ইমরুল মুরাদ -blog


...


 


পবিত্র ২৩শে জুমাদাল উখরা শরীফ সম্মানিত মুসলমানদের জন্য এক মহান ঈদ বা খুশি মুবারক প্রকাশের দিন


প্রতি বছর ঘুরে আসে আমাদের আইয়্যামুল্লাহ শরীফ বা এই সম্মানিত খুশির দিন। ঈদ মানে আনন্দ, ঈদ মানে খুশি তা আমাদের কারো অজানা নয়। আর উক্ত বরকতময় ঈদ বা খুশির দিনের মধ্যে অন্যতম দিন হলো পবিত্র ২৩শে জুমাদাল উখরা শরীফ। সুবহানাল্লাহ! কারণ



যাকাত-উশর যথাযথভাবে দিলে বন্যা, তুফানে, খরায় ফসল নষ্ট হবে না


পত্রিকার পাতা খুললে সংবাদ দেখা যায়, “বন্যায় তলিয়ে গেছে হাজার হাজার একর জমি”। “খরায় ফসল নষ্ট।” “ভেসে গেছে মাছ”। ইত্যাদি ক্ষয় ক্ষতির বিবরণ। এর কারণ কি? পবিত্র হাদীছ শরীফ উনার মধ্যে ইরশাদ মুবারক হয়েছে, “যমীনে ও পানিতে যত মাল সম্পদ বিনষ্ট



গান-বাজনা বাদ দিয়ে না’ত শরীফ পাঠ দ্বারা সমস্ত অনুষ্ঠান শুরু করতে হবে


বাংলাদেশ মুসলমানের দেশ। এ দেশে শতকরা ৯৮ ভাগ মানুষ মুসলমান। আর মুসলমানের দ্বীন হচ্ছে পবিত্র ইসলাম। পবিত্র হাদীছ শরীফ উনার মধ্যে ইরশাদ মুবারক হয়েছে, নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি ইরশাদ মুবারক করেন, “আমাকে প্রেরণ করা হয়েছে



আমরা স্টেডিয়াম চাই না, আমরা পবিত্র কুরবানীর হাট চাই এবং হাটের জন্য ভুর্তকি চাই


‘প্রতিটি উপজেলায় স্টেডিয়াম তৈরি করা হবে’ -কিছুদিন আগে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এ ঘোষণা দিয়েছিলো। নিশ্চয়ই প্রধানমন্ত্রী নিজে খেলাপ্রেমী বা খেলাপ্রেমীদের অনুরোধে এ ঘোষণা দিয়েছে। কিন্তু আমরা এদেশের ৯৮ ভাগ মুসলমান হারাম খেলাধুলার এই স্টেডিয়াম চাই না। আমাদের দাবি হলো- দেশের প্রতিটি