সুগন্ধি গোলাপ -blog


...


 


সাইয়্যিদাতু নিসায়িল আলামীন, সাইয়্যিদাতু নিসায়ি আহলিল জান্নাহ, উম্মুল মু’মিনীন সাইয়্যিদাতুনা হযরত খাদীজাতুল কুবরা আলাইহাস সালাম উনার সুমহান শান-মান, ফাযায়িল-ফযীলত


খালিক্ব মালিক রব মহান আল্লাহ পাক তিনি হযরত উম্মাহাতুল মু’মিনীন আলাইহিন্নাস সালাম উনাদের সুমহান শানে ইরশাদ মুবারক করেন, يا نساء النبي لستن كاحد من النساء. অর্থ: “হে হযরত উম্মাহাতুল মু’মিনীন আলাইহিন্নাস সালাম আপনারা দুনিয়ার অন্য কোনো মহিলাদের (মানুষের) মতো নন।” উল্লেখ্য



সাইয়্যিদাতু নিসায়িল আলামীন, ত্বাহিরা, ত্বইয়িবা সাইয়্যিদাতুনা হযরত কুবরা আলাইহাস সালাম তিনি পৃথিবীর সকল মহিলাদের জন্য আদর্শ


  খালিক্ব মালিক রব মহান আল্লাহ পাক তিনি ইরশাদ মুবারক করেন, يا نساء النبى لستن كاحد من النساء অর্থ: “হে নবী পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার আহলিয়াগণ! আপনারা অন্য কোনো মহিলাদের মতো নন।” (পবিত্র সূরা আহযাব শরীফ : পবিত্র আয়াত



ত্বাহিরা, আউওয়ালুল মু’মীনা সাইয়্যিদাতুনা হযরত কুবরা আলাইহাস সালাম উনার বেমেছাল শান-মান মুবারক


মহান রব্বুল আলামীন তিনি স্বয়ং ত্বহিরা, আউওয়ালুল মু’মীনা সাইয়্যিদাতুনা হযরত কুবরা আলাইহাস সালাম উনার শান, মান ও মর্যাদা মুবারককে বুলন্দ করেছেন এবং নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি স্বয়ং উনার উ”ছ¡সিত প্রশংসা করেছেন, ছানা-ছিফত করেছেন। কাজেই কোনো



উম্মুল মু’মিনীন সাইয়্যিদাতুনা হযরত কুবরা আলাইহাস সালাম উনার বৈশিষ্ট্য মুবারক


নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার অন্যান্য হযরত আহলিয়া উম্মাহাতুল মু’মিনীন আলাইহিন্নাস সালাম উনাদের তুলনায় উম্মুল মু’মিনীন সাইয়্যিদাতুনা হযরত কুবরা আলাইহাস সালাম তিনি যে সমস্ত বিশেষ বৈশিষ্ট্য মুবারক উনার অধিকারিণী ছিলেন তাহলো- তিনি নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর



উম্মুল মু’মিনীন সাইয়্যিদাতুনা হযরত কুবরা আলাইহাস সালাম উনার অবদান


নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার যখন আনুষ্ঠানিকভাবে নুবুওওয়াত প্রকাশিত হলো এবং তিনি পবিত্র দ্বীন ইসলাম প্রচার করতে আরম্ভ করলেন তখন উম্মুল মু’মিনীন সাইয়্যিদাতুনা হযরত কুবরা আলাইহাস সালাম তিনিই ছিলেন উনার একমাত্র সাহায্যকারিণী। আরবভূমির বুকে উম্মুল মু’মিনীন



সাইয়্যিদুশ শুহাদা, সাইয়্যিদু শাবাবি আহলিল জান্নাহ, ইমামুছ ছানী সাইয়্যিদুনা হযরত ইমাম হাসান আলাইহিস সালাম উনাকে যারা মুহব্বত ও অনুসরণ


পবিত্র শা’বান শরীফ মাস উনার ১৫ তারিখে পবিত্র বিলাদতী শান মুবারক প্রকাশ করেন নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার সম্মানিত নাওয়াসা, বেহেশতী যুবক উনাদের সাইয়্যিদ, সাইয়্যিদুশ শুহাদা, ইমামুছ ছানী মিন আহলি বাইতি রসূলিল্লাহি ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম



সাইয়্যিদুনা ইমামুছ ছানী মিন আহলি বাইতি রসূলিল্লাহি ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার প্রতি ইমামুল আউওয়াল, বাবুল ইলমি ওয়াল হিকাম


অন্তিম উপদেশ বা পরামর্শকে অসীয়ত বলে। আর সাধারণ উপদেশ বা পরামর্শকে নছীহত বলে। নছীহতের চেয়ে অসীয়তের গুরুত্ব ও তাৎপর্য ব্যাপক অর্থবোধক এবং গুরুত্ববহ। যার ফলে অধিক গুরুত্ব ও তাৎপর্যপূর্ণ এবং গুরুত্ববহ উপদেশের ক্ষেত্রে অসীয়ত শব্দটি ব্যবহার করা হয়ে থাকে। হযরত আহলে



আমীরুল মু’মিনীন, খলীফাতুল মুসলিমীন, সাইয়্যিদু শাবাবি আহলিল জান্নাহ, ইমামুছ ছানী মিন আহলি বাইতি রসূলিল্লাহি ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম


আমীরুল মু’মিনীন, খলীফাতুল মুসলিমীন, সাইয়্যিদু শাবাবি আহলিল জান্নাহ, ইমামুছ ছানী মিন আহলি বাইতি রসূলিল্লাহি ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম সাইয়্যিদুনা হযরত ইমাম হাসান আলাইহিস সালাম তিনি ছিলেন ‘মুস্তাজাবুদ দাওয়াত’। যে মহান ব্যক্তিত্ব উনার সব দোয়াই কবুল করা হয়, উনাকে ‘মুস্তাজাবুদ দাওয়াত’ বলা



আমীরুল মু’মিনীন, খলীফাতুল মুসলিমীন, সাইয়্যিদু শাবাবি আহলিল জান্নাহ সাইয়্যিদুনা ইমামুছ ছানী মিন আহলি বাইতি রসূলিল্লাহি ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া


মহান আল্লাহ পাক তিনি উনার ওলী উনাদেরকে অনেক মর্যাদা-মর্তবা, সম্মান দিয়েছেন। সেই মহান মর্যাদা-মর্তবার বহিঃপ্রকাশ হ”েছ উনাদের কারামত। কারামত সত্য। সমষ্টিগত কারামত উনাকে অবিশ্বাস করা কুফরী। তবে ব্যক্তি বিশেষে কারামতকে অস্বীকার করা আমভাবে কুফরী না হলেও খাছভাবে গুমরাহী বা বিভ্রান্তির কারণ।



পবিত্র ১৭ই রমাদ্বান শরীফ ও কুল-কায়িনাতের জন্য সবচেয়ে বড় ঐতিহাসিক অবিস্মরণীয় দিন!


পবিত্র মাহে রমাদ্বান শরীফ উনার মধ্যে মুসলমানদের জন্য কিš‘ বিশেষ দিন রয়েছে, যা অনেক মুসলমানরাই জানে না। আরবী মাসের নবম মাসটি হলো পবিত্র মাহে রমাদ্বান শরীফ। এ পবিত্র মাহে রমাদ্বান শরীফ উনার ১৭ই রমাদ্বান শরীফ উম্মুল মু’মিনীন সাইয়্যিদাতুনা হযরত কুবরা আলাইহাস



পবিত্র ১৭ই রমাদ্বান শরীফ হয়ে রইল অবিস্মরণীয়


শাহরুল আ’যম মাহে রমাদ্বান শরীফ বিশেষ করে কয়েকটি কারণে সম্মানিত। তবে শুধু পবিত্র ১৭ই রমাদ্বান শরীফ দিনটি ৫টি কারণে সম্মানিত। কারণগুলো হলো- এ দিনে যিনি নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার হৃদয় সঙ্গিনী, জান-মাল উৎসর্গকারিণী সাইয়্যিদাতুনা হযরত



কুল মাখলুক্বাতের সবচেয়ে বড় ঐতিহাসিক ও অবিস্মরণীয় মহান পবিত্রতম দিনটি হচ্ছে পবিত্র ১৭ই রমাদ্বান শরীফ


কুল-মাখলুক্বাতের মূল তথা সৃষ্টির মূল হ”েছন সাইয়্যিদুল মুরসালীন, ইমামুল মুরসালীন, নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি। আর উনারই সর্বপ্রথম পবিত্রতমা আহলিয়া, সর্বপ্রথম উম্মুল মু’মিনীন, সর্বপ্রথম পবিত্র দ্বীন ইসলাম গ্রহণকারিণী, সর্বপ্রথম পবিত্র ঈমান ও ওহী মুবারক উনার মর্মবাণী