মেঘমালা -blog


...


 


এদেশে রাজনৈতিক পিতার সমালোচনা করলে শাস্তি হয়, কিন্তু দ্বীন ইসলাম নিয়ে কটূক্তি করলে শাস্তি হয় না!!


দেশের মানুষ এখন অনেক বেশি রাজনীতিতে সচেতন হয়েছে, আইন আদালতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল হয়েছে, রাজনৈতিক ব্যক্তিত্বদের সম্মান দিতে শিখেছে। তাইতো এদেশে কোনো রাজনৈতিক নেতা-কর্মীদের সমালোচনা হলে, কটূক্তি করা হলে প্রশাসন তাদের হন্যে হয়ে খুঁজে, তাদের জেল দেয়, জরিমানা দেয়। কেউ আদালত অবমাননা



পবিত্র ‘ঈমানী কুওওয়াত’ উনার বৃদ্ধির জন্য দরকার নিয়মিত ক্বলবী জিকির করা


বর্তমান সময়ে মুসলমানদের চেপে ধরেছে কাফির-মুশরিকরা। কিন্তু মুসলমানরা কাফির-মুশরিকদের ষড়যন্ত্রের বিরুদ্ধে শক্ত অবস্থান নিতে পারছে না, জবাব দিতে পারছে না। এর মূল কারণ হচ্ছে বর্তমানে মুসলমানদের ঈমানী শক্তি বা কুওওয়াত শূন্যের কোঠায় পৌঁছেছে। মুসলমানগণ চাইলেও কাফিরদের বিরুদ্ধে কিছু করতে পারছে না।



অক্ষরজ্ঞান শিক্ষার নামে ইসলামবিরোধী চর্চা!!


নতুন পাঠ্যবইয়ের মধ্যে অনেক সময়ই দেখা যায় অসংখ্য ইসলামবিরোধী ও মুসলিম সংস্কৃতির বিপরীত বিষয়। তন্মধ্যে শুধুমাত্র বর্ণ পরিচয় বা অক্ষর জ্ঞান অংশেই যে সকল ইসলামবিরোধী ও বিধর্মীয় বিষয় শেখানো হচ্ছে তার একটি সংক্ষিপ্ত তালিকা এখানে তুলে ধরা হলো- ১) ঋ-তে শেখানো



‘উলুধ্বনি’কেও মূর্খরা হালাল বলতে চায়!!!


কিছু মূর্খ আছে বলে থাকে “শব্দের সঙ্গে ধর্মের কি সম্পর্ক? শব্দ একটি ভাষা আর ভাষা হলো সাহিত্য। এসব জাহিলরা আরও বলে- কা’বা শরীফে গিয়েও তো উলুধ্বনি দেয়া হয়।” নাউযুবিল্লাহ! নাউযুবিল্লাহ! নাউযুবিল্লাহ! ভুলে গেলে চলবে না- ‘শব্দ’ অবশ্যই দ্বীন/ধর্মের সাথে সম্পর্কযুক্ত এবং



সাইয়্যিদাতু নিসায়িল আলামীন, সাইয়্যিদাতুনা হযরত উম্মুল মু’মিনীন আত তাসিয়াহ আলাইহাস সালাম উনার সাওয়ানেহ উমরী মুবারক


পরিচিতি মুবারক: সাইয়্যিদাতু নিসায়িল আলামীন, সাইয়্যিদাতুনা হযরত উম্মুল মু’মিনীন আত তাসিয়াহ আলাইহাস সালাম উনার নাম মুবারক হযরত রায়হানা বিনতে শামউন বিন যায়িদ আলাইহাস সালাম। তিনি ইয়াহুদী সম্প্রদায়ভূক্ত ছিলেন। তিনি পিতার দিক থেকে বনু নাদ্বীর গোত্রের এবং আহালের দিক থেকে বনু কুরায়জা



‘সীমান্তে র‌্যাব রক্তাক্ত হলেও সরকারের প্রতিবাদ নেই’


সীমান্তে আইন শৃঙ্খলাবাহিনীর সদস্যরা ভারতীয় বর্ডার গার্ড কর্তৃক রক্তাক্ত হলেও সরকারের প্রতিবাদ নেই বলে মন্তব্য করেছেন বাংলাদেশ জাতীয় দলের চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট সৈয়দ এহসানুল হুদা। গতকাল ইয়ামুছ ছুলাছা (মঙ্গলবার) জাতীয় প্রেস ক্লাবে ২০দলীয় জোট আয়োজিত এক স্মরণসভায় তিনি এ মন্তব্য করেন। সরকারের



সাইয়্যিদুল আসইয়াদ, সাইয়্যিদুশ শুহূর, শাহরুল আ’যম মহাপবিত্র রবীউল আউওয়াল শরীফ পুরো মাসব্যাপী ছুটি মুসলমানদের ঈমানী দাবি


পবিত্র কালিমা শরীফ ‘লা ইলাহা ইল্লাল্লাহু মুহাম্মাদুর রসূলুল্লাহ ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম’ উনার সবটুকুই স্বীকার করলে তবেই ঈমানদার। আর এ পবিত্র কালিমা শরীফ উনার মধ্যে মহান আল্লাহ পাক উনার নাম মুবারক উনার সাথে উনারই নাম মুবারক সংযুক্ত যিনি সাইয়্যিদুল মুরসালীন, ইমামুল



দ্বীনদার মুসলমানরা হয়রানির শিকার। হারাম ছবির পরিবর্তে ফিঙ্গারপ্রিন্টের ব্যবস্থা চাই


পবিত্র হাদীছ শরীফ উনার মধ্যে ইরশাদ মুবারক হয়েছে, “প্রত্যেক ছবি তুলনেওয়ালা তোলানেওয়ালা জাহান্নামী।” সুতরাং হারাম, নাজায়িয কাজ ও জাহান্নামী হওয়ার কারণ এই ছবি থেকে বেঁচে থাকা সকলের জন্য ফরয ওয়াজিব। মূলত, এই হারাম ছবির জন্য প্রতিনিয়ত হয়রানির শিকার হতে হচ্ছে ধর্মপ্রাণ



আজ সুমহান বরকতময় পবিত্র ১৬ই মুহররমুল হারাম শরীফ। সুবহানাল্লাহ! সাইয়্যিদাতু নিসায়িল আলামীন, সাইয়্যিদাতুনা হযরত উম্মুল মু’মিনীন আছ ছানিয়া আশার


মহান আল্লাহ পাক তিনি ইরশাদ মুবারক করেন, ‘মহান আল্লাহ পাক উনার বিশেষ বিশেষ রাত ও দিনগুলো তাদেরকে স্মরন করিয়ে দিন।’ সুবহানাল্লাহ! আজ সুমহান বরকতময় পবিত্র ১৬ই মুহররমুল হারাম শরীফ। সুবহানাল্লাহ! সাইয়্যিদাতু নিসায়িল আলামীন, সাইয়্যিদাতুনা হযরত উম্মুল মু’মিনীন আছ ছানিয়া আশার আলাইহাস



পবিত্র মুহররমুল হারাম শরীফ মাস উনার সাথে সংশ্লিষ্ট বিশুদ্ধ আক্বীদাসমূহ


১. সমস্ত হযরত নবী রসূল আলাইহিমুস সালাম উনারা মাছুম বা নিষ্পাপ। উনাদের কোনো প্রকার দোষ-ত্রুটি এমনকি কোনো অপছন্দনীয় কাজ ও নেই। উনারা হচ্ছেন পবিত্র ওহী মুবারক দ্বারা নিয়ন্ত্রিত। (আকাইদে নসফী) ২. হযরত মুয়াবিয়া রদ্বিয়াল্লাহু তায়ালা আনহু তিনি ছিলেন জলীলুল ক্বদর ছাহাবী,



পবিত্র “আশূরা” নামকরণের কারণ


আশূরা (عَاشُوْرَاءِ) শব্দ মুবারক আশারাহ (عَشَرِةَ) শব্দ থেকে নিঃসৃত। আর দশকে আরবী ভাষায় বলে আশারাহ (عَشَرِةَ)। সুতরাং আশূরা মিনাল মুহররম হলো মুহররমুল হারাম উনার ১০ তারিখ। তবে ইসলামী চন্দ্র মাসের বাকী ১১ মাসেও ১০ তারিখ আছে কিন্তু সে তারিখগুলো আশূরা হিসেবে



হযরত উম্মাহাতুল মু’মিনীন আলাইহিন্নাস সালাম উনাদের সম্মানিত পবিত্রতা মুবারক এবং শ্রেষ্ঠত্ব মুবারক


মহান আল্লাহ পাক তিনি ইরশাদ মুবারক করেন, اِنَّاۤ اَعْطَيْنٰكَ الْكَوْثَرَ অর্থ: “নিশ্চয়ই আমি আপনাকে সম্মানিত মুবারক কাউছার হাদিয়া মুবারক করেছি।” সুবহানাল্লাহ! (সম্মানিত ও পবিত্র সূরা কাওছার শরীফ : সম্মানিত ও পবিত্র আয়াত শরীফ ১) এই সম্মানিত কাওছার মুবারক উনার লক্ষ-কোটি ব্যাখ্যা