জুলফিকার -blog


...


জুলফিকার
 


আন নূর, আন নাযীর, নি’মাতুল্লাহ, নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার বংশগত পবিত্রতা মুবারক


মহান আল্লাহ পাক তিনি ইরশাদ মুবারক করেন, وتقلبك فى الساجدين অর্থ: “(হে আমার হাবীব ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম!) আপনার স্থানান্তরিত হওয়ার বিষয়টিও ছিল সিজদাকারীগণ উনাদের মাধ্যমে।” (পবিত্র সূরা শুয়ারা শরীফ : পবিত্র আয়াত শরীফ ২১৯) আলোচ্য পবিত্র আয়াত শরীফ উনার তাফসীরে



নিশ্চয়ই সাইয়্যিদুনা হযরত ফারুকে আ’যম আলাইহিস সালাম তিনি সম্মানিত জান্নাতবাসী উনাদের বাতী তথা আলোকবর্তীকা


মহাসম্মানিত ও মহাপবিত্র হাদীছ শরীফ উনার মধ্যে ইরশাদ মুবারক হয়েছে, قال حضرت علي عليه السلام سمعت النبي صلى الله عليه وسلم يقول حضرت عمر بن الخطاب عليه السلام سراج أهل الجنة فبلغه ذلك فقال أنت سمعت هذا من رسول الله قال



নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি স্বয়ং খোদা তায়ালা নন, তবে তিনি খোদা তায়ালা থেকে


পবিত্র হাদীছে কুদসী শরীফ উনার মধ্যে বর্ণিত হয়েছে- যিনি খলিক্ব মালিক রব মহান আল্লাহ পাক রব্বুল আলামীন তিনি ইরশাদ মুবারক করেন يا حبيبى انا وانت وما سواك خلقت لاجلك قال رسول الله صلى الله عليه وسلم يا رب انت وما انا



প্রখ্যাত ইমাম-মুজতাহিদ উনাদের দৃষ্টিতে পবিত্র হারামাইন শরীফে পবিত্র সাইয়্যিদুল আ’ইয়াদ শরীফ পালনের ইতিহাস


  বাতিল ফিরক্বার লোকেরা বলে থাকে পবিত্র সাইয়্যিদুল আ’ইয়াদ শরীফ নাকি এই সেদিন থেকে প্রচলিত হয়েছে। নাউযুবিল্লাহ! হারামাইন শরীফে এ দিবস পালন হতো না! নাউযুবিল্লাহ! অথচ ইতিহাস সাক্ষী- সম্মানিত দ্বীন ইসলাম উনার শুরু থেকেই হারামাইন শরীফে পবিত্র সাইয়্যিদুল আ’ইয়াদ শরীফ পালন



গান-বাজনা করা ও শ্রবণ করা কবীরা গুনাহ


সম্মানিত শরীয়ত উনার দৃষ্টিতে- গান-বাজনা করা ও শ্রবণ করা কবীরা গুনাহ। গান-বাজনার আসরে বসা ফাসিক্বী এবং গান-বাজনার স্বাদ গ্রহণ করা কুফরী। পবিত্র কুরআন শরীফ উনার একাধিক পবিত্র আয়াত শরীফ উনাদের দ্বারা এবং পবিত্র হাদীছ শরীফ উনাদের দ্বারা গান-বাজনা করা ও শ্রবণ



ওহাবীরা যে ইহুদী-খ্রিস্টানদের মানসসন্তান, তা তারা প্রমাণ করেছে জিসিম মুবারক চুরির মাধ্যমে


সম্প্রতি উগ্রপন্থী ওহাবীরা সিরিয়ার রাজধানী দামেস্কের কাছে সাইয়্যিদুল মুরসালীন, ইমামুল মুরসালীন, খাতামুন নাবিইয়ীন, নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার বিশিষ্ট ছাহাবী ও আমিরুল মু’মিনীন সাইয়্যিদুনা হযরত কাররামাল্লাহু ওয়াজহাহূ আলাইহিস সালাম উনার অন্যতম সেনাপতি শহীদ হযরত হুজর ইবনে



আসাদুল্লাহিল গালিব সাইয়্যিদুনা হযরত আলী কাররামাল্লাহ ওয়াজহাহূ আলাইহিস সালাম তিনি বেমেছাল মর্যাদা ও ফযীলত উনার অধিকারী


মহান আল্লাহ পাক তিনি পবিত্র কুরআন শরীফ উনার মধ্যে ইরশাদ মুবারক করেন, “উনারা (হযরত ছাহাবায়ে কিরাম রদ্বিয়াল্লাহু তায়ালা আনহুম) মহান আল্লাহ পাক উনার প্রতি সন্তুষ্ট মহান আল্লাহ পাক তিনিও উনাদের প্রতি সন্তুষ্ট।” সুবহানাল্লাহ! উপরোক্ত পবিত্র আয়াতে কারীমা উনার হুবহু মিছদাক্ব হচ্ছেন আসাদুল্লাহিল



উপমহাদেশের মুসলমান! হযরত খাজা হাবীবুল্লাহ রহমতুল্লাহি আলাইহি উনার স্মরণে নবায়ন করো নিজ ঈমান


মহা ফযীলতপূর্ণ একটি মাস হলো বর্তমান পবিত্র শাহরুল্লাহিল হারাম রজবুল আছাম্ম। এ মাসের সম্মানিত প্রথম রাত্রিটি দোয়া কবুলের খাছ রাত্রি বলে পবিত্র হাদীছ শরীফ উনার মধ্যে বর্ণিত হয়েছে। এছাড়া এ মাসের সম্মানিত পহেলা জুমুয়া উনার রাত্রি হলো পবিত্র দ্বীন ইসলাম উনার



“হাযা হাবীবুল্লাহ মাতা ফী হুব্বিল্লাহ”


মহান আল্লাহ পাক তিনি পবিত্র কুরআন শরীফ উনার মধ্যে ইরশাদ মুবারক করেন, “সাবধান! নিশ্চয়ই যাঁরা মহান আল্লাহ পাক উনার ওলী উনাদের কোনো ভয় নেই এবং চিন্তা পেরেশানীও নেই।” সুবহানাল্লাহ! (পবিত্র সূরা ইউনুস শরীফ: পবিত্র আয়াত শরীফ ৬২) অর্থাৎ যাঁরা মহান আল্লাহ



আজ সুমহান ঐতিহাসিক বরকতময় পবিত্র ২২শে জুমাদাল ঊখরা শরীফ


আজ সুমহান ঐতিহাসিক বরকতময় পবিত্র ২২শে জুমাদাল ঊখরা শরীফ- আফদ্বালুন নাস বা’দাল আম্বিয়া, খলীফাতু রসূলিল্লাহ, হযরত ছিদ্দীক্বে আকবর আলাইহিস সালাম উনার পবিত্র বরকতময় বিছালী শান মুবারক প্রকাশ করার বরকতময় দিন। খলীফায়ে ছানী, ফারূক্বে আ’যম, আমীরুল মু’মিনীন সাইয়্যিদুনা হযরত উমর ইবনুল খত্তাব



মুসলমানদের ঈমানী দায়িত্ব


বাংলাদেশের রাষ্ট্রধর্ম ইসলামকে বাদ দিয়ে যারা এদেশকে ধর্মনিরপেক্ষ হিসেবে ঘোষনা দিতে চায় তারা ভারতের দালাল, তাদের থেকে সাবধান সতর্ক থাকা এবং এদেরকে প্রতিহত করা মুসলমানদের ঈমানী দায়িত্ব



প্রসঙ্গ: ইসলাম বিদ্বেষ; হিজাব পরোক্ষ সন্ত্রাসবাদ – মার্কিন সামরিক বাহিনী


মার্কিন সামরিক বাহিনীর প্রকাশ করা নীতিনির্ধারণী পত্রে বলা হয়েছে, মুসলমান নারীরা যে হিজাব পরিধান করেন, তা পরোক্ষ সন্ত্রাসবাদে মদদ জোগায়। ২০১১ সালে এয়ারফোর্স রিসার্চ ল্যাবরেটরি এই নীতিনির্ধারণী পত্রটি প্রকাশ করেছিল। ‘চরম সন্ত্রাসবাদ প্রতিরোধ: বৈজ্ঞানিক উপায় ও নীতি’ শীর্ষক পত্রটি গত গ্রীষ্মে