মহিন খান -blog


...


 


বড় জানতে ইচ্ছা করে,আমাদের দেশের লোকদের কাছে-


নবীজী ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার গুরুত্ব বেশি ? নাকি ক্রিকেটার মাশরাফি বিন মতুর্জার গুরুত্ব বেশি? গত তিন দিন আগে বাংলাদেশের জাতীয় ক্রিকেট টীমের অধিনাক মাশরাফি বিন মর্তুজার সাথে মারমুখি আচরন করায় অনলাইন অফলাইন ছিলো রণক্ষেত্র। জনগন দাবি করলো – মাশরাফি



হানাফী মাযহাব মতে যার উপর কুরবানী ওয়াজিব তার পক্ষ থেকেই কুরবানী করতে হবে; তার নামে কুরবানী না করে মৃত


সাইয়্যিদুল মুরসালীন, ইমামুল মুরসালীন, খাতামুন নাবিইয়ীন, নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি ইরশাদ করেন, ‘যে ব্যক্তি সামর্থ্যবান হওয়া সত্ত্বেও কুরবানী করবে না সে যেন আমাদের ঈদগাহের নিকটেও না আসে|’ যার উপর কুরবানী ওয়াজিব সে তার নামে কুরবানী



সাইয়্যিদুল আউলিয়া, গাউছুল আ’যম সাইয়্যিদুনা হযরত বড়পীর ছাহেব রহমতুল্লাহি আলাইহি তিনি ছিলেন ইলমে লাদুন্নীপ্রাপ্ত ওলীআল্লাহ


সাইয়্যিদুল আউলিয়া, গউছুল আ’যম সাইয়্যিদুনা হযরত বড়পীর ছাহেব রহমতুল্লাহি আলাইহি উনার সাওয়ানেহে উমরী মুবারকে একটি বিশেষ ঘটনা বর্ণিত রয়েছে। একবার এক ব্যক্তি একটা আমল করার নিয়ত করেছে এভাবে যে, তার সাথে ওই সময় পৃথিবীতে আর কেউই শরীফ থাকতে পারবে না। যদি



সাইয়্যিদাতুনা হযরত যাহরা আলাইহাস সালাম উনার সীমাহীন খুছুছিয়ত মুবারক হতে কতিপয় খুছুছিয়ত মুবারক


মহান আল্লাহ পাক উনার মহান কুদরত হচ্ছেন সাইয়্যিদাতু নিসায়ি আহলিল জান্নাহ, উম্মু আবীহা, সাইয়্যিদাতুনা হযরত যাহরা আলাইহাস সালাম উনার সীমাহীন খুছুছিয়ত মুবারক হতে কতিপয় খুছুছিয়ত মুবারক পবিত্র হাদীছ শরীফ উনার মধ্যে বর্ণিত আছে, ১. সাইয়্যিদাতু নিসায়ি আহলিল জান্নাহ, ত্বাহিরা, ত্বয়িইবাহ, উম্মু