সাময়িক অসুবিধার জন্য আমরা আন্তরিকভাবে দু:খিত। ব্লগের উন্নয়নের কাজ চলছে। অতিশীঘ্রই আমরা নতুনভাবে ব্লগকে উপস্থাপন করবো। ইনশাআল্লাহ।

যুবরাজ খান -blog


...


 


সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ না’ত-ই রসূল ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম পাঠ দ্বারা সমস্ত অনুষ্ঠান শুরু করতে হবে


বাংলাদেশ মুসলমানের দেশ। এ দেশে শতকরা ৯৮ ভাগ মানুষ মুসলমান। আর মুসলমানের দ্বীন হচ্ছে পবিত্র ইসলাম। পবিত্র হাদীছ শরীফ উনার মধ্যে ইরশাদ মুবারক হয়েছে, নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি ইরশাদ মুবারক করেন, “আমাকে প্রেরণ করা হয়েছে



মুসলমানদের অমূল্য সম্পদ জ্ঞানকে অবজ্ঞা করার কারণেই আজ উনারা অবহেলিত


মানুষের সবচেয়ে বড় সম্পদ হলো জ্ঞান। পবিত্র হাদীছ শরীফ উনার মধ্যে ইরশাদ মুবারক হয়েছে, জ্ঞান সকল আমলের ইমাম। মূর্খ ব্যক্তি পশুতুল্য। মানুষের শ্রেষ্টত্বের মূলে রয়েছে জ্ঞান। পশু আর মানুষের পার্থক্যকারী জ্ঞান। মানুষের রয়েছে দশ হাজার কোটি নিউরন। জ্ঞান সম্পদ অর্থ সম্পদের



কানাডার আকাশে মুখোমুখি দুই সূর্য !


  সকালে ঘুম থেকে উঠেই আকাশে এক সঙ্গে দু’দুটো সূর্য! বলেন কী? এমনটা আবার হয় নাকি? সূর্য তো একটাই। এক এবং অদ্বিতীয়। তবে দ্বিতীয়টা এল কোত্থেকে? অবিশ্বাস্য হলেও সত্যি। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ও কানাডার ঘুম ভাঙল এভাবেই। এই ঘটনাকে বলা হয় হানটারস



ডাল-পেঁয়াজের দাম বাড়ায় গোবর এবং গো-মূত্র খাওয়ার পরামর্শ কাটজুর


  ভারতে ডাল এবং পেঁয়াজের দাম বৃদ্ধি পাওয়ায় গোবর এবং গো-মূত্র খাওয়ার অভিনব পরামর্শ দিয়েছে সুপ্রিম কোর্টের সাবেক বিচারপতি মার্কন্ডেয় কাটজু। সে গতকাল এ বিষয়ে টুইটারে সরকারের উদ্দেশ্যে খোঁচা দিয়ে বলেছে, ‘প্রণাম। আজ থেকে গো-মূত্র পান করুন এবং গোবর খান। এসব



প্রসঙ্গ: পবিত্র মসজিদুল হারামে ক্রেইন দুর্ঘটনা ॥ আবারো সউদী ওহাবী ইহুদী সরকারের ষড়যন্ত্র দেখলো বিশ্ববাসী!


সম্প্রতি মসজিদুল হারাম শরীফের ভেতর একটি ক্রেইন ভেঙ্গে পড়েছে এবং এতে নিহতের সংখ্যা ১০৭ বলে সংবাদমাধ্যমে এসেছে। স্বাভাবিকভাবে প্রশ্ন আসে- এখন পবিত্র হজ্জ করার জন্য লক্ষ লক্ষ মানুষ মসজিদুল হারাম শরীফে যাচ্ছে, তাহলে এই সময়ে কেন মসজিদুল হারামের ভেতর ক্রেইন থাকবে?



ভারতের লোকসভায় ২৭ কংগ্রেস সদস্য বহিষ্কার


লোকসভায় ‘চরম বিশৃঙ্খলা সৃষ্টির’ অভিযোগে ২৭ জন কংগ্রেস সদস্য পাঁচ দিনের জন্য বহিষ্কার করা হয়েছে। লোকসভার ওয়েলে নেমে প্ল্যাকার্ড হাতে বিক্ষোভ দেখানোর জন্য তাদের বহিষ্কার করার সিদ্ধান্ত নেয় স্পিকার। এদিকে সর্বদলীয় বৈঠকেও সংসদে অচলাবস্থা কাটার কোনো ইঙ্গিত মিলেনি। গতকাল কেন্দ্রের ডাকা



সন্ত্রাসী, দেশদ্রোহী, উপজাতি-রাজাকারদের কেন বিচার হবে না?


১৯৭১ সালের বাংলাদেশের স্বাধীনতাবিরোধী, মুক্তিযুদ্ধবিরোধী, যুদ্ধাপরাধী উপজাতি রাজাকারদের কথা আমাদের নতুন প্রজন্ম জানেই না। আর এই সুযোগে সন্ত্রাসী উপজাতি রাজাকাররা বহাল তবিয়তেই আছে। দুঃখের হলেও সত্যি, রাজাকাররা এবং তাদের বংশধররা স্বাধীন বাংলাদেশের প্রতিনিধি হিসেবে জাতিসংঘেও পৌঁছে গেছে, যা জাতি হিসেবে আমাদের



আওলাদুর রসূল, হাবীবাতুল্লাহ, উম্মুল উমাম সাইয়্যিদাতুনা হযরত আম্মা হুযূর ক্বিবলা মুদ্দা জিল্লুহাল আলী তিনি ক্বায়িম মাক্বামে ছহিবে ইলমে গইব


মহান আল্লাহ পাক এবং উনার প্রিয়তম হাবীব নূরে মুজাসসাম হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনাদের দয়া-দান-ইহসানে যামানার লক্ষ্যস্থল হিসেবে ওলীআল্লাহগণ উনাদের আগমনের পবিত্র ধারা ক্বিয়ামত পর্যন্ত অব্যাহত থাকবে। আল্লাহ পাক উনার রহমত ও কুদরত এবং উনার প্রিয়তম হাবীব নূরে মুজাসসাম