কুমিল্লাবাসী -blog


...


কুমিল্লাবাসী
 


সাইয়্যিদুনা হযরত জাদ্দু রসূলিল্লাহ ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি হচ্ছেন সর্বকালের সর্বযুগের সর্বশ্রেষ্ঠ ব্যক্তিত্ব মুবারক


সাইয়্যিদুনা হযরত জাদ্দু রসূলিল্লাহ ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি এবং জাদ্দাতু রসূলিল্লাহ ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম সাইয়্যিদাতুনা হযরত ফাত্বিমা বিনতে আমর আলাইহাস সালাম উনারা ছিলেন ওই যামানায় মহান আল্লাহ পাক উনার আখাচ্ছুল খাছ লক্ষ্যস্থল, উনার সর্বাধিক মাহবূব ও মাহবূবাহ। উনাদের সম্মানার্থে



সাইয়্যিদাতু নিসায়িল আলামীন, উম্মুল মু’মিনীন সাইয়্যিদাতুনা হযরত খাদিজাতুল কুবরা আলাইহাস সালাম সালাম উনার সাওয়ানেহে উমরী বা জীবনী মুবারক (২)


জীবনী মুবারক (২) সম্মানিত ওয়ালিদ আলাইহিস সালাম: উম্মুল মু’মিনীন সাইয়্যিদাতুনা হযরত কুবরা আলাইহাস সালাম সম্মানিত ওয়ালিদ আলাইহিস সালাম সম্পর্কে কিতাবে উল্লেখ করা হয়, كان أبوها خويلد عليه السلام من سادة قريش وسيد بني عبد العزى بن قصي وأحد أشراف قريش অর্থ:



সাইয়্যিদাতু নিসায়িল আলামীন, উম্মুল মু’মিনীন হযরত খাদিজাতুল কুবরা আলাইহাস সালাম উনার সংক্ষিপ্ত সাওয়ানেহে উমরী বা জীবনী মুবারক (১)


খালিক্ব মালিক রব মহান আল্লাহ পাক তিনি ইরশাদ মুবারক করেন, يَااَيُّهَا النَّاسُ قَدْ جَاءَتْكُمْ مَوْعِظَةٌ مّـِنْ رَّبّـِكُمْ وَشِفَاء لّـِمَا فِى الصُّدُوْرِ وَهُدًى وَّرَحْمَةٌ لّـِلْمُؤْمِنِيْنَ. قُلْ بِفَضْلِ اللهِ وَبِرَحْمَتِهٖ فَبِذٰلِكَ فَلْيَفْرَحُوْا هُوَ خَيْرٌ مّـِمَّا يَـجْمَعُوْنَ. অর্থ: “হে মানুষেরা! হে সমস্ত জিন-ইনসান, কায়িনাতবাসী!



সিসিটিভি কস্মিনকালেও সিকিউরিটি নয়; বরং সুস্পষ্ট একটি প্রতারণা


ইহুদী-খ্রিস্টানরা খুব ভালো করেই জানে- যেখানে ছবি থাকে সেখানে রহমতের ফেরেশতা প্রবেশ করে না এবং সেখানে হাজারো ইবাদত-বন্দেগী করলেও তা কবুল হয় না। তাই তারা সূক্ষ্মভাবে মুসলমানদের ইবাদতের স্থলে হারাম সিসিটিভি লাগিয়েছে। আর ছবি সম্পর্কে খালিক্ব মালিক রব মহান আল্লাহ পাক



সুমহান বেমেছাল বরকতময় ২২শে জুমাদাল ঊলা শরীফ-


নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি ইরশাদ মুবারক করেন- হযরত আহলু বাইত শরীফ ও আওলাদে রসূল ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনাদের মুহব্বত হচ্ছেন ঈমান। আর উনাদের প্রতি বিদ্বেষ পোষণ করা কুফরী।   সিবতু রসূলিল্লাহ ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া



মুসলমান মরলে শহীদ বাঁচলে গাজী


মুসলমানরা মহান আল্লাহ পাক উনাকে ব্যতীত কাউকে ভয় ও পরওয়া করতে পারে না। কোনো বাতিল, নাহক্ব মেনে নিতে পারেন না, কোনো বেদ্বীন-বিজাতি, কাফির-মুশরিককে তোয়াজ-তোয়াক্কা করতে পারেন না।   মুসলমান সর্বদা ন্যায়ের পথে মহান আল্লাহ পাক ও উনার হাবীব ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া



নিজ মাথা পিতার জন্য প্রতিদিন দোয়া করুন…….




বরকতময় ২২শে জুমাদাল উলা শরীফ




হযরত উম্মাহাতুল মু’মিনীন আলাইহিন্নাস সালাম! নিশ্চয়ই আপনারা অন্য কোনো নারীদের মতো নন।’ সুবহানাল্লাহ!


মহান আল্লাহ পাক তিনি পবিত্র ‘সূরা আহযাব’ শরীফ উনার ৩০ নম্বর পবিত্র আয়াত শরীফ উনার মধ্যে ইরশাদ মুবারক করেন, ‘হে আমার হাবীব ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার আহলিয়াগণ সুমহান বেমেছাল বরকতময় ২২শে জুমাদাল ঊলা শরীফ-   সাইয়্যিদাতুন নিসা, উম্মুল মু’মিনীন হযরত



পরিশুদ্ধ অন্তর ব্যতীত কোনো কামিয়াবী নেই


পরিশুদ্ধ অন্তর ব্যতীত কোনো কামিয়াবী নেই মহান আল্লাহ পাক তিনি পবিত্র কুরআন শরীফ উনার মাঝে ইরশাদ মুবারক করেছেন, “ক্বিয়ামতের দিন কেউ কোনো ধন-সম্পদ, সন্তান-সন্ততি দিয়ে ফায়দা হাসিল করতে পারবে না একমাত্র ঐ ব্যক্তি ছাড়া, যে সুস্থ অন্তকরণ নিয়ে এসেছে।” (পবিত্র সূরা



ইহকালে যা উপার্জন করা হয়েছে, পরকালে তাই খরচ করতে হবে। মুফতে কিছু মিলবে না


ইহকালে যা উপার্জন করা হয়েছে, পরকালে তাই খরচ করতে হবে। মুফতে কিছু মিলবে না আমরা এক মাসে যা আয় করি পরবর্তী মাসে তা থেকে ব্যয় করি। কোনো মাসে আয় কম হলে পরবর্তী মাসে কষ্টে জীবন চলে। মানব জীবনের অন্য দিক ইহজীবন



“মহান আল্লাহ পাক তিনি কি করে ঐ সম্প্রদায়কে হিদায়েত দান করবেন ??


‘সূরা আলে ইমরান শরীফ’ উনার ৮৬, ৮৭ ও ৮৮ নম্বর পবিত্র আয়াত শরীফ উনার মধ্যে ইরশাদ মুবারক হয়েছে, যারা ঈমান আনার পর কুফরী করে এবং নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনাকে সত্য বলে সাক্ষ্য দেয়ার পর উনার