খালিদ -blog


...


খালিদ
 


পবিত্র কুরবানীর স্পট নির্দিষ্ট করা, সরকার পতনের ফাঁদ নয়তো?


বর্তমান সরকারের পতন ঘটনানোর জন্য বিদেশী শক্তিগুলো অনেক দিন ধরেই চক্রান্ত করে যাচ্ছে, কিন্তু তাদের প্রায় চক্রান্ত এখন পর্যন্ত বিফল। সম্প্রতি সরকারের একটি মহল থেকে পবিত্র কুরবানী স্পট নির্দিষ্ট করার জন্য উঠে পড়ে লেগেছে। অথচ এ ধরনের সিদ্ধান্ত জনবহুল বাংলাদেশে বড়



আহলু বাইতি রসূলিল্লাহ ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম, মুজাদ্দিদে আ’যম মামদূহ মুর্শিদ ক্বিবলা সাইয়্যিদুনা ইমাম খলীফাতুল্লাহ হযরত আস সাফফাহ আলাইহিছ


সম্মানিত হাদীছ শরীফ উনার মধ্যে ইরশাদ মুবারক হয়েছে, عَنْ حَضْرَتْ عَبْدِ اللهِ بْنِ مَسْعُوْدٍ رَضِىَ اللهُ تَعَالـٰى عَنْهُ قَالَ قَالَ رَسُوْلُ اللهِ صَلَّى اللهُ عَلَيْهِ وَسَلَّمَ نَضَّرَ اللهُ امْرَءًا سَـمِعَ مِنَّا حَدِيْثًا فَبَلَّغَهٗ كَمَا سَـمِعَهٗ فَرُبَّ مُبَلَّغٍ اَوْعـٰى مِنْ سَامِعٍ. অর্থ:



ক্বিয়ামুল লাইল বা রাত্রিকালীন নামায হলো তাহাজ্জুদ নামায, তারাবীহ নামায নয়


  পবিত্র বুখারী শরীফ উনার মধ্যে উম্মুল মু’মিনীন সাইয়্যদাতুনা হযরত ছিদ্দীক্বা আলাইহাস সালাম উনার থেকে ক্বিয়ামুল লাইল বা রাত্রিকালীন নামায সম্পর্কে যে পবিত্র হাদীছ শরীফ বর্ণিত রয়েছে, তা তাহাজ্জুদ নামায সম্পর্কেই বর্ণিত হয়েছে, তারাবীহ নামায সম্পর্কে নয়। কারণ পবিত্র হাদীছ শরীফখানা



শুধু ২০১৫ সালে যুক্তরাষ্ট্রে  এ পর্যন্ত ৩৫৫ বন্দুক হামলা, নিহত ১২ হাজার


* নির্বিচারে গুলির এত ঘটনা বিশ্বের আর কোথাও ঘটছে না -ওবামা সন্ত্রাস দমনসহ বিভিন্ন ইস্যুতে বিশ্বের মোড়ল হিসেবে আবির্ভূত যুক্তরাষ্ট্র যে সন্ত্রাসমুক্ত নয়, তা নিয়ে আলোচনা-সমালোচনা বেশ আগে থেকেই চলছে। মার্কিন জনগণকে নিরাপত্তা দিতে দেশটির সরকার কখনোই সফলতা দেখাতে পারেনি, বরং



মহাসম্মানিত পবিত্র কুরআন শরীফ উনার আলোকে সাইয়্যিদুল আম্বিয়া ওয়াল মুরসালীন, নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম


খালিক্ব মালিক রব মহান আল্লাহ পাক তিনি ইরশাদ মুবারক করেন, “(হে আমার হাবীব ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম! আপনি জানিয়ে দিন, আমি তোমাদের নিকট কোনো বিনিময় চাচ্ছি না। আর চাওয়াটাও স্বাভাবিক নয়; তোমাদের পক্ষে দেয়াও কস্মিনকালে সম্ভব নয়। তবে তোমরা যদি ইহকাল



এক সন্তান নীতিতে কেমন ছিল চীনের জীবন


বিবিসি’র হংকং সংবাদদাতা জুলিয়ানা লিউ-এর জন্ম ১৯৭৯ সালে। তখন চীনে এক সন্তান নীতি। তার মা-বাবা দ্বিতীয় সন্তান নিতে পারলো না। লিউ-এর বাবা-মা দু’জনেই তখন চাকরি করে। তারা যদি দ্বিতীয় সন্তান নিতো, তাহলে চাকরি হারাতে হতো। “আমার মা দু’বার সন্তানসম্ভাবা হয়েছিলো। কিন্তু



কথিত দুর্গাপূজার নামে অশ্লীল-অশালীন আয়োজন সরকারিভাবেই নিয়ন্ত্রণ করতে হবে


বাঙালি হিন্দুর দুর্গাপূজা শুরু হয়েছে ষোড়শ শতাব্দী থেকে। এ কথিত ঐতিহ্য একান্তভাবেই বাঙালি হিন্দুদের। উপমহাদেশের অন্য অঞ্চলের হিন্দুদের মধ্যে দুর্গাপূজার প্রচলন নেই। এরপর ঊনবিংশ শতাব্দীতে কলকাতা শহরকে কেন্দ্র করে যে নব্যধনীদের উদ্ভব ঘটে, তারা দুর্গাপূজার নামে অশ্লীলতাকে আরো বিস্তার করে। অশ্লীল



মুসলমান উনাদের পোশাকের হুকুম


পোশাক যে অনেক বড় নিয়ামত তা বর্ণনা করে মহান আল্লাহ পাক তিনি ইরশাদ মুবারক করেন, “হে মানুষেরা! আমি তোমাদের জন্য পোশাকের ব্যবস্থা করেছি, তোমাদের দেহের যে অংশ প্রকাশ করা দূষণীয় বা নিষেধ তা ঢাকার জন্য এবং তা সৌন্দর্যেরও উপকরণ। বস্তুত তাকওয়ার



মুসলমানদের ক্বিবলা পরিবর্তন হয়ে গেছে….


পবিত্র কা’বা শরীফের দিকে ফিরে নামায পড়তে হয়। অন্য কোনো দিকে ফিরে হাজার হাজার রাকায়াত নামায পড়লেও নামায আদায় হবে না। বিশ্বজুড়ে মুসলিম উম্মাহ অনেক কিছুতে এগিয়ে যাচ্ছে। তারা যুগের সাথে তাল মিলিয়ে উচ্চ শিক্ষা অর্জন করেছে, ডিগ্রি নিচ্ছে, পিএইচডি করছে,



হিন্দুদের পূজায় সাহায্য করা শিরকী গুনাহ


  পবিত্র হাদীছ শরীফ উনার মধ্যে ইরশাদ মুবারক হয়েছে, ‘পৃথিবীর এক প্রান্তে যদি কোনো ভালো কাজ হয় এবং অন্য প্রান্ত থেকে যদি কেউ তা সমর্থন করে, তবে সে ওই ভালো কাজের জন্য নেকী বা সওয়াব পাবে। আবার পৃথিবীর এক প্রান্তে যদি



হযরত আহলে বাইত ও আওলাদে রসূল ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনাদের বিরোধিতাকারীরা জাহান্নামী


বিখ্যাত ছাহাবী হযরত ইবনে আব্বাস রদ্বিয়াল্লাহু তায়ালা আনহু উনার থেকে বর্ণিত, নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি ইরশাদ মুবারক করেন- لوان رجلا صعد بين الركن والمقام فصلى وصام ثم مات وهو مبغض لاهل بيت النبى صلى الله



‘বর্জ্য ফেলার মতো মৃতদেহ সরিয়েছে সউদী ’


মিনায় পদদলিত হয়ে নিহত হাজিদের মৃতদেহ সরানো ঘটনায় সউদী আরবের ভূমিকার সমালোচনা করেছেন ধর্মসচিব চৌধুরী বাবুল হাসান। তিনি বলেন, সউদী প্রশাসন নিষ্ঠুর আচরণ করেছে। দুর্ঘটনাস্থল থেকে বর্জ্য ফেলার মতো করে হাজিদের মৃতদেহ সরানো হয়েছে। গতকাল ইয়াওমুল আহাদ (রোববার) দুপুর ১টার দিকে