সাকালাইন -blog


দেশপ্রেম ও ইসলামি চেতনায় উজ্জীবিত...


 


ভারতের যবন, ম্লেচ্ছ, অচ্ছুত হিন্দুরা এখনো কন্যা শিশু হত্যা করছে ! চলছে অশ্লীল ‘ধ্রুপদী প্রথা’!


মহাভারতে ধ্রুপদীর ছিল পাঁচ স্বামী। মা কুন্তির আদেশে পাঁচ ভাই, যাদের বলা হয় ‘পঞ্চ পান্ডব’, নিজেদের মধ্যে ভাগ করে নিয়েছিলো বড় ভাইয়ের স্ত্রী ধ্রুপদীকে। যবন হিন্দুদের কথিত ধর্মগ্রন্থ পুরাণে এ প্রথার প্রমাণ পাওয়া যায়। কিন্তু অবাক করা ব্যাপার হচ্ছে, স্ত্রী ভাগাভাগির



ভারতে নির্যাতিত মুসলিম


পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য সরকারের লোয়ার ডিভিশন ক্লার্ক নিয়োগে ৮৩৪ জনের মধ্যে মুসলিম মাত্র ১৬ জন! পশ্চিমবঙ্গে সংখ্যালঘুদের কিভাবে সংরক্ষণ দেওয়া যায় না নিয়ে যেমন বিস্তর আলোচনা চলছে সরকারি মহলে তেমনি সাম্প্রতিক চাকুরি নিয়োগে সরকারের আন্তরিকতা নিয়েও ব্যাপক প্রশ্ন উঠতে পারে। পশ্চিমবঙ্গ সরকারের



ভারতে বাংলাদেশের জাতীয় পতাকার নকশা পদদলিত॥ জাতীয় পতাকার চরম অবমাননা!


ভারতের যবন, ম্লেচ্ছ, অস্পৃশ্য হিন্দুদের ‘তারা টিভি’র একটি হারাম গানের অনুষ্ঠানে বাংলাদেশের জাতীয় পতাকার নকশায় নির্মিত একটি কার্পেটের উপর দাঁড়িয়ে হারাম গান করে ভারতীয় যবন, ম্লেচ্ছ, অস্পৃশ্য হিন্দু গোষ্ঠী বাংলাদেশের প্রতি চরম বিদ্বেষ প্রকাশ করেছে। ইচ্ছাকৃতভাবে কোন একটি দেশের জাতীয় পতাকাকে অবমাননা



জীবনে তৃপ্তি পেয়ে আত্মহত্যা করল এক ভারতীয় দম্পতি!


ভারতীয় একটি দৈনিক পত্রিকা দৈনিক সাময়িক প্রসঙ্গে প্রকাশিত এ খবরটি পড়ে কিছুটা অবাক হলাম। মানুষ কিরকম নির্ভোধ হলে এমন কাজ করতে পারে? খবরটি পড়ে দেখুন…মজা পাবেন.. এ বিষয়ে আপনার মন্তব্য দিন…



যুদ্ধাপরাধী বিচার বানচাল করতে বিশেষ অর্থ বরাদ্দ পায় জেএমবি, হুজি, হিযবুত তাহরীর


মওদুদীবাদী ধর্মব্যবসায়ী জামাতের অর্থে ও মদদে পরিচালিত হচ্ছে জেএমবি, হুজি, হিযবুত তাহরীরসহ জঙ্গি সংগঠনগুলো। জামাতের অর্থে ও মদদে সংগঠিত হয়ে নাশকতার অপচেষ্টায় লিপ্ত আছে জঙ্গিরা। ফলে দেশে যে কোন সময়ে বড় ধরনের নাশকতা ও ধ্বংসাত্মক কর্মকা- চালানোর আশঙ্কা করা হচ্ছে। জঙ্গিদের



ভারতে প্রতিদিন ৪০০ অবিবাহিতা মেয়ে গর্ভপাত ঘটাচ্ছে: রিপোর্ট হিন্দুস্তান টাইমস


প্রতিদিন ৪০০ অবিবাহিতা মেয়ের গর্ভপাত ! প্রকৃত সংখ্যা হয়ত এর চেয়ে অনেক বেশি হবে। ইন্ডিয়ার হিন্দুস্তান টাইমসে আরো উল্লেখ করা হয়েছে যে, কুমারী মেয়েরা গর্ভপাতের বিষয়ে এখন আর কোন লজ্জা বোধ করে না। এটা আজকাল অনেকটা স্বাভাবিক ঘটনায় পরিণত হয়েছে। তবে



জামাতের ফাঁদ!


প্রসঙ্গত, জামাতসহ বিভিন্ন ধর্মব্যবসায়ী দলের সঙ্গে সুসম্পর্ক থাকা ও দলীয় কর্মকান্ডে তারেক রহমান ও তার ঘনিষ্ঠজনদের অতিমাত্রায় খবরদারির কারণে, ওয়ান-ইলেভেনের পর দেশে বিদেশে ইমেজ সঙ্কটে পড়ে বিএনপি। এ কারণে ২০০৮ সালের ২৯ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত নবম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিএনপিকে বড় ধরনের



ভবিষ্যতে দেশ ও জাতির জন্য যারা হুমকি স্বরুপ তাদের চিনে রাখুন ১


প্রথম পর্ব রাজাকারদের পরবর্তী প্রজন্ম অর্থাৎ তাদের ছেলে-মেয়েদের সম্পর্কে তথ্যবহুল একটি পোষ্ট পেলাম এক ব্লগে। ভাবলাম এটা প্রচার করার মতো একটি পোষ্ট তাই কপি পেষ্ট করে হলেও দিয়ে দিলাম। তবে এই ব্লগে যেহেতু প্রাণীর ছবি দেয়া নিষেধ তাই তাদের ছবি সহ



রাজাকার , যুদ্ধাপরাধীরা ধর্মর শত্রু, দেশের শত্রু, মানবতার শত্রু; দেখুন তাদের কুকর্ম-২


দেলোয়ার হোসেন সাইদী ওরফে দেইল্যা রাজাকারের  ভয়ংকর রূপ দেখেছেন কি? ১৯৭১ সালে জামাত বাংলাদেশের স্বাধীনতার বিরোধিতা করতে গিয়ে মুক্তিযুদ্ধের বিপক্ষে যে ভূমিকা পালন করেছিল, তার কিছু নমুনা হিসেবে বর্তমানে জামাতের রাজনীতির সাথে জড়িত মাওলানা দেলাওয়ার হোসাইন সাঈদীর অপর্কীতি তুলে ধরা হল:-



রাজাকার , যুদ্ধাপরাধীরা ধর্মর শত্রু, দেশের শত্রু, মানবতার শত্রু; দেখুন তাদের কুকর্ম-১


আসসালামুয়ালাইকুম। ব্লগে এ্ই নতুন নিক দেখে অনেকেই দুশ্চিন্তায় পড়তে পারেন। এজন্য আমার পরিচয় দিচ্ছি। আমি কীটনাশক। তবে মশা-মাছি, ছারপোকা… এদের না, যারা দেশ ও জাতীর কলঙ্ক (কীট স্বরুপ), ধর্মের নামে ব্যবসা করে(ধর্মের মধ্যে কীট স্বরুপ) তথা যারা জাহান্নামের কীট; আমি এসব