সাময়িক অসুবিধার জন্য আমরা আন্তরিকভাবে দু:খিত। ব্লগের উন্নয়নের কাজ চলছে। অতিশীঘ্রই আমরা নতুনভাবে ব্লগকে উপস্থাপন করবো। ইনশাআল্লাহ।

মুহম্মদ মাহদী হাসান -blog


গোলাম মুহম্মদ মাহদী হাসানULLAPARA KISHOR ANJUMAN


মুহম্মদ মাহদী হাসান
 


সাইয়্যিদুনা হযরত যুন নূরাইন আলাইহিস সালাম উনার বেমেছাল ফযীলত মুবারক


মহাসম্মানিত ও মহাপবিত্র হাদীছ শরীফ উনার মধ্যে ইরশাদ মুবারক হয়েছে, عَنْ اُمِّ الْـمُؤْمِنِيْنَ حَضْرَتْ عَائِشَةَ عَلَيْهَا السَّلَامُ قَالَتْ قَالَ رَسُوْلُ اللهِ صَلَّى اللهُ عَلَيْهِ وَسَلَّمَ اِنَّ اللهَ عَزَّ وَجَلَّ اَوْحٰـى اِلَـىَّ اَنْ اُزَوِّجَ كَرِيـْمَتَـىَّ مِنْ حَضْرَتْ عُثْمَانَ عَلَيْهِ السَّلَامُ حَضْرَتْ رُقَيَّةَ



কুরবানী সংক্রান্ত মনগড়া আইন প্রণয়নের সাথে যারা জড়িত তাদের জন্য হুশিয়ারী


পবিত্র দ্বীন ইসলাম হচ্ছেন সম্মানিত ওহী মুবারক দ্বারা নাযিলকৃত যা অপরিবর্তনীয়। আর পবিত্র ওহী মুবারক উনার দরজা বন্ধ হয়ে গেছে। তাই সম্মানিত পবিত্র দ্বীন ইসলাম উনার উপর হস্তক্ষেপ করা কারো জন্য জায়িয নেই- সে যেই হোক অর্থাৎ রাজা হোক, বাদশাহ হোক,



ইমামুল আউওয়াল, আমীরুল মু’মিনীন সাইয়্যিদুনা হযরত কাররামাল্লাহু ওয়াজহাহূ আলাইহিস সালাম উনার সংক্ষিপ্ত সাওয়ানেহ উমরী মুবারক


হযরত আহলে বাইত শরীফ আলাইহিমুস সালাম উনাদের মর্যাদা সম্পর্কে পবিত্র কালামুল্লাহ শরীফ উনার মধ্যে মহান আল্লাহ পাক তিনি ইরশাদ মুবারক করেন, “(হে আমার হাবীব ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম! আপনি জানিয়ে দিন, আমি তোমাদের নিকট কোনো বিনিময় চাচ্ছি না। আর চাওয়াটাও স্বাভাবিক



কুরবানী যতোই ঘনিয়ে আসছে ততোই ঘনিভুত হচ্ছে কুরবানী বিরোধীদের ষড়যন্ত্র।


কুরবানী যতোই ঘনিয়ে আসছে ততোই ঘনিভুত হচ্ছে কুরবানী বিরোধীদের ষড়যন্ত্র। কুরবানী বিরোধীরা কি কি ষড়যন্ত্র করবে বা করতে পারে সেগুলি জেনে রাখা ভালো। ১) সিটি কর্পোরেশন কতৃক নিদৃষ্ট স্থানে কুরবানী করতে হবে। ২) কুরবানী হাটের সংখ্যা কমানো। ৩) কুরবানীর হাট শহরের



কুদরতে ইলাহী মু’জিযায়ে রসূল, আহলে বাইতি রসূলিল্লাহ, আওলাদুর রসূল, জান্নাতী মেহমান সাইয়্যিদাতুনা হযরত সাইয়্যিদাতুল উমাম আছ ছালিছা আলাইহাস সালাম


  খালিক্ব মালিক রব মহান আল্লাহ পাক তিনি ইরশাদ মুবারক করেন, لكل قوم هاد অর্থ: “প্রত্যেক কওম বা জাতির জন্য রয়েছে একজন পথপ্রদর্শক।” আর সাইয়্যিদুল মুরসালীন, ইমামুল মুরসালীন, নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি ইরশাদ মুবারক করেন-



ঈদে মীলাদে নিবরাসাতুল উমাম আলাইহাস সালাম


 



আপকন কি জানেন মহাপবিত্র ১২ই রবীউল আউয়াল শরীফ উনার সম্ভাব্য তারিখ ???


আজকের তারিখ:১১মাহে রবীউছ ছানী ১৪৩৪ হিজরী,২৫ তাসি’, ১৩৮০ শামসি ,শুক্র বার আর মাত্র ৩২৫দিন পর আবারও ১২ রবীউল আউয়াল শরীফ ঘুরে আসবে। মহাপবিত্র ১২ই রবীউল আউয়াল শরীফ উনার সম্ভাব্য তারিখ: ১৬ই ছামিন ১৩৮১ শামসি (১৪ই জানুয়ারি ২০১৪ ঈসায়ী; ইয়াওমুছ ছুলাছায়ী) বিস্তারিত পড়ুন:http://ullaparakishoranjuman.wordpress.com সংগ্রহ:গোলাম



স্পৃহা আমার মামদূহজী উনার সন্তুষ্টি


সবার সেরা মামদূহ উনি হন ইমামুল উমাম, ক্বদমে উনার সঁপিতে চাই আমার জীবন তামাম। যত আশার বাসা বাঁধি করবেন মামদূহ পুরা, আশায় আছি জনম জনম ছোঁয়ায় হব সেরা। ছোহবত চাই দীদার চাই চাই উনার দৃষ্টি, চাই না আমি বিষয় বিত্ত চাই



সাইয়্যিদুল আ’ইয়াদ মুবারক!!!


আজকের তারিখ:০৮মাহে রবীউছ ছানী ১৪৩৪ হিজরী,২২ তাসি’, ১৩৮০ শামসি ,মঙ্গল বার আর মাত্র ৩২৮ দিন পর আবারও ১২ রবীউল আউয়াল শরীফ ঘুরে আসবে। মহাপবিত্র ১২ই রবীউল আউয়াল শরীফ উনার সম্ভাব্য তারিখ: ১৬ই ছামিন ১৩৮১ শামসি (১৪ই জানুয়ারি ২০১৪ ঈসায়ী; ইয়াওমুছ ছুলাছায়ী) সংগ্রহ:http://ullaparakishoranjuman.wordpress.com



মুসলমানদের জন্য পবিত্র ঈদে মীলাদুন নবী ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার রাত্রি হলো ক্ষমা ও নাজাত হাছিল করার রাত


মুসলমানদের জন্য পবিত্র ১২ রবীউল আউওয়াল শরীফ উনার রাত্রি হলো পবিত্র রজনী। এই মুবারকময় রাত্রিতে মহান আল্লাহ পাক তিনি খাছভাবে দোয়া কবুল করেন ও মানুষের গুনাখাতা ক্ষমা করে থাকেন। পবিত্র হাদীছ শরীফ উনার মধ্যে ইরশাদ মুবারক করা হয়েছে, “নিশ্চয় পাঁচ রাত্রিতে



দোষ


মানুষে বলে আর কতটুকু তার চেয়েও দোষ আমার বেশি প্রকাশ হয় উহা যতটুকু বাতিনে তুলনায় রাশি রাশি। ভালো বলে কিছু নেই আমার জীবনে আমল পরপারে হই নিঃস্ব আমি নেই কোনো সম্বল। আহ! আফসুস আর পরিতাপ আমার জীবন তরে নফসের সাথে পারি



রাজাকারদের বিচার চাই !


যুদ্ধাপরাধী দেশ ও জাতির শত্রু। তারা অকাতরে মানুষদেরকে শহীদ করেছে।তাই এদের উপযুক্ত শাস্তি চাই । তাদে ফাঁসি দেওয়া উচিত ।আর যারা এদের পক্ষে বলে তাদের ও শাস্তি দেওয়া উচিত ।