কুমিল্লাবাসী -blog


...


কুমিল্লাবাসী
 


প্রসঙ্গঃ গার্মেন্টেসে অ্যাকর্ড ও অ্যালায়েন্সের করাল থাবা ও বাংলাদেশী গার্মেন্টসের প্রতি চরম বৈষম্য, শোষণ ও বঞ্চনা এবং প্রধানমন্ত্রীর দাম


রানা প্লাজা ধসে মারাত্মক দুর্ঘটনার পর ইউরোপীয় গার্মেন্ট ক্রেতাদের জোটগত সংগঠন অ্যাকোর্ড এবং উত্তর আমেরিকান ক্রেতাদের জোট অ্যালায়েন্সকে দেশের গার্মেন্ট কারখানাগুলোর কমপ্লায়েন্স মান পরীক্ষার অনুমোদন দেয়া হয়। ২০১৩ সালের মাঝামাঝি সময় থেকে তারা কাজ শুরু করে। গত দুই বছরে তারা ন্যাশনাল



বিশ্ব ঐতিহ্যে সউদী হামলা, ইউনেস্কোর নিন্দা; নিহত ১৭


ইয়েমেনে সউদী বিমান হামলা অব্যাহত রয়েছে। গতকাল সা’দা প্রদেশের বাকেম জেলার একটি বাজারে সউদী বিমান হালায় ১২ জন নিহত ও ১৫ জন আহত হযেছে। এছাড়া, গতকাল রাজধানী সানায় ইউনেস্কোর বিশ্ব-ঐতিহ্যের তালিকাভুক্ত এলাকায় বোমা বর্ষণ করেছে আগ্রাসী বাহিনী। এর ফলে অন্তত পাঁচ



ইমামুছ ছালিছ মিন আহলি বাইতি রসূলিল্লাহি ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম হযরত ইমাম হুসাইন আলাইহিস সালাম উনার সংক্ষিপ্ত পবিত্র সাওয়ানেহে


হাবীবী কুরবানী মুবারক উনার ফলাফল: আল্লামা হযরত জামী রহমতুল্লাহি আলাইহি তিনি বর্ণনা করেন, একদিন নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি ইমামুছ ছালিছ মিন আহলি বাইতি রসূলিল্লাহি ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনাকে ডান পার্শ¦ মুবারকে ও স্বীয় লখতে



‘আধিপত্য বজায় রাখতে যুক্তরাষ্ট্র যুদ্ধ বাধিয়ে রাখতে চায়’


প্রাচ্য ও ব্রিকসভুক্ত দেশগুলোর ক্রমবর্ধমান অর্থনৈতিক উন্নয়নের কারণে, যুক্তরাষ্ট্র তার আধিপত্য বজায় রাখতে বিশ্বজুড়ে যুদ্ধ বাধিয়ে রাখতে চায় বলে দাবি করেছে এক মার্কিন সাংবাদিক। যুদ্ধবিরোধী আন্দোলনের কর্মী ও রেডিও সাংবাদিক ডন ডি’বার প্রেস টিভিকে দেয়া এক টেলিফোন সাক্ষাৎকারে এ দাবি করে।



আনছার আলীর কুফরী আক্বীদা; যা তার ‘ওসিয়তনামা’ ও ‘দি গাইড’ নামক বইতে লিপিবদ্ধ রয়েছে


(১৩) “হযরত রসূল পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার জন্য আল্লাহ তায়ালা জাহান্নামের আগুন হারাম বা নিষেধ করে দেবেন।” (নাউযুবিল্লাহ!) (আব্দুল কাহহার ছিদ্দিক্বীর ওসিয়তনামার ২নং ওসিয়ত কলেমা প্রসঙ্গ, যা মারকাজে ইশআতে ইসলাম, দারুস সালাম, মিরপুর হতে প্রকাশিত) (১৪) “আল্লাহ পাক সর্বত্র



চর্যাপদের সেই পুরানো কথা- ‘হরিণের নিজের গোশতই হরিণের শত্রু’


দক্ষিণ আফ্রিকার দেশ আইভরি কোস্ট নামের দেশটা অনেকের কাছেই পরিচিত। কারণ দীর্ঘদিন যাবৎ গৃহযুদ্ধে লিপ্ত দেশটিতে শান্তিরক্ষী বাহিনী হিসেবে দায়িত্ব পালন করছে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর সৈনিকবৃন্দ। সঙ্গে আছে বিমান বাহিনীর একটি চৌকোস দল। প্রায় ১ কোটি লোকের আবাস এই দেশটির আয়তন বাংলাদেশের



একটি খুনের তদন্তের জন্য আমেরিকার এফবিআই বাংলাদেশে! দেশের গোয়েন্দা-পুলিশদের যোগ্যতা নিয়ে প্রশ্ন


এক কুলাঙ্গার নাস্তিকের হত্যাকারীদের খুঁজে বের করতে বিশ্ব সন্ত্রাসবাদী যুক্তরাষ্ট্রের গোয়েন্দা সংস্থা এফবিআই এসেছে বাংলাদেশে। বিষয়টা নিয়ে আমাদের চৌকশ ও দক্ষ গোয়েন্দা, পুলিশ প্রসাশনের যোগ্যতা নিয়ে প্রশ্ন উঠা স্বাভাবিক বৈকি। আমাদের গোয়েন্দা সংস্থা লজ্জিত কিনা জানি না তবে দেশের নাগরিক হিসেবে



মহাসম্মানিত ইসলামী শরীয়ত উনার দৃষ্টিতে মদ বা নেশাজাতীয় সবকিছুই সম্পূর্ণরূপে হারাম।


অথচ বর্তমানে বাংলাদেশে কোমল পানীয় ও এনার্জি ড্রিংকস-এর নামে প্রকাশ্যে শরাব বা মদ বিক্রি হচ্ছে। নাঊযুবিল্লাহ! নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি ইরশাদ মুবারক করেন, “প্রত্যেক নেশাজাতীয় বস্তু অর্থাৎ মদ বা মাদকদ্রব্যই সেবন করা হারাম।” বাংলাদেশের ৯৮



মু’মিনদের মধ্যে যে ব্যক্তি বিধর্মীদেরকে বন্ধু হিসেবে গ্রহণ করবে সে তাদের দলভুক্ত বলেই গণ্য হবে।’


মহান আল্লাহ পাক তিনি ইরশাদ মুবারক করেন, ‘হে ঈমানদারগণ! তোমরা ইহুদী-নাছারা তথা বিধর্মীদের বন্ধু হিসেবে গ্রহণ করো না। তারা একজন আরেকজনের বন্ধু। নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি ইরশাদ মুবারক করেন, ‘যে ব্যক্তি যে সম্প্রদায়ের সাথে মিল-মুহব্বত



হিন্দুত্ববাদ – একটি ভিত্তিহীন প্রথা !!!!


ঐতিহাসিক ও গবেষকরা হিন্দুত্ববাদের মূল উৎস খুঁজতে গিয়ে যখন এর কোন কিনারা করতে পারছিলেন না তখন তারা প্রাচীন বই-পুস্তক ও নিদর্শনসমূহ ঘেটে এই সিদ্ধান্তে উপনীত হন যে, এই হিন্দু জাতী আর্যগোষ্ঠি থেকে ঈসায়ীপূর্ব ১৫০০ সালের দিকে এ দেশে আগমন করে এবং



মুসলমানদের এত হীনমন্যতা কেন? মুসলমানরা অতীতেও সমৃদ্ধশীল ছিল এখনও আছে আর ভবিষ্যতেও থাকবে ইনশাআল্লাহ


পৃথিবীর শুরু থেকেই আল্লাহ পাক এবং উনার হাবীব হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনাদেরকে বিশ্বাস স্থাপনকারীরাই মু’মিন মুত্তাকী মুসলমানরা ছিল প্রত্যেক যামানার সবচেয়ে ধনী ও সমৃদ্ধশীল জাতি। বিদ্যা-বুদ্ধি, জ্ঞন-গরীমা, শিক্ষা-দীক্ষা, সভ্যতা-শৃঙ্খলা ও ধন-সম্পত্তিতে এক অনন্য ও অনুপম বীর এবং বাদশাহী



পবিত্র কুরআন শরীফ ও পবিত্র সুন্নাহ শরীফ উনাদের দৃষ্টিতে পর্দার বিধান মেনে চলা ফরয। শরঈ পর্দার বিধান মেনে চলার


যে ব্যক্তি মহান আল্লাহ পাক উনার নির্দেশ মুবারক উনার খিলাফ করে বা বিরোধিতা করে সে কাফির।’ বোরকা’র বিরোধিতা বা সমালোচনা করার অর্থ হচ্ছে- পর্দার বিরোধিতা বা সমালোচনা করা। নাউযুবিল্লাহ! পর্দার বিরোধিতা বা সমালোচনা করার অর্থ হচ্ছে, মহান আল্লাহ পাক উনার ও