হাসনাত -blog


...


 


যারা আজ তথাকথিত তাবলিগীদের ইজতিমায় গিয়েছে তাদের নিকট কিছু প্রশ্ন???


১।“তাবলীগ তথা দ্বীনের দাওয়াত দেয়ার কারণেই হুজুর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম-এর উম্মতকে শ্রেষ্ঠত্ব দেয়া হয়েছে, অন্য কোন কারণে নয়।” নাঊযুবিল্লাহ! ২।”হযরত আদম আলাইহিস সালাম গন্দম খেয়ে ভুল করেছিলেন।” নাঊযুবিল্লাহ! ৩।”দাওয়াতের কাজ বন্ধ করার কারণে আল্লাহ পাক হযরত ইউনুস আলাইহিস সালামকে



আমরা কতই না ভাগ্যবান!!!


আমি নিজেদের নিয়ে চিন্তা করলে অবাক হয়। কতই না ভাগ্যবান আমরা। কারণ ১,যে মহান সত্ত্বা মুবারক আল্লাহপাক উনার হাবীব হুযুরপাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনাকে সৃষ্টি না করলে মহান আল্লাহপাক কোন কিছুই সৃষ্টি করতেন না আমরা উনার উম্মত। আমরা কতই না



হযরত আহলে বাইত শরীফ আলাইহিমুস সালামগণ উনাদের প্রতি মুহব্বত ঈমান, উনাদের শান মুবারক সম্পর্কে চুচেরা করা বেঈমান হওয়ার কারণ


মহান আল্লাহ পাক তিনি রহমান, রহীম আর যিনি মহান আল্লাহ পাক উনার যিনি হাবীব তিনি হচ্ছেন রহমতুল্লিল আলামীন। মহান আল্লাহ পাক তিনি হচ্ছেন দাতা আর নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি হচ্ছেন বণ্টনকারী। কাজেই মহান আল্লাহ পাক



ধর্মব্যবসায়ী ছাত্রশিবিরের অন্তরালের খবর


সহিংস ছাত্র রাজনীতিতে ছাত্রশিবিরের নাম দেশজোড়া। জানা গেছে, ছাত্রশিবিরের কর্মকা- সুচারুরূপে পরিচালনার জন্য দলের বেশ কয়েকটি অনুগত সংগঠন গড়ে তোলা হয়েছে। শিক্ষা, সমাজসেবা ও সাংস্কৃতিক কর্মকা-ের মাধ্যমে মওদুদীবাদী শিবিরের প্রতি সাধারণ মানুষকে আকৃষ্ট করে তোলাই এসব সংগঠনের উদ্দেশ্য। গানে আসক্ত শিশু-কিশোরদের



সাইয়্যিদুল আ’ইয়াদ শরীফ পালন করা সকলের জন্য ফরযে আইন


সমস্ত মাখলুকাতের নবী ও রসূল, নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার মহান বিলাদত শরীফ উনার মাস হচ্ছে পবিত্র রবীউল আউওয়াল শরীফ। এই মাসের বারোই শরীফ তারিখ ইয়াওমুল ইছনাইনিল আযীমি তথা সোমবার শরীফ তিনি যমীনে আগমন করেন। এ



“কায়িনাতে এক বেমেছাল তাজদীদ মুবারক: নুরুশ শেফা এবং নূরুল গইব”


সাইয়্যিদুল মুরসালীন, ইমামুল মুরসালীন, খাতামুন্ নাবিইয়ীন, নূরে মুজাস্সাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাাম তিনি ইরশাদ মুবারক করেন, “নিশ্চয়ই মহান আল্লাহ পাাক তিনি প্রতি হিজরী শতকের শুরু ভাগে এই উম্মতের হিদায়তের জন্য একজন করে মুজাদ্দিদ প্রেরণ করবেন, যিনি সম্মানিত দ্বীন



রাষ্ট্রীয় ধর্মই যদি পবিত্র দ্বীন ইসলাম? তবে কোথায় উনার যথাযথ সম্মান?


শতকরা ৯৭ ভাগ মুসলিম জনগোষ্ঠীবেষ্টিত এই দেশ। এর চেয়ে বড় কথা হচ্ছে- এদেশের রাষ্ট্রধর্ম হলো “পবিত্র দ্বীন ইসলাম”। এতদ্বসত্ত্বেও পবিত্র দ্বীন ইসলাম উনার অনুভূতি লালনের পরিবর্তে পবিত্র দ্বীন ইসলাম উনাকে অবমাননা করা ও ক্ষুণœ করা যেন এদেশের শাসকগোষ্ঠী তথা সরকারের প্রধান



যে প্রশাসন ও সাংবাদিক হিন্দুদের পক্ষে কথা বলবে তাদেরকে বয়কট করুন ও প্রতিবাদ করুন


মালউন হিন্দুরা পবিত্র দ্বীন ইসলাম, মুসলমান উনাদের বিপক্ষে একের পর এক আঘাত করেই যাচ্ছে। শেষপর্যন্ত এরা বরিশালে মুসলমান শহীদ করার সাহস দেখালো? এই ঘটনা যদি ভারতে হতো, তাহলে কি হতো? লক্ষ লক্ষ মুসলমান শহীদ করত। অথচ মুসলমান কিছুই করলো না!! উল্টো



কোনো মুসলমান হারাম খেলাধুলাতে অংশগ্রহণ করতে পারে না


মহান আল্লাহ পাক তিনি ইরশাদ মুবারক করেন, “তোমরা কাফির-মুশরিকদের অনুসরণ কর না” আর পবিত্র হাদীছ শরীফ উনার মধ্যে ইরশাদ মুবারক হয়েছে, “যে ব্যক্তি যে সম্প্রদায়ের সাথে মিল রাখে তার হাশর-নশর তাদের সাথে হবে।” নাউযুবিল্লাহ! মুলত, আমাদের এই দেশের জনগোষ্ঠিরা ৯৭ ভাগই



আজই চলে আসুন আম্মাজী ক্বিবলা উনার ক্বদম মুবারকে


সাম্প্রতিক অনলাইন পত্রিকার মাধ্যমে জানা গেছে- ফিলিপাইনের এক অভিনেত্রী শোবিজ ত্যাগ করে পবিত্র দ্বীন ইসলাম উনাকে গ্রহণ করেছে। সংবাদ মাধ্যমে একটি সাক্ষাতকারে সে জানায়, পবিত্র দ্বীন ইসলাম উনাকে গ্রহণ করে সে শান্তি ও দিক নির্দেশনা পেয়েছে। যা সে শোবিজ জীবনে কখনো



সাইয়্যিদাতু নিসায়িল আলামীন, বিনতু মুজাদ্দিদে আ’যম, আওলাদে রসূল, উম্মু আবীহা হযরত শাহযাদী ঊলা ক্বিবলা আলাইহাস সালাম উনার ফাযায়িল-ফযীলত ও


ফাযায়িল-ফযীলত মহান আল্লাহ পাক তিনি পবিত্র কুরআন শরীফ উনার মধ্যে ইরশাদ মুবারক করেন, “নিশ্চয়ই আমি আপনার যিকিরকে, (সম্মানকে) বুলন্দ করেছি।” (পবিত্র সূরা আলাম নাশরাহ শরীফ : পবিত্র আয়াত শরীফ ৪) মহান আল্লাহ পাক তিনি উনার রসূল, সাইয়্যিদুল মুরসালীন, ইমামুল মুরসালীন, নূরে



ছানী শাহদামাদ ক্বিবলা আলাইহিস সালাম উনার শানে


-মুহম্মদ মুস্তফা হাসনাত।   ৯ই জুমাদাল উলা শরীফ-এ তাশরীফ ধরণীতে ৯ম মেহমান হয়ে তিনি আহালী হুজরাতে। মালিক হয়েও তাশরীফ উনার এমন এক ছুরতে রেযায়ে মামদূহ আক্বা তবে মোদের বুঝাতে। মুর্দা এ দিল এখন এ দুনিয়ার তাছীরে জিন্দা হয় শুধু আপনারই এক