মহানন্দা -blog


...


মহানন্দা
 


৪৭-এ ভারত ভাগ- ভারতীয় মালউনদের বৈষম্য ও পীড়নের খন্ড চিত্র


সালাউদ্দিন আবু আসাদ। পশ্চিমবঙ্গের বর্ধমানে ছিল আসাদের বাড়ি। ১৯৪৭ সালে ভারত ও পাকিস্তান ভাগের পর আসাদ চলে আসেন তৎকালীন পূর্ব-পাকিস্তানে। দেশভাগের ৭০ বছর উপলক্ষে সালাউদ্দিন আবু আসাদের কথা। ১৯৪৬ সালের পর থেকে পশ্চিমবঙ্গে উগ্র হিন্দুদের সাম্প্রদায়িকতা মাথাচাড়া দিয়ে উঠেছিল। মুসলমানদেরকে সেখানে



প্রাসঙ্গিক ভাবনা- ইসলামী সভ্যতা


(বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ডিগ্রিধারী যেসব জাহেল গোষ্ঠী জ্ঞান-বিজ্ঞান-প্রযুক্তি-সভ্যতা সব কিছুতেই পশ্চিমা কাফিরদেরকে গুরু মানে তাদের বোধোদয়ের জন্য) ============ বিশ্ববিদ্যালয়ের এক সমাবর্তন অনুষ্ঠানে HP (Hewlett-Packard Company)-এর তৎকালীন CEO কার্লি ফিওরিনা (Carly Fiorina) মোটিভেশনাল স্পীচ দিয়েছিল। ২০০৫ সাল পর্যন্ত ফিওরিনা ছিলো Fortune 500 কোম্পানির



ছোট্ট একটা চামচ দিয়ে সহজ পরীক্ষায় জেনে নিন কোনো রোগ হয়েছে কিনা?


সুস্থ থাকতে মাঝে মধ্যে মেডিক্যাল চেক আপ জরুরী। কিন্তু অনেকে ডাক্তারের কাছে না গিয়ে কখনো কখনো নিজেরাই ডাক্তার হয়ে যায়। তা করতে গিয়ে ভুল চিকিৎসারও সম্ভাবনা থেকে যায়। অথচ বাড়িতে খুব সহজ একটা পরীক্ষার মাধ্যমেই জেনে নিতে পারেন কোনো রোগ শরীরে



প্রতিটি মায়ের জন্য:- মেয়েকে বিবাহ দেয়ার পর জনৈক মায়ের নসিহত


প্রত্যেকটি মুসলিম মেয়েরই মূল্যবান এই নসীহতগুলো জেনে রাখা উচিৎ !! উমামা বিনতে হারেছ নিজ কন্যার বিবাহের সময় তাকে এমন কিছু নসীহত করেন যা শুধু মেয়ের জন্যই নয়; বরং পরবর্তী সমস্ত নারীর জন্য মাইল ফলক হিসেবে অবশিষ্ট থাকবে। তিনি মেয়েকে লক্ষ্য করে



গলায় কাঁটা বিঁধলে যা করবেন


এদেশের মানুষের খাদ্যতালিকা মাছ ছাড়া কল্পনাই করা যায় না। তাই তো প্রবাদ আছে- মাছে ভাতে বাঙালি। কিন্তু খেতে বসে গলায় মাছের কাঁটা ফোটেনি এমন বাঙালি বোধহয় খুঁজে পাওয়া মুশকিল। অনেকে এমনো আছে মাছের কাঁটা ঠিকমতো বেছে খেতে পারে না। মাঝে মাঝে



পবিত্র কুরবানী নিয়ে ষড়যন্ত্র


রাষ্ট্রদ্বীন ইসলাম-্এর দেশের সরকারি ও বেসরকারি কর্মকর্তারা ইহুদী, মুশরিক, নাছারা অর্থাৎ বেদ্বীন-বদদ্বীনদের সুস্পষ্ট প্ররোচনায় ও উস্কানীতেই মুসলমানদের ওয়াজিব ইবাদত- পবিত্র কুরবানী নিয়ে ষড়যন্ত্রে মেতে উঠেছে। নাউযুবিল্লাহ! পবিত্র কুরবানীর বিরোধী একটি মহল অপপ্রচার করছে যে- ‘পবিত্র কুরবানীর পশুর হাটের কারণে যানজট সৃষ্টি



বাল্যবিয়ের আরো দলীল


বিনতু রসূলিল্লাহ আছ ছানিয়াহ সাইয়্যিদাতুনা হযরত রুক্বইয়্যাহ আলাইহাস সালাম-এর শাদী মুবারক হযরত উছমান যুন নূরাইন আলাইহিস সালাম-এর সাথে কত বছর বয়সে হয়েছিল তা জানা আছে কি? না জানলে জেনে নিন – হযরত রুক্বইয়্যাহ আলাইহাস সালাম-এর বয়স ছিল ১০ বছর। আর হযরত



বাল্যবিবাহ খাছ সুন্নত


আখিরী রসূল, নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার সাথে উম্মুল মু’মিনীন আছ ছালিছাহ সাইয়্যিদাতুনা হযরত ছিদ্দীক্বা আলাইহাস সালাম উনার আক্বদ বা শাদী সম্পন্ন হয় স্বয়ং খালিক্ব মালিক রব মহান আল্লাহ পাক উনার নির্দেশ মুবারকে। বিশুদ্ধ মতে- সাইয়্যিদুল



মুক্তিযুদ্ধে ভারতীয় সেনা বাহিনীর লুটপাটের ইতিহাস ও সাহায্যের স্বরূপ


(সঙ্কলিত পোস্ট)- ১৯৭১ সালের মুক্তিযুদ্ধে বীর মুক্তি বাহিনী যখন দেশের ৯৫-৯৯ শতাংশ অঞ্চল মুক্ত করে ফেলেছিল, ঠিক তখন ৩রা ডিসেম্বর ভারতীয় আরদালী বাহিনী লুটপাট করার জন্য বাংলাদেশে প্রবেশ করে। তারা ১৬ ডিসেম্বরের পর বাংলাদেশ জুড়ে নজির বিহীন লুটপাট চালিয়েছিলো। ৯৩ হাজার



গণতন্ত্রের বাজেট অকল্পনীয় একটা ধোঁকাবাজি।


গণতন্ত্রের বাজেট অকল্পনীয় একটা ধোঁকাবাজি। এই মাত্র ৪ লাখ ২৬৬ কোটি টাকার বাজেট ঘোষণা হলো আর এতেই এক শ্রেণীর জাহেল লোক ও দালাল মিডিয়া চেঁচামেচি করে যে- ঘাটতির বাজেট, উচ্চাভিলাষী বাজেট, বাস্তবায়ন সম্ভব নয় ইত্যাদি ইত্যাদি। হ্যাঁ, ধোঁকাবাজ গণতন্ত্রীরা বাজেটে কিছু



মেকি নয়, খাঁটি দেশপ্রেমিক হলে সঠিক জবাব দিবেন; সত্য গোপন করে জ্ঞানপাপী হবেন না——-


ঢাবি’র তাবৎ ছাত্র-শিক্ষকের কাছে প্রশ্ন- যে রবীন্দ্র ঢাবি (ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়) প্রতিষ্ঠার বিরোধী, সে-ই ঢাবি’তে রবীন্দ্রপূজা হয় কেন? রবীন্দ্রবন্দনা হয় কেন? ঢাবি’তে রবীন্দ্রকে নিয়ে এত মাতামাতি কেন? যারা ঢাবি (ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়) প্রতিষ্ঠার বিরোধিতাকারী রবীন্দ্রকে নিয়ে মাতামাতি করে , রবীন্দ্রপূজা করে , রবীন্দ্র



বেঈমান মুনাফিক আর কাকে বলে?


বন্ধু বলে কথা; ক্ষমতাধর বন্ধু আরেক ছোট বন্ধুর (দালাল, চামচা) পাছা মারবে এটাই গণতন্ত্র ও ধর্ম নিরপেক্ষতার অমোঘ ও মহান বাণী । আর ছোট বন্ধুকে (দালাল, চামচা) ক্ষমতার মোহে পাছা মারতে দিতে হবে। বন্ধু বলে কথা না? বাংলাদেশের আ’লীগ সরকারের অকৃত্রিম