মেঠোপথ -blog


...


 


ডটবাংলা ডোমেইন উদ্বোধন, ফি হাজার টাকা


ডটবাংলা ডোমেইনকে বাংলাদেশের বিজয় বলে উল্লেখ করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। গতকাল ইয়াওমুস সাব্ত (শনিবার) দুপুর ১২টায় গণভবন থেকে ডিজিটাল কনফারেন্সের মাধ্যমে ডটবাংলা ডোমেইনের উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী। এর আগে এ বিষয়ে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় ২১ ডিসেম্বর-২০১৬ ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগকে চিঠি দিয়ে চূড়ান্ত



যৌতুকের তথ্যচিত্র


যৌতুকই হচ্ছে বাংলাদেশে নারী নির্যাতনের অন্যতম কারণ। বিভিন্ন সমীক্ষায় দেখা যায় গৃহ-বিবাদের ২০ থেকে ৫০ ভাগের জন্য দায়ী হচ্ছে যৌতুক । যৌতুকের জন্য নারীরা স্বামী ও শ্বশুরবাড়ির লোকজনের কাছে মানসিক ও শারীরিকভাবে লাঞ্ছিত ও অত্যাচারের শিকার। ২০১০ সালে Bangladesh Society for



বাংলাদেশে কখন ও কীভাবে যৌতুক প্রথার প্রচলন শুরু হয়


মুসলিম নিয়ম অনুযায়ী পাত্রীকে মোহরানা পরিশোধ করতে হয়। কিন্তু বর্তমানে উল্টো পাত্রী পক্ষকে যৌতুক দিতে বাধ্য করা হচ্ছে! ১৯৭০ সাল পর্যন্ত বাংলাদেশে যৌতুক নামক প্রথা অপরিচিত ছিল। সমীক্ষায় দেখা যায়, বাংলাদেশে ১৯৪৫-১৯৬০ সালে যৌতুকের হার ছিল ৩%। ১৯৮০ সালে আইনগতভাবে যৌতুক



উম্মুল মু’মিনীন হযরত কুবরা আলাইহাস সালাম উনার ব্যবসা বাণিজ্য


ব্যবসা-বাণিজ্য: উম্মুল মু’মিনীন হযরত কুবরা আলাইহাস সালাম উনার ব্যবসা বাণিজ্য নিয়ে সীরাতগ্রন্থসমূহে বিভিন্ন বক্তব্য পাওয়া যায়। যা লিপিবদ্ধ করলে কলবর অনেক বড় হয়ে যাবে। সংক্ষিপ্তাকারে মূলকথা হলো, উম্মুল মু’মিনীন হযরত কুবরা আলাইহাস সালাম উনার পিতা খুওয়াইলিদ ছিলেন পুরো আরব জাহানের বড়



হযরত খাদিজাতুল কুবরা আলাইহাস সালাম উনার শাদী মুবারক


প্রথম শাদী মুবারক: উম্মুল মু’মিনীন সাইয়্যিদাতুনা হযরত কুবরা আলাইহাস সালাম উনার প্রথম শাদী মুবারক নিয়ে ঐতিহাসিকগণ বিভিন্ন মত প্রকাশ করেছেন। তবে সর্বাধিক বিশুদ্ধ, মশহূর, দলীল ভিত্তিক, নির্ভরযোগ্য এবং সর্বোচ্চ প্রণিধানপ্রাপ্ত মতে, তামীম গোত্রের আবু হালাহ হিন্দ নাব্বাশ ইবনে জুরারা উনার সাথে



পবিত্র কুরআন শরীফে বর্নিত হযরত উম্মাহাতুল মু’মিনীন আলাইহিন্নাস সালাম উনাদের মর্যাদা মুবারক


  খালিক্ব মালিক রব মহান আল্লাহ পাক তিনি ইরশাদ মুবারক করেন, يَااَيُّهَا النَّاسُ قَدْ جَاءَتْكُمْ مَوْعِظَةٌ مّـِنْ رَّبّـِكُمْ وَشِفَاء لّـِمَا فِى الصُّدُوْرِ وَهُدًى وَّرَحْمَةٌ لّـِلْمُؤْمِنِيْنَ. قُلْ بِفَضْلِ اللهِ وَبِرَحْمَتِهٖ فَبِذٰلِكَ فَلْيَفْرَحُوْا هُوَ خَيْرٌ مّـِمَّا يَـجْمَعُوْنَ. অর্থ: “হে মানুষেরা! হে সমস্ত জিন-ইনসান,



সন্তু লারমা ও রাজা দেবাশিষ বলেছিল-বাংলাদেশে কোন আদিবাসী নাই’


পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক সাবেক প্রতিমন্ত্রী ও রাঙামাটি জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি দীপংকর তালুকদার বলেছে, সন্তু লারমা ও চাকমা রাজা দেবাশিষ রায় ইতোপূর্বে বলেছিল বাংলাদেশে ও পার্বত্য চট্টগ্রামে কোন আদিবাসী নাই, এখানে আছে উপজাতী এবং কিছু ক্ষুদ্র জনগোষ্ঠী। কিন্তু এখন তারা আদিবাসীর



উম্মুল মু’মিনীন হযরত খাদীজাতুল কুবরা আলাইহাস সালাম তিনি আরবের মধ্যে ব্যবসা বাণিজ্যে অদ্বিতীয়া এবং বিপুল ধন সম্পদের অধিকারীনী ছিলেন


পৃথিবীর ইতিহাসে তৎকালীন সময়ে সমগ্র আরব জাহানে যত বড় ব্যবসায়ী ও বণিক ছিল, তার মূল কেন্দ্র বিন্দু ছিলেন উম্মুল মু’মিনীন হযরত কুবরা আলাইহাস সালাম উনার সম্মানিত পিতাজান এবং টাকা পয়সায়, ধন-সম্পদে একমাত্র খ্যাতিসম্পন্ন, সুপরিচিত, এবং সম্মানিত একক ব্যক্তিত্ব। আর এই সম্মানিত



আদমশুমারি : ৫ বছরে জাপানে মানুষ কমেছে ১০ লাখ


সারা বিশ্বে প্রতিনিয়ত বেড়েই চলেছে জনসংখ্যা। সর্বশেষ হিসাব অনুযায়ী, বর্তমানে বিশ্বে বাস করছে ৭১২ কোটি মানুষ। জনসংখ্যা নিয়ন্ত্রণে বিভিন্ন দেশের সরকার গ্রহণ করছে নানা পদক্ষেপ। তবে এর মধ্যে উল্টো পথে হাঁটতে শুরু করেছে জাপান। দেশটির সর্বশেষ আদমশুমারি অনুসারে, গত পাঁচ বছরে



সম্ভ্রমহানির শীর্ষে থাকা ১০ কাফির দেশ ।


বিশ্ব জুড়ে ক্রমশই সম্ভ্রমহানিবা নারী নিগ্রহের মতো ঘটনা বেড়ে চলেছে। কথিত উন্নত নারী স্বাধীনতার দেশগুলিতে সেই সব সম্ভ্রমহানি ঘটে।  সরকারি এবং বিভিন্ন গবেষণা সংস্থার সমীক্ষায় যে তথ্য উঠে আসে তা রীতিমতো চোখ কপালে ওঠার মতো। দেখে নেওয়া যাক সম্ভ্রমহানি বা যৌন হেনস্থার ঘটনায়



ঈদে মীলাদুন্নবীর বিরোধীতাকারীরা নিজেরাই বিদআতী


ঈদে মীলাদুন নবীর বিরোধীতাকারীদের আবির্ভাব মাত্র ২০-৩০ বছর আগে, তারা নিজেরাই বেদআত ঈদে মীলাদুন নবী পালন সেই শুরু থেকেই চলে আসছিলো। ১) নবীজি নিজেই ঈদে মীলাদুন নবী পালন করেছেন এবং হাদীস শরীফে ঈদে মীলাদুন নবী পালনের ফজিলত বর্ণিত হয়েছে । (সূত্র:https://goo.gl/CXaSWD,



হুযূরে পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম হায়াতুন নবী


সুন্নত ওয়াল জামায়াতের আক্বীদা হল সাইয়্যিদুল মুরসালীন, ইমামুল মুরসালীন, খতামুন্‌ নাবিয়্যীন, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম হায়াতুন নবী। মহান আল্লাহ পাক ইরশাদ করেন, “যারা আল্লাহ পাক-এর রাস্তায় শহীদ হয়েছেন তোমরা তাদেরকে মৃত বলো না। বরং তারা জীবিত। অথচ তোমরা