মুহিউদ্দীন -blog


...


 


হযরত উম্মাহাতুল মু’মিনীন আলাইহিন্নাস সালাম উনারা একমাত্র মহান আল্লাহ পাক তিনি এবং উনার হাবীব, নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক


মহান আল্লাহ পাক তিনি ইরশাদ মুবারক করেন, اِنَّـمَا يُرِيْدُ اللهُ لِيُذْهِبَ عَنْكُمُ الرِّجْسَ اَهْلَ الْبَيْتِ وَيُـطَـهِّـرَكُمْ تَطْهِيْرًا. অর্থ: “হে মহাসম্মানিত ও মহাপবিত্র হযরত আহলু বাইত শরীফ আলাইহিমুস সালাম! নিশ্চয়ই মহান আল্লাহ পাক তিনি চান আপনাদের থেকে সমস্ত প্রকার অপবিত্রতা দূর করে



মুসলমানদের জন্য সতর্কবাণী


সাইয়্যিদুল মুরসালীন, ইমামুল মুরসালীন, নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি ইরশাদ মুবারক করেন, “প্রত্যেক ছবি তুলনেওয়ালা জাহান্নামী।” নাউযুবিল্লাহ। এই পবিত্র হাদীছ শরীফ থেকে বুঝা যাচ্ছে যে, যারা ছবি তুলবে তারা জাহান্নামী হবে। আর প্রাণীর ছবি আঁকা, রাখা,



নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি যখন সম্মানিত বেহেশতী সুঘ্রাণ মুবারক গ্রহণ করার ইচ্ছা মুবারক


যখন নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি সম্মানিত জান্নাত মুবারক উনার প্রতি আগ্রহী হতেন তথা সম্মানিত বেহেশতী সুঘ্রাণ মুবারক গ্রহণ করার ইচ্ছা মুবারক প্রকাশ করতেন, তখন সাইয়্যিদাতু নিসায়ি ‘আলাল আলামীন আন নূরুর রবি‘য়াহ সাইয়্যিদাতুনা হযরত যাহরা আলাইহাস



সাইয়্যিদাতুন নিসা ‘আলাল আলামীন, সাইয়্যিদাতু নিসায়ি আহলিল জান্নাহ, উম্মু আবীহা, খইরু বানাতি রসূলিল্লাহ ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম সাইয়্যিদাতুনা হযরত


উম্মু আবীহা, আফদ্বলু বানাতি রসূলিল্লাহ ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম সাইয়্যিদাতুনা হযরত আন নূরুল ঊলা আলাইহাস সালাম তিনি সাইয়্যিদুনা হযরত আন নূরুল আউওয়াল আলাইহিস সালাম উনার পর নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার আনুষ্ঠানিকভাবে সম্মানিত নুবুওওয়াত মুবারক ও



সম্মানিত ইলম উনার গুরুত্ব ও ফযীলত


খালিক্ব মালিক রব মহান আল্লাহ পাক উনার অসংখ্য নিয়ামতসমূহ উনার মধ্যে সম্মানিত ইলম মুবারক হচ্ছেন অন্যতম। প্রবাদ বাক্যে রয়েছে ইলমহীন ব্যাক্তি পশুর সমান। কিতাবে আরও উল্লেখ রয়েছে জ্ঞানহীন বন্ধুর চেয়ে জ্ঞানী শত্রুও ভালো। ইলম অর্জন করা ছাড়া জিন ইনসান খালিক্ব মালিক



আসমাউর রিজাল, জারাহ ওয়াত তা’দীল, উছুলে হাদীছ শরীফ উনার অপব্যাখ্যা করে অসংখ্য ছহীহ হাদীছ শরীফ উনাকে জাল বলছে ওহাবী


সবাই কি জারাহ করার যোগ্যতা রাখে? পবিত্র হাদীছ শরীফ পর্যালোচনা ও বিশ্লেষণকারীদের অনেক গুণাবলি থাকতে হবে। যেমন তেমন লোক পবিত্র হাদীছ শরীফ নিয়ে বা কোন রাবী নিয়ে কোন মন্তব্য করতে পারবে না। হযরত আব্দুল হাই লখনবী রহমতুল্লাহি আলাইহি এ বিষয়ে কিতাবে



মেয়েদের সুন্নতী পোশাক সম্পর্কে জানা ফরয


মহান আল্লাহ পাক তিনি ইরশাদ মুবারক করেন, (আমার) রসূল ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি তোমাদের জন্য যা এনেছেন, তা আঁকড়ে ধরো, আর যা থেকে নিষেধ করেছেন, তা থেকে বিরত থাকো। এ বিষয়ে মহান আল্লাহ পাক উনাকে ভয় করো। নিশ্চয়ই মহান আল্লাহ



বাবুল ইলিম বা সম্মানিত ইলিম উনার দরজা হযরত ইমামুল আউওয়াল মিন আহলি বাইতি রসূলিল্লাহ ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম। সুবহানাল্লাহ!


পবিত্র কুরআন শরীফ ও পবিত্র সুন্নাহ শরীফ উনাদের সম্মানিত ইলিম উনার নামই সম্মানিত দ্বীন ইসলাম। উক্ত ইলিম মুবারক সম্পর্কে নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি ইরশাদ মুবারক করেন- انا مدينة العلم و على عليه السلام بابها অর্থ:



সরকার কর্তৃক নির্ধারিত স্থানে নয়, বরং নিজ বাড়িতেই মুসলমানদের কুরবানী করতে দিতে হবে


সেই শুরু থেকেই বাংলাদেশের মুসলমানরা নিজ বাড়িতে কুরবানী করে থাকে। নিজ ও পরিবারের সব সদস্য মিলে গোশত কাটে, কুরবানী ঈদে এটাই যেন সবচেয়ে বড় আনন্দের বিষয়। কিন্তু দুঃখজনক হলেও সত্য, বাংলাদেশ প্রশাসন বলছে- নিজ বাড়িতে আর কুরবানী করা যাবে না। পশুকে



আওলাদে রসূল সাইয়্যিদুনা হযরত সাইয়্যিদুল উমাম আলাইহিস সালাম উনার পবিত্র বিলাদতী শান মবারক প্রকাশ দিবস হলো- কায়িনাতের জন্য সবচেয়ে


  মহান আল্লাহ পাক তিনি উনার পবিত্র কালাম কালামুল্লাহ শরীফ উনার মধ্যে ইরশাদ মুবারক করেন- “তোমরা বিশেষ দিনসমূহ স্মরণ করো। নিশ্চয়ই এই দিনের মধ্যে ধৈর্যশীল ও শোকরগুজার বান্দাদের জন্য রয়েছে বিশেষ নিয়ামত মুবারক।” (পবিত্র সূরা ইবরাহীম শরীফ : পবিত্র আয়াত শরীফ



পাশ্চাত্যের মধ্যে যখন বিবাহ বন্ধন শেষ হয়ে আসছে; তখন পশুদের বিবাহ দিয়ে আনন্দ ভোগ


শরীরের কোনো অঙ্গ-প্রত্যঙ্গ রোগে আক্রান্ত হলেই আমরা সেই অঙ্গ-প্রত্যঙ্গ নিয়ে ভাবি, ডাক্তারের কাছে যাই, ওষুধ খাই ইত্যাদি ইত্যাদি। কিন্তু যতোদিন ওই অঙ্গ-প্রত্যঙ্গটি সুস্থ থাকে ততদিনকে খবর রাখে কার? পৃথিবী থেকে যখন ভালোবাসা উঠে গেছে তখনই শোনা যাচ্ছে ভালোবাসা নিয়ে যতোসব আয়োজন।



ফাক্বীহা, মাশুকাহ, গফীরাহ, নাছিবাহ, রহীমাহ হযরত শাহযাদীয়ে ছানী আলাইহাস সালাম উনার লক্বব মুবারক অসংখ্য-অগণিত


যিনি খালিক্ব মালিক রব মহান আল্লাহ পাক তিনি এবং নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহ ওয়া সাল্লাম উনারা নিজে অসংখ্য লক্বব মুবারক ব্যবহার এবং প্রকাশ করে বান্দা-বান্দী ও উম্মতকে লক্বব মুবারক ব্যবহার এবং প্রকাশ করার আদত শিক্ষা দিয়েছেন। যার জন্য