মলাভ করেছিল ব্রিটিশ আমলের হিন্দুত্ববাদীদের দ্বারা!


এদেশের গতানুগতিক কমিউনিস্টরা যদিও নিজেদেরকে ধর্মনিরপেক্ষ দাবি করে, কিন্তু তবুও তাদেরকে দেখা যায় মূর্তিপূজায় অংশগ্রহণ করতে, রাখীবন্ধনসহ বিভিন্ন বিজাতীয় আচারপ্রথা পালন করতে। বিপরীতে তাদের সমস্ত এলার্জি কেবল পবিত্র দ্বীন ইসলাম উনাকে কেন্দ্র করে। নাউযুবিল্লাহ! কারণ উপমহাদেশের বাংলা ও বিহার অঞ্চলে কমিউনিস্ট



মেসওয়াক করা খাছ সুন্নত মুবারক; মেসওয়াককারীগণ উনাদের সাথে হযরত ফেরেশতা আলাইহিমুস সালাম উনারা মুছাফাহা করে থাকেন।


নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি ইরশাদ মুবারক করেন, “যে ব্যক্তি আমার সম্মানিত সুন্নত মুবারক উনাকে মুহব্বত করলো, সে যেন আমাকেই মুহব্বত করলো। আর যে আমাকে মুহব্বত করলো সে ব্যক্তি আমার সাথে জান্নাতে অবস্থান করবে।” সুবহানাল্লাহ! প্রত্যেক



প্রত্যেক মুসলমান পুরুষ ও মহিলা সকলের জন্যই ফরযে আইন হচ্ছে- যথাযথভাবে পাঁচ ওয়াক্ত পবিত্র ছলাত বা নামায যথা সময়ে


মহান আল্লাহ পাক তিনি ইরশাদ মুবারক করেন, ‘নিশ্চয়ই পবিত্র ছলাত বা নামায মু’মিনদের উপর ফরয নির্দিষ্ট সময়ে’। নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি ইরশাদ মুবারক করেন, পবিত্র ছলাত বা নামায হচ্ছেন সম্মানিত দ্বীন ইসলাম উনার স্তম্ভ, যে



সুমহান মহাপবিত্র জুমাদাল ঊলা শরীফ মাস উনার ৯, ১১, ১২, ২২, ২৮ এবং ২৯ তারিখ মহাসম্মানিত আইয়্যামুল্লাহ শরীফ


মহান আল্লাহ পাক তিনি ইরশাদ মুবারক করেন, ‘মহান আল্লাহ পাক উনার নিদর্শন সম্বলিত দিবসগুলিকে স্মরণ করিয়ে দিন সমস্ত কায়িনাতকে। নিশ্চয়ই এর মধ্যে ধৈর্যশীল ও শোকরগোজার বান্দা-বান্দী উনাদের জন্য ইবরত ও নছীহত রয়েছে।’ সুবহানাল্লাহ! সুমহান মহাপবিত্র জুমাদাল ঊলা শরীফ মাস উনার ৯,



লক্বব মুবারক নিয়ে উলামায়ে সূ’রা মিথ্যা ছড়াতেও ভুল করে ও মিথ্যার আশ্রয় নেয় 


সম্প্রতি নামধারী বংশ পরিচয়হীন তথা ঠিকানাবিহীন তথাকথিত ‘উলামা পরিষদ’ এক লিফলেটে প্রকাশ করেছে; রাজারবাগ শরীফের মুর্শিদ ক্বিবলা আলাইহিস সালাম “তিনি নিজের নামের সাথে যে লক্বব সমূহ লাগিয়েছেন তার মধ্যে কয়েকটি সিফতে বারী তায়ালা এবং নিজেকে লক্ববের মাধ্যমে ‘খোদায়ী’ দাবী করেছেন”। তাদের



এক নজরে আফদ্বলুন নিসা ওয়ান নাস বা’দা রসূলিল্লাহ ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম, সাইয়্যিদাতু নিসায়িল আলামীন, সাইয়্যিদাতু নিসায়ি আহলিল জান্নাহ,


আফদ্বলুন নিসা ওয়ান নাস বা’দা রসূলিল্লাহ ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম, সাইয়্যিদাতু নিসায়িল আলামীন, সাইয়্যিদাতু নিসায়ি আহলিল জান্নাহ, উম্মু আবীহা, বিনতু রসূলিল্লাহ ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম সাইয়্যিদাতুনা হযরত রুক্বইয়্যাহ আলাইহাস সালাম উনার সবচেয়ে বড় পরিচয় মুবারক হচ্ছে, তিনি হচ্ছেন নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ



শ্রেষ্ঠত্বের চিহ্ন হিসেবে মানুষের শির উঁচু রেখেছেন মহান আল্লাহ পাক তিনি। কৃতজ্ঞতায় মানুষ কেন সেই শির নত করে না?


মাতৃগর্ভে একটি মানব এমব্রাইন্ড (ভ্রুণ)-এর কোনো আকৃতি কি দেখেছেন? না দেখলে দেখতে চেষ্টা করবেন। মানুষের জন্য এর মধ্যে কী অমূল্য ইবরত-নছিহত রয়েছে! একটি এমব্রাইন্ড (ভ্রুণ) যেন মনে হয় সিজদাবনত মুষ্টি বন্ধ করে যিকির করছে। আসলেও তাই। না হলে এই অসহায় বস্তুটি



ঘুষ বাণিজ্য দ্বারা যে পুলিশের চাকরি জীবন শুরু হয়, সে পুলিশ অন্যায় রুখবে কেমন করে? পুলিশের উর্ধ্বতন কর্মকর্তা থেকে


বাংলাদেশ পুলিশ বাহিনীতে ১০ হাজার কনস্টেবল নিয়োগে ব্যাপক দুর্নীতির অভিযোগ আসছে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে। এসব অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে নিয়োগপ্রক্রিয়ায় স্বচ্ছতার জন্য সংশ্লিষ্ট বিধিমালায় পরিবর্তন আনা হচ্ছে। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সূত্র জানায়, রাজবাড়ী, ঝিনাইদহ, চাঁপাইনবাবগঞ্জ, ঠাকুরগাঁওসহ সাতটি জেলা থেকে স্থানীয় সংসদ সদস্য ও আওয়ামী লীগের



পহেলা বৈশাখ নামক হিন্দুয়ানী উৎসব পালন করলে নাস্তিক্যবাদী চেতনা জন্ম নেয়, মুসলমান হারায় তার মুসলমানিত্ব


“ধর্ম-বর্ণের বেড়াজালকে ছিন্ন-ভিন্ন করে মানব ঐক্যের দৃঢ় প্রাচীর র্নিমাণের সাজসরঞ্জাম প্রস্তুত করে নিয়ে আসে পহেলা বৈশাখ। পহেলা বৈশাখ বলে যায়- সবার উপরে মানুষ সত্য, তাহার উপরে নাই।” কথাগুলো গত ১০ এপ্রিল (২০১৫ঈ.) দৈনিক যুগান্তরে প্রকাশিত তোফায়েল গাজালী নামক এক মুরতাদ নাস্তিকের



সংবিধানে বর্ণিত রাষ্ট্রীয় সীমানা রক্ষা করা সাংবিধানিক দায়িত্ব হওয়া সত্ত্বেও ভারত ও মিয়ানমারের সাথে বাংলাদেশের ৫৩৯ কিলোমিটার সীমান্ত অরক্ষিত!!!


সংবিধান বর্ণিত রাষ্ট্রীয় সীমানা রক্ষা করা সাংবিধানিক দায়িত্ব হওয়া সত্ত্বেও দেশের সীমান্ত অরক্ষিত রেখে রাজনৈতিক দমন-পীড়নে ব্যস্ত রাখা হয়েছে বিজিবি’কে। ফলে বিএসএফ আন্তর্জাতিক সীমান্ত রেখা অতিক্রম করে দেশের অভ্যন্তরে ঢুকে বাংলাদেশী নাগরিকদের হত্যা ও ব্যাপক নির্যাতনের ‘অধিকার’ লাভ করেছে। সীমান্ত অরক্ষিত



আল হাদিউ, আলুল্লাহি, আকরামুল উম্মাতি, ছালিছুল ক্বওমী, খলীফায়ে ছালিছ, আমীরুল মু’মিনীন হযরত উছমান যুন নূরাইন আলাইহিস সালাম উনার সুমহান


খালিক্ব মালিক রব মহান আল্লাহ পাক রব্বুল আলামীন তিনি ইরশাদ মুবারক করেন, “ইজ্জত ও সম্মান হচ্ছে কেবলমাত্র মহান আল্লাহ পাক রব্বুল আলামীন উনার জন্য এবং উনার রসূল, নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার জন্য আর যারা ঈমানদার



তিস্তা চুক্তিতে সম্মতি জানিয়ে মোদিকে মমতার চিঠি


অবশেষে তিস্তার পানি বণ্টন চুক্তি সইয়ের ব্যাপারে সায় দিলো পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এ বিষয়ে নিজের সম্মতি জানিয়ে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে চিঠি দিয়েছে সে। কলকাতার বাংলা দৈনিক আনন্দবাজার পত্রিকা তাদের অনলাইনে চিঠির কথা উল্লেখ করে গতকাল ইয়াওমুল আরবিয়া (বুধবার) লিখেছে,