সাময়িক অসুবিধার জন্য আমরা আন্তরিকভাবে দু:খিত। ব্লগের উন্নয়নের কাজ চলছে। অতিশীঘ্রই আমরা নতুনভাবে ব্লগকে উপস্থাপন করবো। ইনশাআল্লাহ।

উদীয়মান সূর্য -blog


...


উদীয়মান সূর্য
 


পবিত্র ঈদে মীলাদুন নবী ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম যথাযোগ্য মর্যাদায় উদযাপনের লক্ষ্যে আন্তঃমন্ত্রণালয় সভা অনুষ্ঠিত


মহাসম্মানিত ১২ রবীউল আউওয়াল শরীফ ১৪৩৪ হিজরী (মুতাবিক ২৮ ছামিন ১৩৮০ শামসী, ২৫ জানুয়ারি ২০১৩ ঈসায়ী) তারিখ মুবারকে সাইয়্যিদুল আ’ইয়াদ, সাইয়্যিদে ঈদে আ’যম, সাইয়্যিদে ঈদে আকবর পবিত্র ঈদে মীলাদুন নবী ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম যথাযোগ্য মর্যাদায় উদযাপন উপলক্ষে ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের



নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার প্রতি মুহব্বতের অনুপম দৃষ্টান্ত-২


لا يؤمن احدكم حتى يكون الله ورسوله احب اليه من نفسه وماله وولده ووالده والناس اجمعين অর্থ: “তোমরা ততোক্ষণ পর্যন্ত ঈমানদার হতে পারবেনা যতোক্ষণ পর্যন্ত তোমাদের নিকট খালিক্ব মালিক রব মহান আল্লাহ পাক ও উনার রসূল ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনারা



নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার প্রতি মুহব্বতের অনুপম দৃষ্টান্ত-১


لا يؤمن احدكم حتى يكون الله ورسوله احب اليه من نفسه وماله وولده ووالده والناس اجمعين অর্থ: “তোমরা ততোক্ষণ পর্যন্ত ঈমানদার হতে পারবেনা যতোক্ষণ পর্যন্ত তোমাদের নিকট খালিক্ব মালিক রব মহান আল্লাহ পাক ও উনার রসূল ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনারা



পবিত্র কুরবানী করার সুন্নতী পদ্ধতি


খালিক্ব মালিক রব মহান আল্লাহ পাক পবিত্র কুরআন শরীফে ইরশাদ করেন-“ হে ঈমানদারগন! খালিক্ব মালিক রব মহান আল্লাহ পাক এবং হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার ইতায়াত (অনুসরণ) করো। (অন্য কারো অনুসরণ করে) তোমাদের আমলসমূহ নষ্ট করোনা।” (সূরা মুহম্মদ/৩৩)



প্রসঙ্গঃ পবিত্র ও সুমহান শবে মিরাজ শরীফ (রিপোস্ট)


আল্লাহ পাক উনার হাবীব হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার মি’রাজ শরীফ-এর ঘটনাটি কালামুল্লাহ শরীফ-এর “সূরা বণী ইসরাইল”-এর ১ নম্বর আয়াত শরীফ-এ বর্ণনা করেছেন। মহান আল্লাহ পাক তিনি ইরশাদ করেন, “মহান আল্লাহ পাক যিনি উনার বান্দা (হাবীব) ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া



মহান আল্লাহ পাক রব্বুল আলামীন উনার প্রতি এবং মাখলুকাতের প্রতি মুহব্বতের দায়বদ্ধতা থেকেই যেন হয় সবুজবাংলা ব্লগে লেখা


অত্যন্ত কঠিন এবং পাপাচারে লিপ্ত একটি যুগে আমাদের জন্ম; যখন ঈমান রাখা-হাতের মধ্যে গরম কয়লা রাখার চেয়েও কঠিন।চারপাশের এমন পাপাচার, অনাচার, অবিচার, ব্যভিচারে লিপ্ত সমাজ দেখলে খুবই কষ্ট লাগে, মাঝে মাঝে মাথাটা এতটাই গরম হয় যে ইচ্ছা হয় এই দুনিয়া ছেড়ে



হালাল থেকে হারামে যতই হবে ধাবিত-রহমত থেকে ততই বঞ্চিত হয়ে-হবে গযবে নিপতিত


একজন ব্লগার লেখেছেন: ভাঙলো সুখের ঘর। ডিভোর্স হয়ে গেছে সংগীতশিল্পী ন্যান্সি ও ব্যবসায়ী সৌরভ দম্পতির। সমপ্রতি ন্যান্সি ও সৌরভ পারিবারিকভাবে এই ডিভোর্সের আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন করেন। গতকাল মানবজমিনকে মুঠোফোনে এমনটাই নিশ্চিত করেছেন ন্যান্সি। তবে ডিভোর্সের সঠিক দিনক্ষণ বলতে আপত্তি জানিয়েছেন তিনি। স্বামী



আজ পবিত্র রজব মাসের চাঁদ তালাশ করতে হবে


আজ ২৯শে জুমাদাল উখরা (২৩ ছানী আ’শার-১৩৭৯ শামসী, ২২ মে ২০১২ ঈসায়ী), ইয়াওমুছ ছুলাছায়ি বা মঙ্গলবার দিবাগত সন্ধ্যায় সূর্যাস্তের পর বাংলাদেশে (১৪৩৩ হিজরী সনের) পবিত্র রজব মাসের চাঁদ তালাশ করতে হবে। আজ ইয়াওমুছ ছুলাছায়ি বা মঙ্গলবার দিবাগত সন্ধ্যায় চাঁদ দেখা গেলে



প্রচলিত ছয় উছুলী তাবলীগ জামায়াতের ভ্রান্ত আক্বীদা ও তার খন্ডন -(৫)


প্রচলিত ছয় উছূল ভিত্তিক চিল্লাওয়ালা তাবলীগ জামাতের প্রতিষ্ঠাতা মাওলানা ইলিয়াস মেওয়াতী তার মালফুজাতে বলেছে, “হ্যাঁ, ইহা ঠিক যে, নামায, রোযা উচ্চাঙ্গের ইবাদত; কিন্তু দ্বীনের সাহায্যকারী কাজ নয়।” নাঊযুবিল্লাহ! (মাওলানা ইলিয়াসের অমর বাণী/পৃষ্ঠা-১৮) সে আরো বলেছে, “আম্বিয়া আলাইহিমুস সালাম উনারা যদিও মা’ছূম



প্রচলিত ছয় উছুলী তাবলীগ জামায়াতের ভ্রান্ত আক্বীদা ও তার খন্ডন -(৪)


প্রচলিত ৬ উছূলভিত্তিক তাবলীগ জামায়াতের লোকদের লিখিত কিতাবে এ কথা উল্লেখ আছে যে, প্রচলিত তাবলীগ হচ্ছে নবীওয়ালা কাজ। (তাবলীগ জামায়াত প্রসঙ্গে ১৩ দফা, পৃষ্ঠা-১৪, লেখক- মুহম্মদ মুযাম্মিলুল হক) প্রচলিত ৬ উছূলভিত্তিক তাবলীগ জামায়াতের লোকদের তাদের প্রচলিত তাবলীগকে যে জন্য নবীওয়ালা কাজ



প্রচলিত ছয় উছুলী তাবলীগ জামায়াতের ভ্রান্ত আক্বীদা ও তার খন্ডন -(৩)


মাওলানা ইলিয়াছ সাহেবের ‘মালফুজাত’সহ আরো কিছু কিতাবে লিখিত আছে যে, প্রচলিত তাবলীগ জামায়াত অনন্য ধর্মীয় ত্বরীকা, যা সকল দ্বীনি আন্দোলনের মধ্যে শ্রেষ্ঠ ও সম্মানিত, যার থেকে ভাল ত্বরীকা আর হতে পারেনা। (হযরতজীর মালফুজাত-২৯, পৃষ্ঠা-২২; তাবলীগ গোটা উম্মতের গুরু দায়িত্ব, পৃষ্ঠা-৮৫; দাওয়াতে



প্রচলিত ছয় উছুলী তাবলীগ জামায়াতের ভ্রান্ত আক্বীদা ও তার খন্ডন -(২)


মুবাল্লিগে খাছ ও তার হিদায়েতের ক্ষেত্রঃ মুবাল্লিগে খাছ বা বিশেষ দ্বীন প্রচারক, মুবাল্লিগে আম-এর মত নয় অর্থাৎ তিনি কেবল তার অধীনস্থদেরই নয় বরং তিনি আমভাবে সকল উম্মতকেই হিদায়েত করার উপযুক্ত। পক্ষান্তরে মুবাল্লিগে আম কেবল তার অধীনস্থদেরই বলার যোগ্যতা রাখে। আর যারা