সাময়িক অসুবিধার জন্য আমরা আন্তরিকভাবে দু:খিত। ব্লগের উন্নয়নের কাজ চলছে। অতিশীঘ্রই আমরা নতুনভাবে ব্লগকে উপস্থাপন করবো। ইনশাআল্লাহ।

রাতের তারা -blog


...


রাতের তারা
 


হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি হচ্ছেন- নিয়ামতে উযমা মুবারক অর্থাৎ সবচেয়ে মহান বা বড় নিয়ামত মুবারক


মহান আল্লাহ পাক তিনি ইরশাদ মুবারক করেন, (মু’মিন বান্দা-বান্দী) উনারা খুশি প্রকাশ করেন মহান আল্লাহ পাক উনার নিয়ামত মুবারক ও ফদ্বল বা অনুগ্রহ মুবারক লাভ করার কারণে। সুবহানাল্লাহ! নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি ইরশাদ মুবারক করেন,



পবিত্র আখিরী চাহার শোম্বাহ শরীফ পালন করা সুন্নত; বিদয়াত বলা কুফরী


মহান আল্লাহ পাক তিনি ইরশাদ মুবারক করেন, والذين اتبعوهم باحسان رضى الله عنهم ورضوا عنه অর্থ: “হযরত ছাহাবায়ে কিরাম রদ্বিয়াল্লাহু তায়ালা আনহুম উনাদেরকে যারা উত্তমভাবে অনুসরণ করবে, মহান আল্লাহ পাক তিনি তাদের প্রতিও সন্তুষ্ট হবেন এবং তারাও মহান আল্লাহ পাক উনার



যদিও সে এমপি-মন্ত্রী বা সরকার প্রধান হোক না কেন- মূর্তিপূজায় সাহায্যকারী সকলেই মূর্তিপূজারি ও মুশরিকের অর্ন্তভুক্ত


পবিত্র দ্বীন ইসলাম মহানা আল্লাহ পাক উনার একমাত্র মনোনীত দ্বীন। মুসলমান মাত্রই পবিত্র দ্বীন ইসলাম ব্যতীত অন্য কিছুই কল্পনা করতে পারে না। কোনো মুসলমান মূর্তিপূজায় বৌদ্ধ পুর্ণিমায় কিংবা ক্রিসমাসে অংশগ্রহণ করে আর্থিক সাহায্য করে, তাহলে সে পবিত্র দ্বীন ইসলাম থেকে খারিজ



বেমেছাল আত্মত্যাগের এক বেদনাদায়ক ওয়াক্বিয়া


সাইয়্যিদুনা হযরত ফারূক্বে আ’যম আলাইহিস সালাম উনার খিলাফত মুবারক পরিচালনাকালে তিনি হযরত যায়ীদ বিন আমের আল জুমাহী রদ্বিয়াল্লাহু তায়ালা আনহু উনাকে হিমসের গভর্নর করে পাঠালেন। সাইয়্যিদুনা হযরত ফারূক্বে আ’যম আলাইহিস সালাম তিনি কিছুদিন পর হিমসের সার্বিক অবস্থা পর্যবেক্ষণের জন্য হিমসে গেলেন।



প্রখ্যাত ইতিহাসবিদদের দৃষ্টিতে পবিত্র হারামাইন শরীফে সাইয়্যিদুল আ’ইয়াদ শরীফ পালনের ইতিহাস


বাতিল ফিরকার লোকেরা বলে থাকে, পবিত্র সাইয়্যিদুল আ’ইয়াদ শরীফ এই সেদিন থেকে প্রচলিত হয়েছে! নাউযুবিল্লাহ! হারামাইন শরীফে এ দিবস পালন হতনা! নাউযুবিল্লাহ! অথচ ইতিহাস সাক্ষী সম্মানিত ইসলাম উনার শুরু থেকেই হারামাইন শরীফে পবিত্র সাইয়্যিদুল আ’ইয়াদ শরীফ পালন হতো। নিম্নে কয়েকজন প্রখ্যাত



খলীফায়ে ছালিছ, আমিরুল মু’মিনীন সাইয়্যিদুনা হযরত যুন নুরাইন আলাইহিস সালাম উনার নৌবাহিনী গঠন এবং বিজিত এলাকার সংক্ষিপ্ত বর্ণনা


সময় কি আছে বর্তমান মুসলিম দেশের শাসকদের জন্য, তারা চিন্তা করবে কি তাদের অতীত ইতিহাস-ঐতিহ্য কেমন ছিল, তারা শিক্ষা নেবে কী কেমন বীরত্বপূর্ণ ছিল মুসলমান উনাদের অতীত শৌর্য, কী ন্যায়নিষ্ঠ ছিলেন মুসলিম জাতির পূর্বপুরুষ উনারা? আমরা যদি একবার চোখ বুলাই তাহলে



মহান আল্লাহ পাক তিনি পবিত্র কুরবানীর যে কোন কাজে বাধা প্রদানকারীকে অবশ্যই লাঞ্ছিত করবেন


যে আমলটি চির অটুট সেটি হচ্ছে পবিত্র কুরবানী। চির অটুট এজন্য যে, আবুল বাশার হযরত আদম শফিউল্লাহ আলাইহিস সালাম উনার থেকে শুরু হয়ে আজ পর্যন্ত পবিত্র কুরবানীর আমলটি বহাল রয়েছে। এটা আল্লাহ পাক উনার একটা আদেশ আর হযরত খলীলুল্লাহ আলাইহিস সালাম



দেশের চলমান ‘শিক্ষানীতি’ কিভাবে ইসলাম ও মুসলমানদের হতে পারে?


দেশের বর্তমান শিক্ষানীতি অনুযায়ী যে সকল পাঠ্যবই প্রণীত হয়েছে, সেখানে এমন কিছু বিতর্কিত বিষয় পড়ানো হচ্ছে যেগুলো কোনোভাবেই ইসলাম সমর্থন করে না। বরং ওই সকল পাঠবইয়ের গল্প, কবিতা, রচনাগুলো মুসলমানদের ঈমান ও মুসলমানিত্বকেই বিনষ্ট করে দিচ্ছে। পাঠ্যবইগুলোর অর্ন্তভুক্ত রচনা, কবিতা ও



এদের আসল পরিচয় কি আপনার জানা আছে?


১) বঙ্কিমচন্দ্র: আমাদের দেশের পাঠ্যবইগুলোতে তার রচনা থাকবেই। সাথে থাকবে ‘সাহিত্য সম্রাট’সহ আরো নানারকম প্রশংসার ফুলঝুড়ি। অথচ পাঠক! এই বঙ্কিমই হলো সেই ব্যক্তি, যে কিনা তার রচনায় লিখেছে- “..বল হরে মুরারে! হরে মুরারে! উঠ! মুসলমানের বুকে পিঠে চাপিয়া মার! লক্ষ সন্তান



সুন্নতে রসূলিল্লাহ ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম পালনের একমাত্র উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত হচ্ছেন হযরত ছাহাবায়ে কিরাম রদ্বিয়াল্লাহু তায়ালা আনহুম


পবিত্র কালামুল্লাহ শরীফ উনার মধ্যে ইরশাদ মুবারক হয়েছে- رَضِيَ اللَّـهُ عَنْهُمْ وَرَضُوا عَنْهُ অর্থাৎ মহান আল্লাহ পাক তিনি উনাদের (হযরত ছাহাবায়ে কিরাম রদ্বিয়াল্লাহু তায়ালা আনহুম) প্রতি সন্তুষ্ট এবং উনারাও মহান আল্লাহ পাক উনার সন্তুষ্টি মুবারক যথাযথভাবে অর্জন করতে পেরেছেন। (পবিত্র সূরা



ঈদে বিলাদতে আওলাদে রসূল সাইয়্যিদুনা হযরত হাদিউল উমাম আলাইহিস সালাম


সমস্ত অন্ধকার দূরীভূত করে, বিশ্বজগতের মাঝে তাশরীফ এনেছেন আওলাদে রসূল সাইয়্যিদুনা হযরত হাদিউল উমাম আলাইহিস সালাম। উনার পবিত্র বিলাদতী শান মুবারক প্রকাশ দিবস ৯ই জুমাদাল ঊলা শরীফ; যা মূলত মহান আল্লাহ পাক রব্বুল আলামীন উনার এবং উনার রসূল, নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ



পবিত্র ছফর শরীফ মাস উনাকে অশুভ ও কুলক্ষণ মনে করা কাট্টা কুফরীর শামিল


পবিত্র হাদীছ শরীফ উনার মধ্যে ইরশাদ মুবারক হয়েছে, হযরত আবূ হুরায়রা রদ্বিয়াল্লাহু তায়ালা আনহু তিনি বর্ণনা করেন, মহান আল্লাহ পাক উনার রসূল, নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি ইরশাদ মুবারক করেন, “সংক্রামক রোগ বলতে কিছু নেই। পেঁচার