যুফার -blog


***********সত্য প্রকাশে আমরা জানবাজ তরুন*****************


 


গোল্ডেন রাইস (জিএমও শস্য) চাষ করার বুদ্ধিদাতা খলনায়করা দেশ ও জাতির শত্রু


বিশ্বব্যাপী নিষিদ্ধ জিএমও ক্রপ্স (জেনেটিক্যাল মডিফাইড খাদ্য শস্য) বাংলাদেশের মতো খাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণ একটি দেশে কী করে অনুমোদিত হতে পারে, তা সত্যিই আশ্চর্যের বিষয়। আমাদের দেশে এই আত্মঘাতী বীজ বাণিজ্যিকিকরণের পেছনে কে বা কারা কাজ করছে তাদেরকে চিহ্নিত করা ও খুঁজে বের



যেসব মুসলমানরা পূজায় গিয়েছে তাদের জন্য তওবা করা অত্যন্ত জরুরী


আমাদের সমাজ, আমাদের সামাজিক স্ট্যটাস আমাদের বন্ধুত্ব, আমাদের সম্পর্ক এগুলো কি কখনো আমাদের যিনি খালিক্ব মালিক রব মহান আল্লাহ পাক উনার চেয়ে বড় হতে পারে? না, কখনোই পারে না। তাহলে মহান আল্লাহ পাক তিনি এত এত বার পবিত্র কুরআন শরীফ উনার



ভারতে ৯ রাজ্যে ভাঙনের সুর


কাশ্মীর নিয়ে ভারতের সংবিধানের ৩৭০ ও ৩৫ ধারা বাতিল করায় উত্তপ্ত গোটা ভারত। দেশ-বিদেশে আলোচনা-সমালোচনা চলছে। ভারত সরকারের এই সিদ্ধান্তের ফলে ৯টি রাজ্যে ভাঙনের সুর বইছে। আতঙ্কিত হয়ে পড়েছে রাজ্যগুলোর নাগরিকরা। ভারতের সংবিধানের ৩৬৮ ধারার ভিত্তিতে ৩৭১ নম্বর ধারায় নয়টি রাজ্যকে



১লা এপ্রিলের সেই মর্মান্তিক ইতিহাসের পুনরাবৃত্তি কি এ দেশেও হতে যাচ্ছে?


স্পেন মুসলমানদের দ্বারা বিজীত হয় ৭১১ ঈসায়ী সালে। কিন্তু কিছু সংখ্যক মুসলিম নামধারী মুনাফিক, গাদ্দার এবং ইহুদী-নাছারাদের গভীর ষড়যন্ত্রের ফলে স্পেন মুসলমানদের হাতছাড়া হয় ১৪৯২ সালে। প্রায় ৮ শত বছরের মুসলিম ঐতিহ্যের এক গৌরবেজ্জ্বল অধ্যায়। বর্তমানকালের যে কথিত সভ্য ইউরোপ দাবি



ক্রুসেডের সময় খ্রিস্টান বাহিনী মুসলমানদের গোশত ভক্ষণ করেছিল। নাউযুবিল্লাহ!


সম্প্রতি বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত হয়েছে যে, আমেরিকায় ৭৫টি বিভিন্ন ব্র্যান্ডের হটডগের উপর জরিপ চালিয়ে সেগুলোর মধ্যে মানুষের ডিএনএ পাওয়া গিয়েছে। অর্থাৎ ঐসব হটডগে মানুষের গোশত মেশানো হয়েছে। ইহুদী-খ্রিস্টানদের মানুষের গোশত খাওয়ার এই অভ্যাস নতুন নয়, বরং বহু পুরাতন। উগ্র খ্রিস্টান ক্রুসেডাররা



মহান আল্লাহ পাক উনার জন্য দান করলে তা বহু গুনে বৃদ্ধি পায় 


খলিক্ব মালিক রব মহান আল্লাহ পাক উনার এবং উনার হাবীব , নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনাদের রিযামন্দি সন্তুষ্টি মুবারক লাভের অন্যতম মাধ্যম হচ্ছেন খলিক্ব মালিক রব মহান আল্লাহ পাক উনার রাস্তায় দান ছদকা করা । ইবাদত



সম্প্রীতির নামে মূর্তিপূজারীদের প্রশ্রয় দেয়া মহান আল্লাহ পাক উনার শত্রুদের সাথে হাত মেলানোর শামিল


স্বয়ং যিনি মানবজাতির সৃষ্টিকর্তা, মহান প্রতিপালক আল্লাহ পাক তিনি নিজেই পবিত্র কালামুল্লাহ শরীফ উনার মধ্যে মানবজাতির সবচেয়ে নিকৃষ্ট ও নাপাক শ্রেণীর পরিচয় প্রকাশ করেছেন। মহান আল্লাহ পাক তিনি ইরশাদ মুবারক করেন- “নিশ্চয়ই মুশরিকরা নাপাক।” (পবিত্র সূরা তওবা শরীফ: পবিত্র আয়াত শরীফ-২৮)



নারীদের জন্য হিদায়েতের দিশারী, মুক্তির উপলক্ষ্য সাইয়্যিদাতুন নিসায়িল আলামীন হযরত উম্মুল উমাম আলাইহাস সালাম


যুগে যুগে অসংখ্য ওলীআল্লাহ রহমতুল্লাহি আলাইহিম উনারা তাশরীফ আনলেও মহিলাদের মাঝে হক্কানী-রব্বানী আলিমা ও ওলীআল্লাহ রহমতুল্লাহি আলাইহিমা উনাদের সংখ্যা একান্তই অপ্রতুল। যার কারণে মহিলাদের হিদায়েত ও দ্বীনি জযবা অর্জন অনেকাংশেই বাঞ্ছনীয় মাত্রায় হয়নি। পবিত্র দ্বীন ইসলাম সম্পর্কে জানা ও মানার ক্ষেত্রে



বর্তমান সময়কার আহলু বাইতে রসূল হচ্ছেন রাজারবাগ শরীফ উনার সম্মানিত মুর্শিদ ক্বিবলা আলাইহিস সালাম তিনি এবং উনার সম্মানিত আহলু


সাইয়্যিদুল আম্বিয়া ওয়াল মুরসালীন, রহমাতুল্লিল আলামীন, নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার সম্মানিত ও পূত-পবিত্র পরিবার-পরিজন আলাইহিমুস সালাম উনাদেরকে আহলু বাইত শরীফ আলাইহিমুস সালাম বা আহলে বাইতে রসূল ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলা হয়। সম্মানিত আহলু বাইত



বর্তমান সময়ের ধর্মব্যবসায়ী উলামায়ে ‘সূ’রা ইতিহাস থেকেও শিক্ষা নিতে ব্যর্থ


দুনিয়াদার ধর্মব্যবসায়ী মালানা তথা উলামায়ে ‘সূ’দের অপতৎপরতায় মুসলিম মিল্লাতে কি ভয়ঙ্কর ফিতনা-ফাসাদ ছড়িয়ে পড়তে পারে এর এক ঐতিহাসিক নমুনা যালিম শাসক আকবরের সময়। তার গুমরাহী অপতৎপরতাকে আরো বেগবান করেছিলো এক শ্রেণীর উলামায়ে ‘সূ’ চক্র। তারা ছলে-বলে-কৌশলে হারামকে হালাল, হালালকে হারাম, পবিত্র



সুমহান পবিত্র ১৩ রজবুল হারাম শরীফ: আমীরুল মু’মিনীন, বাবুল ইলম, দামাদে রসূলিল্লাহ ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম, হযরত আহলে বাইত


নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি ইরশাদ মুবারক করেন, احبوا اهل بيتى لحبى অর্থাৎ “তোমরা আমার হযরত আহলে বাইত শরীফ আলাইহিমুস সালাম উনাদেরকে মুহব্বত করো আমার মুহব্বত মুবারক উনার কারণে।” আমীরুল মু’মিনীন, বাবুল ইলম সাইয়্যিদুনা হযরত ইমামুল



ঈদে বিলাদতে আহলু বাইতি রসূলিল্লাহ ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম, সিবত্বতু মুজাদ্দিদে আ’যম আলাইহিস সালাম, জান্নাতী মেহমান, সাইয়্যিদাতুল উমাম সাইয়্যিদাতুনা


সম্মানিত হাদীছ শরীফ উনার মধ্যে ইরশাদ মুবারক হয়েছে, عَنْ حَضْرَتْ اَنَسٍ رَضِىَ اللهُ تَعَالى عَنْهُ قَالَ قَالَ رَسُوْلُ اللهِ صَلَّى اللهُ عَلَيْهِ وَسَلَّمَ مَنْ اَحَبَّ سُنَّتِـىْ فَقَدْ اَحَبَّـنِـىْ وَمَنْ اَحَبَّنِـىْ كَانَ مَعِـى فِـى الْـجَنَّةِ. অর্থ: “হযরত আনাস রদ্বিয়াল্লাহু তা‘য়ালা আনহু উনার