সাধারণ মানুষ -blog


...


সাধারণ মানুষ
 


মহান আল্লাহ পাক উনার নিকট পছন্দনীয় ও পবিত্র মাস হচ্ছেন ছফর শরীফ মাস


মহান আল্লাহ পাক রব্বুল আলামীন তিনি ইরশাদ মুবারক করেন, “নিশ্চয়ই মহান আল্লাহ পাক উনার নিকট আসমান-যমীনের সৃষ্টির শুরু থেকে গণনা হিসেবে মাসের সংখ্যা ১২টি। তন্মধ্যে ৪টি হচ্ছে হারাম বা পবিত্র মাস। এটা সুপ্রতিষ্ঠিত বিধান। সুতরাং তোমরা এ মাসগুলোতে নিজেদের প্রতি যুলুম



ছোঁয়াচে রোগ এবং চিকিৎসা বিজ্ঞানের অজ্ঞতা ও কিছু প্রশ্ন


যিনি খালিক্ব মালিক রব মহান আল্লাহ পাক তিনি উনার পবিত্র কুরআন শরীফ উনার মধ্যে ইরশাদ মুবারক করেন, “কাফির-মুশরিকরা হিংসাবশতঃ চায় কীভাবে মুসলমানের পবিত্র ঈমান আনার পর আবার কাফির বানানো যায়।” কাফির-মুশরিকদের ষড়যন্ত্রের আরেকটি সূক্ষ্ম ষড়যন্ত্র হলো ছোঁয়াচে রোগ বলে কিছু আছে



কোনো মুশরিক কখনোই কোনো মু’মিন-মুসলমান উনাদের সাহায্যকারী ও বন্ধু হতে পারে না


সভা-সমাবেশ সর্বত্র খুব জোর দিয়ে বলা হয়, মুশরিকরা আমাদের খুব ভালো প্রতিবেশী ও বন্ধু। তারা আমাদের সাহায্যকারী। তাদের সাহায্য ছাড়া আমরা মুসলমানরা না খেয়েই মরবো। নাউযুবিল্লাহ! এটা কি কোনো ঈমানদার বান্দার কথা হতে পারে! হ্যাঁ, যারা মহান আল্লাহ পাক উনাকে এবং



পরিবেশ দূষণ ও নদীগুলোকে বাঁচাতে হলে অবশ্যই মূর্তি ডুবানো বন্ধ করতে হবে, এর কোনো বিকল্প নেই


  প্রতিবছর হিন্দুদের প্রতিমা বিসর্জনের নামে মূর্তি ডুবানোর ফলে একদিকে যেমন পরিবেশের ক্ষতি হচ্ছে অন্যদিকে নদীগুলো পড়ছে নাব্যতা সঙ্কটে। ভারতের মতো কট্টর হিন্দুত্ববাদী দেশেও নদী বাঁচাতে গঙ্গাসহ বিভিন্ন নদীতে মূর্তি বিসর্জন নিষিদ্ধ করা হয়েছে। খবরে এসছে, পানিতে দূষণ রোধ করতে ভারতের



হাদীসের আলোকে গ


নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি ইরশাদ মুবারক করেন, ‘কোনো ব্যক্তি যদি পবিত্র আশূরা শরীফ উনার দিনে তার পরিবারবর্গকে ভালো খাওয়ায়-পরায় তাহলে মহান আল্লাহ পাক তিনি তাকে এক বৎসরের জন্য সচ্ছলতা দান করবেন।’ অর্থাৎ পবিত্র হাদীছ শরীফ



কোনো মুসলমান যদি কখনো রিযিকের সঙ্কট মনে করে…


অর্থাৎ খাদ্যের অভাবে ক্ষুধার্ত থাকে, তখন সে যেন বেশি বেশি ‘আল্লাহ আল্লাহ’, ‘লা-ইলাহা ইল্লাল্লাহ’ যিকির মুবারক করে এবং বেশি বেশি ছলাত শরীফ বা দুরূদ শরীফ ও মীলাদ শরীফ, ক্বিয়াম শরীফ পাঠ করে। তাহলে মহান আল্লাহ পাক তিনি যিকির শরীফ ও দুরূদ



সকল বান্দা-বান্দী ও উম্মত অর্থাৎ কুল-কায়িনাতের সকলের জন্য ফরয হচ্ছে-


নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার যথাযথ খিদমত মুবারক করা অর্থাৎ সাইয়্যিদুল আ’ইয়াদ, সাইয়্যিদে ঈদে আ’যম, সাইয়্যিদে ঈদে আকবর পবিত্র ঈদে মীলাদুন নবী ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম অর্থাৎ পবিত্র সাইয়্যিদুল আ’ইয়াদ শরীফ উনার সম্মানার্থে খিদমত মুবারক উনার



পবিত্র ঈদে মীলাদুন নবী ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনাকে বিধর্মীদের কালচার বলা কাট্টা কুফরী


সুলত্বানুল আরিফীন হযরত ইমাম জালালুদ্দীন সুয়ূতী রহমতুল্লাহি আলাইহি তিনি উনার “ওসায়িল ফী শরহি শামায়িল” নামক কিতাবে বলেন, যেকোনো ঘরে অথবা মসজিদে অথবা মহল্লায় মীলাদ শরীফ পাঠ করা হয় বা মীলাদুন্ নবী ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উদ্যাপন করা হয়, সেখানে অবশ্যই মহান



ইহুদি বসতি স্থাপনের সমালোচনা করেছে যুক্তরাষ্ট্র


পূর্ব জেরুজালেমে ইসরায়েলের নতুন করে বসতি স্থাপনের পরিকল্পনার সমালোচনা করেছে যুক্তরাষ্ট্র। এ ধরনের কার্যক্রম আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের মধ্যে নিন্দা ও মিত্র দেশগুলোর সঙ্গে দূরত্ব সৃষ্টি করবে বলে হোয়াইট হাউজের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে। মুখপাত্র জোশ আর্নেস্ট জানিয়েছেন, বুধবার যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা



সউদী ওহাবী ইহুদীদের সহজাত ভণ্ডামি ও মুনাফিকী এবং আশির দশকে তাদের বেহায়াপনার চিত্র


১৯৭৫ সালে সউদী আরবের ‘কিং ফয়সাল স্পেশালিস্ট হাসপাতাল’-এ নিয়োগ পেয়েছিল আমেরিকার বোস্টনের চিকিৎসক ডা. স্যেমুর গে। সে ছিল কথিত সউদী রাজপরিবারের ব্যক্তিগত চিকিৎসক। সউদীতে তিন বছর কর্মরত থাকাকালে তার অভিজ্ঞতা নিয়ে রচিত ‘বিইয়ন্ড দি ভেইল’ অত্যন্ত আলোচিত একটি বই। উক্ত বইতে



হিন্দুদের পূজা অনুষ্ঠান মুসলমানদের চরিত্রহরণের এক গভীর ফাঁদ


যবন, ম্লেচ্ছ, অস্পৃশ্য, নাপাক জাত হিন্দুদের অশ্লীলতা-বেহায়াপনার বিষয়টি নতুন কিছু নয়। তাদের চলনে-বলনে, চরিত্রে অশ্লীলতা, বেহায়পনা, বর্বরতা, পশুবৃত্তিক আচরণ সম্পর্কে সবারই জানা আছে। তবে তাদের পূজায় মুসলমান ছেলে-মেয়েদের আকৃষ্ট করতে এমন কিছু কর্মকা- তারা পরিচালনা করে যা অনেকেরই অজানা। হিন্দুদের মন্দিরগুলোকে



হারাম গান-বাজনা কোনো অবস্থাতেই মুসলমানগণের মোবাইল ফোনের রিংটোন হতে পারে না


আধুনিক তথ্য-প্রযুক্তির যুগে মোবাইল ফোন নিত্য ব্যবহার্য ও অতি প্রয়োজনীয় একটি যন্ত্র। যা আজকাল সকল পেশার মানুষের বিভিন্ন প্রয়োজন মেটাতে সাহায্য করে থাকে। কিন্তু অতি দুঃখের বিষয় যে, এই মোবাইল ফোনের মাধ্যমে ইহুদী-খ্রিস্টান তথা বিধর্মীচক্র মুসলমানগণের ঈমান ও আমলের বিরুদ্ধে এক