মেঘমালা -blog


...


 


পবিত্র হজ্জ করার সময় ছবি তোলা বন্ধ করুন


পবিত্র হজ্জ উনার সময় নাফরমানীমূলক কাজ থেকে বিরত থাকা ব্যতীত মকবুল পবিত্র হজ্জ বা খালিক্ব মালিক রব মহান আল্লাহ পাক উনার ও উনার রসূল, নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনাদের সন্তুষ্টি মুবারক নেই। সেটাই মহান আল্লাহ পাক



সউদী ওহাবী সরকারের অমাবস্যার রাতে চাঁদ দেখার ঘোষণা কোটি কোটি হাজী সাহেবের পবিত্র হজ্জ নষ্ট করার পাঁয়তারা


ইহুদীর বংশধর সউদী ওহাবী মুনাফিক সরকার একবার পবিত্র যিলহজ্জ মাস উনার চাঁদ দেখার ঘোষণা দিয়েছিল, সেদিন ছিলো অমাবস্যার সন্ধ্যা। অর্থাৎ চাঁদ ছিলো মাত্র আধা ডিগ্রি উপরে। অথচ চাঁদ দৃশ্যমান হওয়ার জন্য কমপক্ষে ৮ ডিগ্রি উচ্চতায় চাঁদের অবস্থান থাকতে হবে। অমাবস্যার রাতে



‘কুরবানীর হাট কমানো ও শহরের বাইরে নেয়া’ এটা মূলত কুরবানী বন্ধ করার ষড়যন্ত্র


এ দেশে হিন্দুয়ানী চেতনাকে প্রবেশ করানোর প্ল্যান নিয়ে মাঠে নেমেছে ভারতীয় মুশরিক গোষ্ঠি। এই মুশরিক গোষ্ঠির পক্ষ হয়ে এদেশে তাদের কিছু এজেন্ট কাজ করে যাচ্ছে। এ মুনাফিকদের প্রধান কাজ হলো- এ দেশের মুসলমানদের দ্বীনি তথা ইসলামী নিদর্শনগুলি সম্পর্কে অপপ্রচার চালিয়ে মুসলমানদের



এক নজরে সাইয়্যিদাতুন নিসায়ি ‘আলাল ‘আলামীন, আফদ্বলুন নাস ওয়ান নিসা বা’দা রসূলিল্লাহ ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উম্মুল মু’মিনীন সাইয়্যিদাতুনা


সাইয়্যিদাতুন নিসায়ি ‘আলাল ‘আলামীন, আফদ্বলুন নাস ওয়ান নিসা বা’দা রসূলিল্লাহ ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উম্মুল মু’মিনীন সাইয়্যিদাতুনা হযরত আছ ছামিনাহ্ আলাইহাস সালাম তিনি হচ্ছেন হযরত উম্মাহাতুল মু’মিনীন আলাইহিন্নাস সালাম উনাদের মধ্যে বিশেষ ব্যক্তিত্বা মুবারক। সুবহানাল্লাহ! তিনি শুধু যিনি খালিক্ব মালিক রব



সুলত্বানুল আউলিয়া, মাহবূবে আ’লা, মাশুকে মাওলা, আওলাদু রসূলিল্লাহ ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম সাইয়্যিদুনা হযরত সাইয়্যিদুল উমাম আল আউওয়াল আলাইহিস


মহান আল্লাহ পাক তিনি ইরশাদ মুবারক করেন- ومن الناس من يشرى نفسه ابتغاء مرضات الله والله رؤف بالعباد অর্থ: “মানব জাতির মধ্যে এমন এক শ্রেণীর লোক রয়েছেন, যারা মহান আল্লাহ পাক উনার সন্তুষ্টি মুবারক হাছিলের জন্য স্বীয় জীবনকে উৎসর্গ করে দেন।



পাড়ার বখাটে ছেলে…..!


এখনো স্পষ্ট মনে আছে। আমি স্কুলে যাওয়া শুরু করার কয়েকদিন পর থেকেই আমার দাদা আমাকে প্রায়ই বিভিন্ন উপদেশ দিয়ে বলতো- দুষ্ট ছেলেদের থেকে দূরে থাকবে। দাদার এ কথা শুনে চিন্তা করতাম- দুষ্ট ছেলে কাকে বলে? এ সম্পর্কে জিজ্ঞেস করলে দাদা উত্তর



মুসলমানদের প্রতি বিধর্মী-বিজাতীরা যে কত কঠিন বিদ্বেষ পোষণ করে সেটা তাদের লেখা না পড়লে বুঝা মুশকিল।


পূণ্যবতী হযরত জেবুন্নিসা রহমতুল্লাহি আলাইহার চরিত্র অধিকতর জঘন্যভাবে চিত্রিত করতে বঙ্কিম মালউন কণামাত্র দ্বিধাবোধ করেনি। না করবারই কথা। মুসলমানের প্রতি অন্ধ বিদ্বেষে আগাগোড়া বাদশাহ আওরংজেব-আলমগীর রহমতুল্লাহি আলাইহি ও উনার বিদূষী কন্যা হযরত জেবুন্নিসা রহমতুল্লাহি আলাইহার চরিত্র জঘন্যরূপে বিকৃত করে বঙ্কিম মালউন



বাংলাদেশে জিএমও ফুড প্রচলনের সকল ষড়যন্ত্র বন্ধ করতে হবে


মহান আল্লাহ পাক তিনি মহা পবিত্র কালামুল্লাহ শরীফ উনার মাঝে মহাপবিত্র ইরশাদ মুবারক করেন, “তোমরা তোমাদের সবচেয়ে বড় শত্রু হিসেবে পাবে ইহুদী অতঃপর মুশরিকদেরকে।” (পবিত্র সূরা মায়িদা শরীফ: পবিত্র আয়াত শরীফ ৮২) তারই প্রতিফলন ঘটেছে বাস্তবে বার বার বহুভাবে। যেমন, বর্তমানে



নূরুল কায়িনাত, আন নূরুল মুত্বহ্হারহ, নূরুল্লাহ, নূরুল উমাম, আন নূরুল মুকাররামহ, উম্মু আবীহা, আন নূরুর রবি‘য়াহ সাইয়্যিদাতুনা হযরত যাহরা


মুজাদ্দিদে আ’যম মামদূহ মুর্শিদ ক্বিবলা সাইয়্যিদুনা ইমাম খলীফাতুল্লাহ হযরত আস সাফফাহ আলাইহিছ ছলাতু ওয়াস সালাম তিনি ইরশাদ মুবারক করেন, আনুষ্ঠানিকভাবে সম্মানিত নুবুওওয়াত ও রিসালত মুবারক প্রকাশ পাওয়ার পর নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি তা সর্বপ্রথম উম্মুল



আন নূরুর রবি‘য়াহ সাইয়্যিদাতুনা হযরত যাহরা আলাইহাস সালাম উনার কতিপয় খাছ গুণাবলী মুবারক


সাইয়্যিদাতু নিসায়ি আহলিল জান্নাহ তথা জান্নাতী মহিলা উনাদের সাইয়্যিদা হচ্ছেন উম্মু আবীহা আন নূরুর রবি‘য়াহ সাইয়্যিদাতুনা হযরত যাহরা আলাইহাস সালাম তিনি। উনার লক্বব মুবারক বা গুণাবলী মুবারক অগণিত। তন্মধ্যে কয়েকটি হলো- এক. উম্মু আবীহা : অর্থাৎ তিনি উনার পিতা সাইয়্যিদুনা রসূলুল্লাহ



সাইয়্যিদুল মুরসালীন, ইমামুল মুরসালীন, খাতামুন নাবিয়্যীন, নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার সাথে আহলু বাইতি


মহাসম্মানিত হযরত আহলু বাইত শরীফ আলাইহিমুস সালাম উনাদের সম্মানিত শান মুবারক-এ আখাচ্ছুল খাছ বিশেষ তিনখানা সম্মানিত ও পবিত্র হাদীছ শরীফ, যেই সম্মানিত ও পবিত্র হাদীছ শরীফসমূহ মুজাদ্দিদে আ’যম মামদূহ মুর্শিদ ক্বিবলা সাইয়্যিদুনা ইমাম খলীফাতুল্লাহ হযরত আস সাফফাহ আলাইহিছ ছলাতু ওয়াস সালাম



ভ্যালেন্টাইন ডে থেকে মুসলমানদের অবশ্যই মুক্ত হতে হবে


নতুন নতুন ফাঁদে ফেলে মুসলমানদেরকে বিপদগামী করার জন্য ইহুদী-মুশরিক, নাছারা তথা সকল বিধর্মীদের কু-পরিকল্পনার অন্তঃ নেই। বিভিন্ন বিচিত্র ধরণের উপায়ে, কৌশলে তারা বিভিন্ন দিবস চালু করেছে। আর এর জন্য তারা ব্যবহার করছে মিডিয়া বা সংবাদ মাধ্যমগুলোকে। মুসলমানদের আকর্ষিত করার জন্য তারা