রহমত -blog


...


রহমত
 


হুযুর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার বিলাদত শরীফ তারিখ ১২ রবিউল আউয়াল। এটাই সহীহ মত।


সহীহ হাদীস শরীফে হুজুর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার বিলাদত শরীফের তারিখ,বার, মাস সবই বর্ণনা করা আছে। হাফিজে হাদীস হযরত আবু বকর ইবনে আবী শায়বা রহমাতুল্লাহি আলাইহি যেটা বিশুদ্ধ সনদে হাদীস শরীফে বর্ননা করেন- حَدَّثَنَا أَبُو بَكْرِ بْنُ أَبِي شَيْبَةَ،



ইমামুল মুসলিমীন, মুকতাদায়ে জামীয়ে উমাম, ইনায়েতে হিলম, পেশওয়ায়ে আহলে বাছীরাত, আওলাদে রসূল সাইয়্যিদুনা হযরত ইমামুস সাবি’ মিন আহলি বাইতি


যিনি খলিক্ব মালিক রব মহান আল্লাহ পাক তিনি ইরশাদ মুবারক করেন, اِنَّـمَا يُرِيْدُ الله لِيُذْهِبَ عَنْكُمُ الرِّجْسَ اَهْلَ الْبَيْتِ وَيُـطَـهِّـرَكُمْ تَطْهِيْرًا. অর্থ: “হে মহাসম্মানিত হযরত আহলু বাইত শরীফ আলাইহিমুস সালাম! নিশ্চয়ই মহান আল্লাহ পাক তিনি চান আপনাদের থেকে সমস্ত প্রকার অপবিত্রতা



সম্মানিত মি’রাজ শরীফ উনার রাতে জাহান্নাম দর্শনের যে ভয়াবহ দৃশ্য তার কিঞ্চিত বর্ণনা


বর্ণিত রয়েছে, নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনাকে যখন সম্মানিত মি’রাজ শরীফ উনার রাতে ভ্রমন করানো হলো তখন উনার সফরসঙ্গী হিসেবে ছিলেন হযরত জিবরীল আলাইহিস সালাম। নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি জাহান্নামের



নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার পবিত্র ‘শরহে ছুদূর বা পবিত্র সিনা মুবারক চাক’ সম্পর্কে


মহামহিমান্বিত এক মাস পবিত্র ‘রজবুল হারাম শরীফ’। এ মহাপবিত্র মাসে সবিশেষ আলোচিত ঘটনা হল ‘পবিত্র মি’রাজ শরীফ’। পবিত্র রজবুল হারাম শরীফ মাসে পবিত্র মি’রাজ শরীফ প্রসঙ্গে আলোচনা করতে গিয়ে এক শ্রেণীর গুমরাহ লোক মহান আল্লাহ পাক উনার রসূল, নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ



বঙ্গবন্ধুর এই স্বপ্নটি পূরণ করার কি কেউ নেই..?


আওয়ামীলীগের নেতাকর্মীরা সবসময় বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন বাস্তবায়নের কথা বেশি বেশি বলে থাকে। তাদের দাবি, তাদের প্রতিটি কাজেরই উদ্দেশ্য হলো বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন পূরণ করা। সম্প্রতি বঙ্গবন্ধুর সেই নেতাকর্মীদের অনেকের মুখে রাষ্ট্রধর্ম থেকে ইসলাম বাদ দেয়ার কথা শুনা যায়। কিন্তু এটাও কি তাদের বঙ্গবন্ধুর



গামী পবিত্র ১১ রবীউছ ছানী মুতাবিক ১৩ ছামিন ১৩৮৪ শামসী, ১০ জানুয়ারি ২০১৭ ঈসায়ী ইয়াওমুছ ছুলাছা (মঙ্গলবার) পবিত্র ফাতিহায়ে


মহান আল্লাহ পাক তিনি ইরশাদ মুবারক করেন, ‘সাবধান! নিশ্চয় যাঁরা মহান আল্লাহ পাক উনার ওলী, উনাদের কোনো ভয় নেই এবং কোনো চিন্তা-পেরেশানীও নেই।’ সুমহান বরকতপূর্ণ পবিত্র ১১ই রবীউছ ছানী শরীফ পবিত্র ফাতিহায়ে ইয়াযদাহম শরীফ। গাউছুল আ’যম, সাইয়্যিদুল আউলিয়া হযরত বড়পীর ছাহেব



ওয়ালিদুর রসূল, সাইয়্যিদুল বাশার, সাইয়্যিদুল কাওনাইন, নূরে মুয়াজ্জাম, নূরে এলাহী, মালিকুল জান্নাহ, আবূ রসূলিনা ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম সাইয়্যিদুনা


পরিচিতি মুবারক: নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার মহাসম্মানিত আব্বাজান আলাইহিস সালাম তিনি সর্বকালের সর্বযুগের সর্বশ্রেষ্ঠ ব্যক্তিত্ব মুবারক। সুবহানাল্লাহ! উনার উসীলায় সমস্ত জিন-ইনসান এবং তামাম কায়িনাতবাসী সকলেই মর্যাদা-মর্তবা, শান-মান, ফাযায়িল-ফযীলত, বুযূর্গী-সম্মান মুবারক হাছিল করেছে। সুবহানাল্লাহ! তিনি শুধু



হিন্দুরা গরু জবাইয়ের বিরুদ্ধে হাইকোর্টে রুল জারি করেছে, অন্যদিকে মহান আল্লাহ পাক হিন্দু জনসংখ্যা বৃদ্ধির বিরুদ্ধে রুল জারি করেছেন


হিন্দুরা মুসলমানদের গরু জবাইকে গো-হত্যা বলে চিহ্নিত করে এবং গরুকে দেবতা বলে আখ্যায়িত করে। গরুর মূত্র দিয়ে গো-কলা নামে শরবত খায়। অন্যদিকে মুসলমানরা গোরুর গোশত খেয়ে সুস্বাস্থ্যবান হয়, জীবানু হ্রাসে ক্ষমতাবান হয়, সুঠাম দেহের অধিকারি হয় এবং প্রচুর সন্তানাদির মালিক হয়।



হিন্দুরা তাদের কথিত গো’মাতাকে রক্ষার জন্য মানুষ হত্যা করছে কিন্তু মুসলমানরা নিজেদের রক্ষার জন্য প্রতিরোধ করছে না কেন?


সম্প্রতি খবরে এসেছে ভারতে হিন্দুদের কথিত গো’মাতার গোশত খাওয়ার অজুহাতে এক মুসলমানকের হত্যা করেছে উগ্র হিন্দুরা। এদিকে তার ২২ বছর ছেলেকেও মারধর করে গুরুতর আহত করেছে। (সূত্র: দৈনিক ইনকিলাব, ০১.১০.২০১৫) ঘরে সামান্য গরুর গোশত রাখার রটনা করে হিন্দুরা মুসলমানকে পিটিয়ে হত্যা



পবিত্র রজবুল হারাম মাস উনার চাঁদ দেখা গেছে ॥ আজ ০১ ছানী আশার ০১ মে বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত পবিত্র


যামানার ইমাম ও মুজতাহিদ, কুতুবুল আলম, কাইয়ূমুয যামান, মুজাদ্দিদ আ’যম, গাউছুল আ’যম, খলীফাতুল্লাহ, খলীফাতু রসূলিল্লাহ, আওলাদে রসূল, সাইয়্যিদুনা ইমাম রাজারবাগ শরীফ উনার মামদূহ হযরত মুর্শিদ ক্বিবলা আলাইহিস সালাম উনার মুবারক পৃষ্ঠপোষকতায় ও দিক-নির্দেশনায় পরিচালিত ‘আনজুমানে আল বাইয়্যিনাত রু’ইয়াতে হিলাল মজলিস’ উনার



প্রসঙ্গ: পবিত্র দ্বীন ইসলাম গ্রহণের খবর প্রকাশ করায় জাহাঙ্গীরনগর ইউনিভার্সিটি কর্তৃপক্ষের দুঃখপ্রকাশ!! হিন্দুতোষণকারী উপ-পরিচালক সালাম সাকলাইনকে এখনই মুসলিম দেশ


এদেশের বিশ্ববিদ্যালয়গুলো তাদের সেশনজটের ব্যাপারে দুঃখপ্রকাশ করে না, তারা দুঃখপ্রকাশ করে না হলগুলোতে সন্ত্রাস ও অস্ত্র মজুদের ব্যাপারে। তবে তারা দুঃখপ্রকাশ করে তাদের বিশ্ববিদ্যালয়ের এক কর্মচারীর ইসলাম গ্রহণের সংবাদ প্রকাশে!! সত্যিই! ৯৭ ভাগ মুসলমানের দেশে এটাও সম্ভব!! সম্প্রতি এক হিন্দু কর্মচারীর



পবিত্র রজবুল হারাম মাস উনার চাঁদ তালাশ বিষয়ে আনজুমানে আল বাইয়্যিনাত রুইয়াতে হিলাল মজলিস উনার সভা আজ


আজ ২৯শে জুমাদাল উখরা শরীফ (৩০ হাদি আশার ১৩৮১ শামসী, ৩০ এপ্রিল ২০১৪ ঈসায়ী), ইয়াওমুল আরবিয়া বা বুধবার দিবাগত সন্ধ্যায় সূর্যাস্তের পর বাংলাদেশে (১৪৩৫ হিজরী সনের) পবিত্র রজবুল হারাম মাস উনার চাঁদ তালাশ করতে হবে। আজ ইয়াওমুল আরবিয়া বা বুধবার দিবাগত